BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘বাতিল হওয়া ট্রেন ও প্লেনের টিকিটে ছাড় দিন’, কেন্দ্রকে আবেদন সিপিএম সাংসদের

Published by: Sucheta Chakrabarty |    Posted: March 16, 2020 3:58 pm|    Updated: March 16, 2020 3:58 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা আতঙ্কে বাতিল হচ্ছে একের পর এক পর্যটন। অন্যান্য দেশ থেকে ভারতে আসার সমস্ত বিমান ইতিমধ্যেই বাতিল করা হয়েছে। তবে আন্তঃরাজ্য ভ্রমণেও এই সময়ে অশনিসংকেত দেখছেন দেশের মানুষ। তাই বাতিল হচ্ছে একের পর এক ট্রেনের টিকিটও। এই আতঙ্কের সময় জনগণের পাশে থাকতে টিকিট বাতিল হলে রেলকে টাকা ফিরিয়ে দেওয়ার আবেদন করেন রাজ্যসভার এক সিপিএম সাংসদ।

করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু নয় করোনা আতঙ্কেই নাকাল হয়ে উঠেছে মানুষ। রাজ্যসভার সাত সাংসদ করোনার সংক্রমণ থেকে বাঁচতে খুব সাধারণ কয়েকটি পদ্ধতির কথা বলেন। মারণ রোগ করোনার আতঙ্কে সুপ্রিম কোর্ট, সরকারি বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলি বন্ধ থাকলেও এদিন রাজ্যসভায় একাধিক গুরুত্বপূর্ণ বিষয়ে আলোকপাত করে চেয়ারম্যানের দৃষ্টি আকর্ষণ করান রাজ্যসভার সাংসদরা। এআইডিএমকে সাংসদ এস আর বালাসুব্রহ্মণ্যম রাজ্যসভায় বাজেট অধিবেশনকে কমিয়ে আনার প্রস্তাব দেন। পরিবর্তে বিশ্বব্যাপী সমস্যা করোনা নিয়ে আলোচনার প্রস্তাব রাখেন। সিপিএমের সাংসদ ইলামারক করিম জানান,”সাতটি রাজ্যের স্কুল-কলেজ বন্ধ হয়ে গেছে, কার্যত ঘরে আটকে পড়ুয়ারা। এমনকি লক ডাউনের পরিস্থিতি জারি হয়েছে বেশ কয়েকটি রাজ্যে। এমন সময় বহু মানুষ করোনা সংক্রমণের ভয়ে বাতিল করছেন ট্রেনের টিকিট। ট্রেনের ও এয়ারলাইন্সের টিকিট বাতিল করলে সরকারি ও বেসরকারি সংস্থাগুলিকে টাকা ধার্য না করার থেকে আবেদন করেন।” সাংসদ করিমের এই প্রস্তাবে সহমত প্রকাশ করেন রাজ্যসভার বেশ কয়েকজন সাংসদ। চেয়ারম্যান বেঙ্কাইয়া নাইডু বলেন,”তাদের এই প্রস্তাব আলোচনা করে দেখা হবে।” তৃণমূল সাংসদ ডেরেক ওব্রায়েন বিজ্ঞানীদের প্রস্তাব মত, সংক্রমণ থেকে বাঁচতে বেশ কিছু সতর্কীকরণের প্রচার করেন জনগনের উদ্দেশ্যে। অন্যদিকে বিজেডির সাংসদ সাসমিত পাত্র বলেন,”প্রতি ব্যাংকের কর্মীদেরও সতর্ক হতে হবে। তাদের প্রত্যেককে এটিএমগুলিকে জীবাণু মুক্ত করার প্রক্রিয়া চালাতে হবে।” রাজ্যসভায় এই দিন আমিষ খাবার বা চিকেন থেকেই করোনা ভাইরাস ছড়াই এই ধরণের গুজবের তীব্র নিন্দা করেন বিজেপি সাংসদ ভিকাশ মহাত্মে।

[আরও পড়ুন:তাবিজ ধারণ করলেই দূর হবে করোনা ভাইরাস! উপায় বাতলে গ্রেপ্তার ‘বাবাজি’]

মারণ ভাইরাসের জেরে এপর্যন্ত ভারতে আক্রান্তে সংখ্যা ১১৮, মারা গিয়েছেন ২ জন। মহারাষ্ট্রে ও কেরলে সবথেকে বেশি মানুষ করোনার আক্রান্ত হয়েছেন। ফলে দৈনন্দিন জীবনে নানা সমস্যার সম্মুখীন হতে হচ্ছে তাদের। মার খাচ্ছে দেশের বহু ব্যবসা। বাতিল হচ্ছে ট্রেন ও প্লেনের একাধিক টিকিট।

[আরও পড়ুন:শীঘ্রই শুরু হবে ‘ভারচুয়াল কোর্ট’, করোনা রুখতে পদক্ষেপ শীর্ষ আদালতের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement