২ কার্তিক  ১৪২৬  রবিবার ২০ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:  জম্মু ও কাশ্মীরের ৩৭০ ধারা অবলুপ্তির পর ভারত এবং পাকিস্তানের মধ্যে চাপা উত্তেজনার রেশ এখনও চলছে। থমকে গিয়েছে দু’দেশের বাণিজ্য তথা যোগাযোগ ব্যবস্থা। যেই জল গড়িয়েছে দুই দেশের বিনোদন ইন্ডাস্ট্রিতেও। এমনকী ভারতীয় সিনেমা নিষিদ্ধ করে দেওয়া হয়েছে পাকিস্তানের প্রেক্ষাগৃহগুলিতে। তবে এতকিছুর মাঝেও পাকিস্তানের এক ধনকুবেরের মেয়ের বিয়ের আসরে গান গাইলেন মিকা সিং। সূত্রের খবর অনুযায়ী,  সেখানে উপস্থিত ছিলেন প্রাক্তন পাক রাষ্ট্রপতি পারভেজ মুশারফ। এ খবর প্রকাশ্যে আসতেই বিপাকে পড়েছেন মিকা সিং।

[আরও পড়ুন:  দিল্লিগামী বিমানে প্রসেনজিৎ-মুকুল সাক্ষাৎ, মুখ খুললেন ‘সাক্ষী’ মিমি চক্রবর্তী]

দেশের অন্দরে যেখানে প্রতিবেশী দেশের আচরণে একাধিক সমস্যা তৈরি হয়েছে, অশান্তির আগুনের আঁচে জেরবার সীমান্ত প্রান্তের মানুষ, সেখানে একজন সভ্য ভারতীয় নাগরিক হিসেবে কীভাবে মিকা সিং করাচিতে গিয়ে অনুষ্ঠান করে এলেন? এই প্রশ্ন তুলেই ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন মিকার অনুরাগী মহল তথা দেশবাসী।

সূত্রের খবর, পাকিস্তানে যে কোটিপতির মেয়ের বিয়েতে গান গেয়ে আসর মাত করেছেন মিকা, সেই ব্যক্তির সঙ্গে দাউদ ইব্রাহিম এবং আহমেদ সুজা পাশা নামে এক আইএসআই আধিকারিকের ঘনিষ্ঠ সম্পর্ক রয়েছে। এমনকী, দু’জনে ফেসবুক বন্ধুও। সেই খবরেই জল্পনা আরও বেড়েছে। গত ৮ আগস্ট করাচিতে পাক অনুরাগীর বিয়ের অনুষ্ঠানে গান গাইতে যান মিকা। সেখানেই উপস্থিত কিছু ব্যক্তির সোশ্যাল মিডিয়ায় মিকার পারফরম্যান্সের ভিডিও আপলোড করেন। দু’দেশের সম্পর্কে এই অস্থির পরিস্থিতিতে মিকার সেই ভিডিও ছড়িয়ে পড়তে আর বেশি সময় লাগেনি।

[আরও পড়ুন: টলি থেকে বলিউড যাত্রা, কিংবদন্তী রহিম সাহেবের বায়োপিকে রুদ্রনীল ঘোষ]

করাচিতে মিকার অনুষ্ঠান নিয়ে যে শুধু এদেশের মানুষেরাই ক্ষুব্ধ, এমন নয়। ওদেশের পাকিস্তান পিপলস পার্টির বিরোধী নেতা সইদ খুরশিদ শাহ পাক সরকারকে ভর্ৎসনা করে প্রশ্ন তুলেছেন, কীভাবে পাকিস্তানে এসে অনুষ্ঠান করার ছাড়পত্র পেলেন ভারতীয় শিল্পী এবং তাঁর টিম? ভারতের সঙ্গে সমস্ত রকম কূটনৈতিক এবং বাণিজ্যিক সম্পর্ক মুলতুবি ঘোষণার পরও পাকিস্তানে এসে ভারতীয় শিল্পীর অনুষ্ঠান করাকে মোটেই ভাল চোখে দেখছেন না তিনি। এই ঘটনার জেরে দেশবাসীর রোষানলে পড়ে যে মিকার বিপত্তি আরও বাড়ল, তা হলফ করে বলাই যায়।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং