BREAKING NEWS

১৭  আষাঢ়  ১৪২৯  রবিবার ৩ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘দাবাং থ্রি’-র শুটিংয়ে ক্ষতিগ্রস্ত হেরিটেজ স্থাপত্য, বিপাকে সলমন

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: April 11, 2019 2:07 pm|    Updated: April 11, 2019 2:07 pm

Dabangg 3 makers got notice from Archaeological Survey of India

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের বিপাকে পড়লেন ভাইজান। এপ্রিলের প্রথম সপ্তাহেই ‘দাবাং থ্রি’-র শুট শুরু হয়েছে। মধ্যপ্রদেশে চলছে প্রথম শিডিউলের শুটিং। আর সেই শুটিং চলাকালীনই সলমন খানকে আইনি নোটিস পাঠাল আর্কিওলজিক্যাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়া (এএসআই)। মধ্যপ্রদেশের মান্ডু জেলার ঐতিহাসিক জল মহলে (ওয়াটার প্যালেস) ‘দাবাং থ্রি’-র দুটি সেট তৈরি হয়েছিল। সেই সেট নিয়েই বাধে যত বিপত্তি। এএসআই-এর পক্ষ থেকে সলমন ও তাঁর ‘দাবাং থ্রি’ টিমকে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে অবিলম্বে জল মহল থেকে এই দুটি সেট সরিয়ে দেওয়ার।

[আরও পড়ুন :  মোদির বায়োপিকের পর নমো টিভির সম্প্রচারের উপর বিধিনিষেধ আরোপ কমিশনের]

নোটিসে এও উল্লেখ করা হয়েছে যে, কোনও হেরিটেজ বিল্ডিং বা ঐতিহ্যবাহী জায়গায় আপাতভাবে কোনও সেট তৈরি করা এবং তা তৈরি করার সময়ে যদি সেই প্রাচীন স্মৃতিস্তম্ভ ও প্রত্নতাত্ত্বিক জায়গা ক্ষতিগ্রস্ত হয়, তা আইনত অপরাধ। সলমন নির্দেশ পালন না করলে ‘দাবাং থ্রি’-র শুটিং বন্ধ করে দেওয়ার মতো নির্দেশও রয়েছে আর্কিওলজিক্যাল সার্ভে অফ ইন্ডিয়ার পাঠানো নোটিসে। সূত্রের খবর অনুযায়ী, গত শনিবারই নির্মাতাদেরকে এই নোটিস পাঠানো হয়েছিল। কিন্তু, তারপরও তাদের তরফ থেকে কোনওরকম পদক্ষেপ নিতে দেখা যায়নি। নোটিস অনুযায়ী, প্রাচীন স্মৃতিস্তম্ভ ও প্রত্নতাত্ত্বিক অঞ্চলগুলোতে জারি হওয়া নিয়ম মানেননি সলমন এবং তাঁর ‘দাবাং থ্রি’ টিম।

মান্ডুর জল মহল থেকে শুটিং সেট সরানোর নির্দেশ পাঠানোর সঙ্গে ‘দাবাং থ্রি‘ টিমের বিরুদ্ধে উঠেছে আরও এক অভিযোগ। নর্মদা নদীর তীরে একটি দুর্গে শুটিং করার সময়ে প্রাচীন একটি মূর্তি নাকি ব্যাপকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। প্রত্যক্ষদর্শীদের মতে, ওই দুর্গে তৈরি করা সেট খোলার সময়েই ভেঙে যায় মূর্তিটি। এপ্রসঙ্গে মধ্যপ্রদেশের সংস্কৃতি দপ্তরের মন্ত্রী বিজয়লক্ষ্মী সাধো জানিয়েছেন, যা হয়েছে তা মোটেই কাম্য নয়। ভুল হয়েছে। ওই দুর্গে কতটা ক্ষতি হয়েছে, তা খতিয়ে দেখতে তিনি নিজে যেতে চান। শুটিংয়ের সময়ে কোনও ভুল হয়ে থাকলে অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়ার কথাও জানিয়েছেন তিনি।

প্রসঙ্গত, এক সপ্তাহ আগেই একটি শিব লিঙ্গের উপর ‘দাবাং থ্রি’-র শুটিং সেট বানিয়ে কাজ করার জন্য বিতর্কে জড়িয়েছিলেন ভাইজান। সেটের দু’টি পাটাতনের নিচে থাকা শিব লিঙ্গের ওই ভিডিও ভাইরাল হতেই নিন্দার ঝড় ওঠে সলমনের বিরুদ্ধে। জাতপাত প্রসঙ্গ তুলেও ভাইজানের দিকে আঙুল তুলেছিলেন তাঁরা। পরে অবশ্য অভিনেতা ক্ষমা চেয়ে নেন।

[আরও পড়ুন :  ‘ভবিষ্যতের ভূত’ নিয়ে আরও বিপাকে রাজ্য, ২০ লক্ষ টাকা জরিমানা সুপ্রিম কোর্টের]

এপ্রিলের ১ তারিখেই ‘পবিত্র শহর’ মাহেশ্বরে শুরু হয়েছে ভাইজানের এই ছবির শুটিং। নর্মদার ঘাট থেকে অভিনেতা খোদ একটি ছবি শেয়ার করেছিলেন নিজের ইনস্টাগ্রামে। এছাড়াও, ‘দাবাং থ্রি’-র শুটিং সেটের বেশ কিছু ছবি এবং ভিডিও ইতিমধ্যেই ভক্তদের মধ্যে উন্মাদনার সৃষ্টি করেছে। ছবিতে সলমন ছাড়াও, রয়েছেন আরবাজ খান এবং সোনাক্ষী সিনহা। পরিচালকের আসনে প্রভু দেবা। ‘ওয়ান্টেড’ ছবিতে একসঙ্গে কাজ করার পর এই দ্বিতীয়বারের জন্য জুটি বাঁধলেন তাঁরা।

 

 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে