BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

প্রাক্তন প্রেমিক হার্দিকের বাগদান নিয়ে মুখ খুললেন অভিনেত্রী উর্বশী রাউটেলা, শোরগোল নেটদুনিয়ায়

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: January 4, 2020 8:06 pm|    Updated: January 4, 2020 8:06 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রেম প্রকাশ্যে আনার ঘণ্টাখানেকের মধ্যেই বাগদান পর্ব সেরে ফেলেছিলেন ক্রিকেট তারকা হার্দিক পাণ্ডিয়া। পাত্রী অভিনেত্রী নাতাশা স্তানকোভিচ। মহিলা অনুরাগীদের মন ভেঙে প্রেমিকা নাতাশা স্ট্যানকোভিচের সঙ্গে চুম্বনের ছবি পোস্ট করেছিলেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। সার্বিয়ান অভিনেত্রীনাতাশা স্তানকোভিচের সঙ্গে ভারতীয় অলরাউন্ডার হার্দিক পাণ্ডিয়ার বাগদানের ছবি প্রকাশ্যে আসতেই শোরগোল ক্রিকেট মহল থেকে সিনেদুনিয়া। শুভেচ্ছা জানিয়েছেন ভারতীয় ক্রিকেট অধিনায়ক বিরাট কোহলি থেকে গায়ক গুরু রানধাওয়াও। তবে এতকিছুর মাঝে হার্দিকের বাগদান পোস্টে যাঁর মন্তব্য সবচেয়ে নজর কেড়েছে, তিনি হলেন বলিউড অভিনেত্রী উর্বশী রাউটেলা।

মাঝেমধ্যেই বি-টাউনের হাইপ্রোফাইল পার্টিতে একসঙ্গে দেখা যেত উর্বশী এবং হার্দিককে। গুঞ্জন উঠেছিল দু’জন নাকি চুপিচুপি প্রেম করছে। তাই হার্দিকের বাগদানের ছবি প্রকাশ্যে আসতেই অনেকে মুখিয়ে ছিলেন যে ‘বান্ধবী’ উর্বশীর প্রতিক্রিয়া কী হয়! অবশেষে উর্বশীও মুখ খুলেছেন ‘বন্ধু’ হার্দিকের বাগদান নিয়ে।

[আরও পড়ুন: পরিবারের অজান্তেই নাতাশার সঙ্গে বাগদান, কী প্রতিক্রিয়া হার্দিকের বাবার?]

হার্দিক পাণ্ডেয়া ও নতাশা স্তানকোভিচের মাখোমাখো রসায়ন এবং ইয়াচ বোটে হাতে ওয়াইনের গ্লাস সহযোগে রোদ পোহানো আদুরে ছবি দেখে উর্বশীর মন্তব্য, “তোমাদের দু’জনকেই সুন্দর জীবন ও অশেষ প্রেমের শুভেচ্ছা রইল। তোমাদের সম্পর্ক আজীবন এরকম আনন্দ ও ভালবাসায় ভরে থাকুক।’’ পাশাপাশি তিনি হার্দিককে মেনশন করে একথাও বলেছেন যে “কখনও যদি তোমার কোনও কিছুর প্রয়োজন হয়, আমি সারাজীবন আছি।”

ঊর্বশীর এমন মন্তব্যে ম্যাচিওরিটির ছাপ দেখছেন নেটিজেনরা। প্রাক্তন প্রেমিকের বাগদানের খবরে কোনও রকম বিরূপ প্রতিক্রিয়া না করে কিংবা খারাপ স্মৃতি না উসকে যেভাবে উর্বশী বিষয়টা সামলেছেন, তাতেই সাধুবাদ করছেন সবাই।

[আরও পড়ুন: প্রেম প্রকাশের ঘণ্টাখানেকের মধ্যেই বাগদান, হার্দিকের প্রেমিকা নাতাশা সম্পর্কে জানেন এই ৫ তথ্য?]

অন্যদিকে, নতুন বছরে ছেলে যে এমন কিছু একটা করতে চলেছেন, সে বিষয়ে কোনও ধারণাই ছিল না ভারতীয় অলরাউন্ডারের পরিবারের। সব হয়ে যাওয়ার পর খবরটা হঠাৎই কানে গিয়ে পৌঁছায় বাবা হিমাংশু পাণ্ডিয়ার। অবাক হয়ে গিয়েছেন তিনিও।  

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement