BREAKING NEWS

১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  শুক্রবার ৪ ডিসেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘হয় খুন করত, নাহলে ধর্ষণ’, বিহারে ভোট প্রচার থেকে ফিরেই বিস্ফোরক আমিশা প্যাটেল

Published by: Suparna Majumder |    Posted: October 28, 2020 7:56 pm|    Updated: October 28, 2020 7:56 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা (CoronaVirus) পরিস্থিতিতেই বিহারের বিধানসভা নির্বাচনের (Bihar Election 2020) প্রথম পর্ব শেষ হল। মাস্ক পরে, লাইনে দাঁড়িয়েই ভোট দিলেন বিহারবাসী। নীতিশ-তেজস্বীর দ্বৈরথে শেষ হাসি কে হাসবেন? এই নিয়ে চর্চা তুঙ্গে। এরই মধ্যে মুম্বইয়ে বসে বিহারের এলজেপি নেতা প্রকাশ চন্দ্রের বিরুদ্ধে মারাত্মক অভিযোগ আনলেন আমিশা প্যাটেল (Ameesha Patel)। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমে বলিউড অভিনেত্রী অভিযোগ করেন, বিহার ভোটে প্রকাশের হয়ে প্রচার করার সময় নাকি তিনি নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছিলেন। এমনকী যেকোনও মুহূর্তে খুন কিংবা ধর্ষণ হয়ে যেতে পারত বলেও অভিযোগ জানান আমিশা।

বেসরকারি ওই সংবাদমাধ্যমের দাবি, তাঁদের কাছে নিজের যাবতীয় অভিযোগ জানিয়েছেন আমিশা। নায়িকার কথায়, নির্বাচনের আগে লোক জনশক্তি দলের (LJP) নেতা প্রকাশ চন্দ্রের (Prakash Chandra) জন্য প্রচার করতে তাঁকে বিহারে ডাকা হয়েছিল। দাউদানগরে প্রচার করার সময় নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছিলেন তিনি। তাঁকে হুমকি দেওয়া হয়েছিল, বাজে ব্যবহার করা হয়েছিল। যেকোনও মুহূর্তে খুন কিংবা ধর্ষণের শিকার হতে পারেন, এই আশঙ্কায় ভুগছিলেন তিনি। চুপচাপ তাঁদের কথা শুনে গিয়েছিলেন শুধুমাত্র নিজেতে বাঁচাতে। মুম্বইয়ে ফিরে আসার পরও নাকি হুমকি দিয়ে প্রকাশের জন্য প্রচার করতে তাঁকে বলা হয়। এরপরই LJP নেতার বিরুদ্ধে সোচ্চার হওয়ার কথা বলেছেন তিনি।

[আরও পড়ুন: করোনা কালে আদৌ কি কলকাতা চলচ্চিত্র উৎসবের আয়োজন সম্ভব? দ্বিধায় নবান্ন!]

নিজের বিরুদ্ধে আনা বলিউড অভিনেত্রীর যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করেছেন LJP নেতা প্রকাশ। তাঁর পালটা দাবি, আমিশার নিরাপত্তার সমস্তরকম ব্যবস্থা করা হয়েছিল। প্রকাশের পালটা অভিযোগ, তাঁর হয়ে আলাদা একটি প্রচার ভিডিওয় থাকার জন্য নাকি ১০ লক্ষ টাকা চেয়েছিলেন নায়িকা। তা না পাওয়াতেই এমন মন্তব্য করছেন। এমনকী, জন অধিকারী পার্টির নেতা পাপ্পু যাদবও (Pappu Yadav) এমন কথা বলার জন্য আমিশাকে টাকা দিয়েছেন বলে অভিযোগ করেন প্রকাশ।   

[আরও পড়ুন: রেনাল ফাংশানের উন্নতি প্রয়োজন, সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়ের ডায়ালিসিসের সিদ্ধান্ত চিকিৎসকদের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement