১৪  আশ্বিন  ১৪২৯  রবিবার ২ অক্টোবর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

১৪ দিনে ৪ লক্ষ মানুষ দেখেছেন ‘বেলাশুরু’, দর্শকদের ধন্যবাদ আপ্লুত শিবপ্রসাদের

Published by: Akash Misra |    Posted: June 3, 2022 6:36 pm|    Updated: June 3, 2022 7:00 pm

Bengali movie Belashuru director Shiboprosad Mukherjee overwhelmed by successful venture | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বাংলা সিনেমার পাশে দাঁড়ান! সোশ্যাল মিডিয়ায় ঘুরে বেড়ানো এধরনের মন্তব্যকে খুব একটা গুরুত্ব দেন না পরিচালক শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায় (Shiboprosad Mukherjee)। বরং, তাঁর মতে ভাল ছবি হলে এমনিই দর্শক আসবে তা দেখতে। তবে শুধু মুখে নয়, শিবপ্রসাদ এটা প্রমাণ দিলেন একেবারে হাতেনাতে,  থুড়ি ‘বেলাশুরু’তে। ২০ মে এই ছবি মুক্তির পর থেকে যেভাবে সিনেমাহলে দর্শকদের ভিড়, বক্স অফিসে রেকর্ড ব্যবসা, সবই প্রমাণ করে দিল ভাল ছবি তৈরি হলে, দর্শক হইহই করে ছবি দেখেন। তাই তো ১৪ দিন কাটিয়ে বেলাশুরুর জয়যাত্রা অব্যাহত। অগ্রিম বুকিংয়েও অন্য ছবিকে মাত দিচ্ছে নন্দিতা রায় ও শিবপ্রসাদ জুটির ছবি ‘বেলাশুরু’

 ছবির এমন সাফল্য নিয়ে কী বলছেন শিবপ্রসাদ?

সংবাদ প্রতিদিনের তরফ থেকে পরিচালক শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়কে যোগাযোগ করা হলে তিনি জানান, ‘১৪ দিনে ৪ লক্ষ মানুষ বেলাশুরু দেখেছেন। এটা অফিশিয়াল ফিগার। মাত্র দু’সপ্তাহের মধ্যে ৪ লক্ষ মানুষ দেখেছেন এই সিনেমা, আমাদের কাছে অবিশ্বাস্য। কোভিডের পর সিনেমাহলে দর্শক সংখ্যা যে ডবল ডিজিট হবে, সিনেমাহলে দশজন দর্শক হবে, সেটাই আমাদের কাছে বড় ব্যাপার ছিল। ভাবতাম একশো জন হবে তো! সেখানে ১৪ দিনে ৪ লক্ষ দর্শক এই ছবি দেখেছেন, স্টার থিয়েটার, নন্দনে দু’সপ্তাহ ধরে হাউজফুল যাচ্ছে। এটা খুব বড় প্রাপ্তি। আমরা আপ্লুত।’

[আরও পড়ুন: কেকে’কে কটাক্ষ করে মিও আমোরের বিজ্ঞাপন খোয়াতে পারেন রূপঙ্কর! ]

পরিচালকের কথায়, ‘ছবিটা এতটা সফল হবে ভাবতে পারিনি। আসলে, কোভিডের পর তো ভেবেছিলাম, ছবিটা কেউ দেখবেই না। তার উপর কোভিড পিরিয়ডে আমরা বার বার শুনেছি, দর্শক আর সিনেমাহলে যাবে না, এখন ওটিটিতেই সবাই সিনেমা দেখবে। দর্শকের সিনেমা দেখার অভ্যাস নাকি বদলে গিয়েছে, এগুলো আমাদের বহুবার শুনতে হয়েছে। শুনতে হয়েছিল, যাঁরা ফ্যামিলি মেম্বার তাঁরা আর বাড়ি থেকে বের হন না, বিশেষ করে পরিবারের বয়স্ক লোকেরা বাড়ি থেকে না বেরিয়ে টেলিভিশনই দেখেন। এই যে একটা মিথ তৈরি হয়েছিল, তা ভেঙে চুড়মার করে দিল বেলাশুরু। আট থেকে আশির দর্শকরা, যাঁরা বাংলা সিনেমার আসল দর্শক, তাঁরা ফের সিনেমাহলে ফিরে এল। অবশ্যই এ ব্যাপারে সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় ও স্বাতীলেখা সেনগুপ্ত জুটির ম্যাজিক কাজ করেছে। তবে আমার মনে হয়, আড়াই বছর বাদে নন্দিতা রায় ও শিবপ্রসাদ মুখোপাধ্যায়ের পরিচালিত ছবি সিনেমাহলে মুক্তি পাচ্ছে এই অপেক্ষাটাও কাজ করেছে। আমাদের বেলাশুরুকে এতটা ভালবাসা দেওয়ার জন্য প্রত্যেকটি দর্শককে ধন্যবাদ জানাই।’

‘বেলাশেষে’ এখনও সকলের মন ছুঁয়ে রয়েছে৷ সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায় এবং স্বাতীলেখা সেনগুপ্তের বড়পর্দার সম্পর্ক, সংসার, প্রেম, বন্ধুতা, ভাঙনকে ভালবেসেছিলেন দর্শকরা। সৌমিত্র এবং স্বাতীলেখার দাম্পত্য কাহিনি ও সম্পর্কের টানাপোড়েন নিয়ে তৈরি এই সিনেমা বাণিজ্যিক সাফল্য পেয়েছিল ভালই৷ সেই ধারাকেই বজায় রেখেছে ‘বেলাশুরু’।  এই সিনেমায়  সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়, স্বাতীলেখা সেনগুপ্ত ছাড়াও রয়েছেন ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত, সুজয়প্রসাদ চট্টোপাধ্যায়, খরাজ মুখোপাধ্যায়, ইন্দ্রাণী দত্ত, অপরাজিতা আঢ্য, শংকর চক্রবর্তী, মনামী ঘোষ, অনিন্দ্য চট্টোপাধ্যায়ের মতো অভিনেতারা। 

[আরও পড়ুন: নন্দনে ‘X=প্রেম’ ছবির শো পাওয়া নিয়ে বিতর্ক, রাজের অভিমান ভাঙাতে সাফাই দিলেন সৃজিত]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে