৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

এরকম শুটিং কোনও দিন করব ভাবিনি: অরিন্দম শীল

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: April 9, 2020 6:43 pm|    Updated: April 9, 2020 6:43 pm

An Images

নিজের বাড়িতে বর আবিরকে শুট করছে নন্দিনী। রুক্মিনীর টাইট ক্লোজ-আপ নিচ্ছে দেব নিজে। রাজ চক্রবর্তী বাড়ির কাজ ফেলে ক্যামেরা হাতে শুভশ্রীকে বোঝাচ্ছে, আমি কোন অ্যাংগেলে শটটা চাই। আর পরমব্রত খালি বলছে, ‘অরিন্দমদা আমি তো বাড়িতে একা। আমার শট কে নেবে?’… ‘একদিন ঝড় থেমে যাবে’ সোশ্যাল ডিসট্যান্সিং মেনে এই শর্ট ফিল্মের নেপথ্যের কাহিনি ইন্দ্রনীল রায়কে শোনালেন পরিচালক অরিন্দম শীল

সত্যি বলছি, ইন্ডাস্ট্রিতে ৩০ বছরের বেশি সময় কাটিয়েছি, পরিচালক হিসেবেও নয় নয় করে সাত বছর কাটিয়ে ফেললাম, কিন্তু এরকম শুটিং আমি কোনোদিনও করিনি, যা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের থিমের উপর ‘একদিন ঝড় থেমে যাবে’ শর্টফিল্মের জন্য করছি। প্রথম দু’দিন কাটলো আমাদের স্ক্রিপ্টটা ফাইনাল করতে। তারপর সেটা শেষ হওয়ার পর প্রত্যেকজন অভিনেতার কোন ফ্রেম হবে, সে কোন লাইন বলবে, কোন দিকে থাকবে, কোন লাইনটা বলার সময় মাথাটা একটু ডানদিকে থাকবে— এই পুরো শট ডিভিশনটা নিজে হাতে এঁকে সব অভিনেতাদের পাঠালাম।

শুধু তাই নয়, কোনও শটে হয়তো পরম ডানদিকে দেখছে আবিরকে, সেইমতো পরমকে বোঝালাম, কোন অ্যাংগেলে শটটা হবে। সিমিলারলি, আবিরকে বললাম, এই শটে তুই পরমকে দেখছিস তাই সেই মতো এক্সপ্রেশনটা দে। এর মধ্যেই যেহেতু নুসরত আর মিমির সঙ্গে ভিডিও চ্যাটের মাধ্যমেই কনফারেন্সে মিটিং হল। মিমি ভিডিও কলেই আমার সঙ্গে রিহার্সাল করল বেশ কিছুক্ষণ। পুরোটাই সোশ্যাল ডিসটেন্সিং মেনে শুটিং। এই করেই প্রথম শট গতকাল আমাকে কে পাঠালেন জানেন? পাঠালেন পরাণদা। পরাণ বন্দ্যোপাধ্যায়। এরকম একটা টেকনিক্যাল শুটিং, যেখানে পরিচালক হিসেবে আমি ফ্লোরে নেই সেরকম অবস্থায় বাচ্চাদের মতো এক্সাইটমেন্ট দেখিয়ে নিজের পোরশনটা পাঠালেন পরাণদা। ওনার এই শিশুসুলভ এক্সাইটমেন্ট সত্যিই আমাদের গ্রুপে আলাদা একটা তরঙ্গের মতো কাজ করল।

[আরও পড়ুন: ঘরবন্দি থেকেই পরিচালনায় হাতেখড়ি, শর্টফিল্ম বানালেন ‘সন্তু’ আরিয়ান]

আজকে আমি এখন বাড়িতে, আর ঢেউয়ের মতো শুধু ফুটেজ ঢুকছে আমার ফোনে। কখনও রুক্মিণীর, কখনও আবিরের, কখনও মিমির। আমি আবার তার মধ্যেই শট ঠিক পছন্দ না হলে রি-টেক করতে বলছি। আমি কৃতজ্ঞ তাদের কাছে। প্রত্যেকজন অভিনেতা সেটা নিয়ম করে মেনে আবার আমাকে নতুন ভিডিও পাঠাচ্ছে। এর মধ্যেই আবিরের স্ত্রী নন্দিনীকে মজা করে বললাম, “দেখ এটা ন্যাশনালি রিলিজ করবে, তুই ক্যামেরাম্যান, পরিচালকের সম্মানটা নষ্ট করিস না।” বলে, দুজনেই অনেকক্ষণ হাসলাম। জানি এই সময়টা খুবই উদ্বেগজনক। জানি সময়টা বড্ড কঠিন। কিন্তু আমরা তো বিনোদন জগতের মানুষ। আমরা এরমধ্যেই আপনাদের জন্য একটা নতুন কিছু তৈরি করতে চাইছি। আপনারা দর্শক, আপনারা সেটা দেখে ভাল বললেই আমাদের প্রচণ্ড আন্তরিকতার সঙ্গে বানানো এই শর্টফিল্ম পরিপূর্ণতা লাভ করবে। ভরসা থাকুক সবার মনে। হ্যাঁ, ‘একদিন ঝড় থেমে যাবে’… যাবেই।

[আরও পড়ুন: লকডাউনে গর্ভবতী ও সদ্যোজাতদের জন্য বিশেষ অ্যাম্বুল্যান্সের ব্যবস্থা করলেন সাংসদ মিমি]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement