BREAKING NEWS

০৯  আষাঢ়  ১৪২৯  শনিবার ২৫ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

বাঙালির ফের অস্কার যাত্রা, সেরার দৌড়ে শামিল ‘রক্তকরবী’

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: December 21, 2017 7:13 am|    Updated: September 18, 2019 3:13 pm

Amitava Bhattacharjee’s Roktokorobi in Oscar race

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘নিউটন’-এর মতো সিনেমা অস্কারের দৌড় থেকে ছিটকে গিয়েছে৷ এতে বেশ আশাহতই হয়েছিলেন সিনেপ্রেমীরা৷ তবে এরই মধ্যে বাঙালির জন্য সুখবর, বাংলা সিনেমার জন্য সুখবর শোনা গেল বৃহস্পতিবার৷ ৯০তম অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ডস-এ সেরার দৌড়ে শামিল হল পরিচালক অমিতাভ ভট্টাচার্যের ‘রেড ওলিয়েন্ডা’র্স রক্তকরবী’৷

Untitled-1

[সুপারস্টারের সমালোচনা করায় ধর্ষণের হুমকি এই জনপ্রিয় অভিনেত্রীকে]

কবিগুরুর সাংকেতিক নাটককে বাস্তবের প্রেক্ষাপটে তুলেধরেছিলেন অমিতাভ৷ থ্রি উইশ এন্টারটেনমেন্টের এর নিবেদিত এই ছবিতে মুখ্য ভূমিকায় শান্তিলাল মুখোপাধ্যায়, মুমতাজ সরকার, রাহুল, কৌশিক সেন, দেবদূত ঘোষের মতো অভিনেতারা৷ মোট ৩৪১টি সিনেমা শামিল হয়েছে অস্কারের সেরা ছবির এই দৌড়ে৷ সেই তালিকায় স্থান দখল করেছে ২০১৭-র এই বাংলা ছবি৷

কিছুদিন থেকে ‘নিউটন’-এর অস্কার বিদায়ের খবরে আশাহত হয়েছিলেন সিনেপ্রেমীরা৷ কেন রাজকুমারের ছবিতে আন্তর্জাতিক মঞ্চে ব্যর্থ হতে হয়েছিল, কারণটা জানিয়েছিলেন নাসিরউদ্দিন শাহ৷ একটি ইরানি ছবি থেকে নকল করা হয়েছিল সিনেমাটি৷ আর তাই ছিল তার প্রত্যাখ্যানের কারণ৷ প্রযোজক শেখর কাপুর বলেছিলেন, অস্কারের দৌড়ে ঠাঁই পাওয়া বেশ কষ্টকর হয়৷ বিশেষ করে ভারতীয় সিনেমার ক্ষেত্রে৷ কারণ ভারতীয় সিনেমার ফ্লেভার আলাদা হয়৷ অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ডে ছবির গুণগত মানের উপর ভীষণভাবে গুরুত্ব দেওয়া হয়৷ সমস্ত খুঁটিনাটি বিচার করে তারপর সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়৷  সেই বিচারেই ৯০তম অস্কারের দৌড়ে শামিল হয়ে গেল রক্তকরবী৷

[‘পদ্মাবতী’র পর এবার সলমনের ‘টাইগার জিন্দা হ্যায়’র মুক্তি ঘিরে সংশয়]

এমনিতেই ভারতে অস্কারের ট্র্যাক রেকর্ড খুব একটা ভাল নয়। শেষবার চূড়ান্ত পর্বে গিয়েও ফিরে আসতে হয়েছিল আমিরের ‘লগান’কে। তারপর আর তেমন কোনও সিনেমার ভাগ্যে শিঁকেয় ছেড়েনি। ‘সালাম বম্বে’র মতো সিনেমাও ধোপে টেকেনি। শোনা যায় ‘গাইড’ সিনেমার সময় দেব আনন্দ ও বিজয় আনন্দ বেশ কয়েকদিন আমেরিকায় ছিলেন। ছবির প্রচুর প্রচার করেছিলেন তাঁরা। কিন্তু তাতেও কোনও লাভ হয়নি। ‘মাদার ইন্ডিয়া’-কে ব্যাকআপ দিয়েছিল তৎকালীন সরকারও। কিন্তু সে ছবি অস্কারের বিচারকদের পছন্দ হয়নি। তবে বাঙালির অস্কার নিয়ে আলাদা নস্ট্যালজিয়া রয়েছে। মায়েস্ট্রো সত্যজিৎ রায়ের জীবনকৃতীর নস্টালজিয়া। সেই নস্টালজিয়াকেই ফের উসকে দিল ‘রক্তকরবী’র মনোনয়ন। শেষ যাই হোক, এই বা কম কিসে!

পরিচালক অমিতাভর কাছে এই মুহূর্ত স্বপ্নের কাছাকাছি পৌঁছানোর মতো। sangbadpratidin.in-কে জানালেন, স্ক্রিনিংয়ে ছবির ভূয়সী প্রশংসা করেছেন বিচারকরা। প্রশংসিত হয়েছে শান্তিলাল, মুমতাজদের অভিনয়। এই সাফল্যে গর্বিত মুমতাজও। বিশেষ করে বাঙালি হিসেবে গর্বিত তিনি। কারণ বহুদিন পর অ্যাকাডেমি অ্যাওয়ার্ডস-এর মঞ্চে বাংলা সিনেমার এই সাফল্য। ‘নিউটন’-কে ভারতের তরফ থেকে সেরা বিদেশি ভাষার ছবি হিসেবে পাঠানো হয়েছিল। কিন্তু রক্তকরবী নিজের জোরেই জেনারেল ক্যাটাগরিতে স্থান পেয়েছে। তাই বাঙালির হিসেবে গর্বটা আরও বেশি অভিনেত্রীর কাছে।

[অক্ষয়ের ‘টয়লেট: এক প্রেম কথা’ অনুপ্রাণিত করেছে বিল গেটসকে, জানেন কীভাবে?]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে