৪ ভাদ্র  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২২ আগস্ট ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

চন্দ্রশেখর চট্টোপাধ্যায়, আসানসোল:  বন্ধু-বান্ধবের সঙ্গে হইহুল্লোড় নয়, বরং নিজের জন্মদিনে তাঁদের নিয়ে হাসপাতালে হাজির হলেন এক যুবক! সকলে মিলে হাসপাতালের ব্লাড ব্যাংকে রক্তদান করলেন। ওই যুবকের এমন মানসিকতার ভূয়সী প্রশংসা করেছেন হাসপাতালে ডাক্তার ও নার্সরা। এমন অভিনব উদ্যোগে শামিল হয়েছিলেন স্থানীয় কাউন্সিলরও।

[আরও পড়ুন:  মানবিকতার নজির, ক্যানসার রোগীদের জন্য চুল দান করলেন বাউড়িয়ার বধূ]

আসানসোল শহরের সেটেকন্যাপুরে বাড়ি অভিষেক তন্তুবায়ের। মঙ্গলবার ছিল তাঁর জন্মদিন। বাইশ বছরে পা দিলেন অভিষেক। চাইলেই বন্ধুদের বাড়িতে বা রেস্তরাঁ নিয়ে গিয়ে খাওয়া-দাওয়া করে বিশেষ দিনটি উদযাপন করতেই পারতেন তিনি। কিন্তু তেমনটা করেননি। বরং জন্মদিনের তিনি যা করলেন, তা অভিনবই শুধু নয়, প্রশংসনীয় বটেও।

জন্মদিনটা কীভাবে উদযাপন করলেন অভিষেক? মঙ্গলবার সকালে ১৮ জন বন্ধুকে সঙ্গে নিয়ে আসানসোল জেলা হাসপাতালে যান অভিষেক। তাঁদের সঙ্গে ছিলেন স্থানীয় কাউন্সিলররা। হাসপাতালের ব্লাড ব্যাংকে সকলে মিলে রক্তদান করলেন তাঁরা। হাসপাতালে কর্তৃপক্ষকে আগে থেকে বলাই ছিল। তাই প্রস্তুত ছিলেন ডাক্তার ও নার্সরাও। অভিষেকে জন্মদিন উপলক্ষ্যে বেলুন ও কাগজ দিয়ে সাজানো হয়েছিলেন আসানসোল হাসপাতালে ব্লাড ব্যাংকটি। শুধু তাই নয়, বন্ধুদের সঙ্গে যখন অভিষেক রক্ত দিচ্ছিলেন, তখন ‘হ্যাপি বার্থ ডে’ গান গেয়ে তাঁকে জন্মদিনের শুভেচ্ছাও জানান হাসপাতালের ডাক্তার ও নার্সরা। আসানসোল জেলা হাসপাতালের ব্লাড ব্যাংকের ইনচার্জ সঞ্জিত চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘জন্মদিনে অনেকেই বন্ধু-বান্ধবের সঙ্গে মলে গিয়ে পার্টি করেন। কিন্তু অভিষেক রক্ত দিলেন। যুব সমাজের সকলেরই যদি এমন মানসিকতা থাকে, তাহলে দেশে আর রক্তের সংকট থাকবে না।’ আর যাঁর জন্মদিনে এমন অভিনব আয়োজন, সেই অভিষেক তন্তুবায়ের সংক্ষিপ্ত প্রতিক্রিয়া, ‘জন্মদিনে এমন কাজ করতে পেরে ভাল লাগছে।’

[ আরও পড়ুন: পুত্রশোক এখনও দগদগে, পিতৃস্নেহে বউমার বিয়ে দিলেন শ্বশুর]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং