১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

মোদির পর কমিশনের কোপে ‘বাঘিনী’, নিষিদ্ধ ছবির ট্রেলার

Published by: Bishakha Pal |    Posted: April 24, 2019 11:22 am|    Updated: April 24, 2019 11:22 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মোদির বায়োপিকের পর এবার নির্বাচন কমিশনের কোপে ‘বাঘিনী’। আপত্তি উঠেছে ছবির ট্রেলার নিয়ে। ৩ মে ছবিটি মুক্তি পাওয়ার কথা ছিল। আপাতত সেই বিষয়টিও এখন বিশ বাঁও জলে। মঙ্গলবার কমিশনের তরফে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে, ইউটিউব-সহ যে সব জায়গায় রয়েছে ছবির ট্রেলার, অবিলম্বে সে সব তুলে নিতে হবে।

কিছুদিন আগেই ‘বাঘিনী’ ছবির ট্রেলার মুক্তি পেয়েছে। ট্রেলার দেখেই আঁচ পাওয়া গিয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছোটবেলা থেকে মুখ্যমন্ত্রী হওয়া পর্যন্ত গোটা জার্নিটা তুলে ধরা হয়েছে ছবিতে। এমনকী সিঙ্গুর-নন্দীগ্রামের মতো সাড়া জাগানো ঘটনাও তুলে ধরা হয়েছে। মমতার রাইটার্স বিল্ডিংয়ের সেই বিখ্যাত ঘটনাও রয়েছে ছবিতে। কিন্তু নির্মাতাদের তরফে দাবি করা হয় ছবিটি একেবারেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের বায়োপিক নয়। বরং তাঁর জীবন থেকে অনুপ্রাণিত। কিন্তু একথা মানতে রাজি নয় বিরোধীরা। সিপিএম ও বিজেপির পক্ষ থেকে জানানো হয় ‘বাঘিনী’ ছবিটি মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের জীবন অবলম্বনে তৈরি করা হয়েছে। ফলে ভোটের মরশুমে এই ছবি বা ট্রেলার ভোটারদের প্রভাবিত করতে পারে। ছবি যদিও এখনও মুক্তি পায়নি, কিন্তু ট্রেলার মুক্তি নির্বাচনী আচরণবিধি লঙ্ঘন করেছে বলেই অভিযোগ ওঠে। 

[ আরও পড়ুন: বিমানের ইকোনমি ক্লাসে আমির, নেটদুনিয়ায় প্রশংসা কুড়োলেন অভিনেতা ]

বিরোধী দলগুলির তরফে নির্বাচন কমিশনের কাছে চিঠি পাঠিয়ে ‘বাঘিনী’ ছবিটি দেখার আবেদন জানানো হয়। তাঁদের দাবি ছিল, মুক্তির আগে মমতার বায়োপিক দেখুন নির্বাচন কমিশনের সদস্যরা। উল্লেখ্য, প্রধানমন্ত্রীর বায়োপিকের ক্ষেত্রেও এই একই নির্দেশ দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট। এরপরই ‘বাঘিনী’ নিয়ে রিপোর্ট চেয়ে পাঠায় কমিশন। ছবির বিষয়বস্তু খতিয়ে দেখা হবে বলেও জানানো হয়। জানা গিয়েছে, সমস্ত দিক খতিয়ে দেখার পর কমিশন নির্দেশ দিয়েছে ইন্টারনেট থেকে তুলে নিতে হবে ‘বাঘিনী’ ছবির ট্রেলার। মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সেই ‘বায়োপিক’-এর উপর জারি হয় নিষেধাজ্ঞা। জানানো হয়েছে, ছবিটি ছাড়পত্র পেলে তবেই তা দেখানো হবে। তাই ৩ মে ছবি মুক্তি নিয়েও এখন দেখা দিয়েছে বিরাট প্রশ্নচিহ্ন। যদিও এনিয়ে এখনও কমিশনের তরফে সরাসরি কোনও নির্দেশ দেওয়া হয়নি।

[ আরও পড়ুন: এই তারকাপত্নীদের জীবন এবার রূপোলি পর্দায়, নেপথ্যে মধুর ভান্ডারকর ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement