৪ শ্রাবণ  ১৪২৬  শনিবার ২০ জুলাই ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ

৪ শ্রাবণ  ১৪২৬  শনিবার ২০ জুলাই ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফ্রান্সে শুরু হল কান চলচ্চিত্র উৎসব। বিশ্বের চলচ্চিত্র জগতের অন্যতম বড় মঞ্চ কান চলচ্চিত্র উৎসবে উপস্থিত থাকার জন্য ইতিমধ্যেই ফ্রান্স উড়ে গিয়েছেন এ আর রহমান। কারণ, তাঁর ছবি প্রদর্শিত হচ্ছে এই আন্তর্জাতিক উৎসবে। ছবির নাম ‘লে মাস্ক’। পরিচালক হিসেবে এই ছবি দিয়েই অভিষেক হল এই সংগীত মহারথীর। মঙ্গলবার কানের মঞ্চ থেকে তাঁর প্রথম ছবি তৈরির অভিজ্ঞতা শেয়ার করলেন তিনি। তবে, দুর্ভাগ্যবশত এ আর রহমানের প্রথম ছবি ‘লে মাস্ক’ দেখা থেকে বঞ্চিত হবেন ভারতীয় সিনেপ্রেমীরা।

 [আরও পড়ুন:  মধুচন্দ্রিমায় মধুর দাম্পত্য যাপন শ্রাবন্তী-রোশনের, ভাইরাল ছবি]

‘লে মাস্ক’ ছবিটিকে ‘সেন্ট অফ আ সং’ নামে আখ্যা দিয়েছেন এ আর রহমান। সুরকার এই প্রসঙ্গে তিনি জানান, সংগীতের অভিজ্ঞতা নিয়েই তৈরি হয়েছে এই ছবি। ‘লে মাস্ক’ আসলে একটি ভার্চুয়াল রিয়ালিটির ছবি। ছবিতে গুরুত্বপূর্ণ চরিত্রে অভিনয় করেছেন নোরা আরনেজেডার, গাই বারনেট, মুনিরি গ্রেস এবং মারিয়াম জোহরাবিয়া। পুরো ছবিটা শুট করা হয়েছে রোমে। তবে, ভারতে মুক্তি পাচ্ছে না এই ছবি।

এখন প্রশ্ন, এরকম একটা ছবি যা ভারতীয় দর্শকদের পুরোপুরি নতুন। তা কেন দেখতে পাবেন না এ দেশের দর্শকরা? এপ্রসঙ্গে এ আর রহমান বলেন, “‘লে মাস্ক’ যে ধরনের ছবি, তার জন্য ভার্চুয়াল রিয়ালিটি মাধ্যমকেই বেছে নেওয়া সমীচীন বলে মনে হয়েছে আমার। তবে, দুর্ভাগ্যবশত এদেশে প্রেক্ষাগৃহগুলো এখনও সেভাবে প্রস্তুত নয়। আর এখানে ভার্চুয়াল রিয়ালিটি দেখানোর জন্য যে ধরনের অত্যাধুনিক প্রযুক্তির প্রয়োজন, তা নেই। আর পরিচালক হিসেবে প্রথম সিনেমাতেই এরকম ধরনের ছবি বানানো বেশ চ্যালেঞ্জিং। তবে, ভবিষ্যতে কী হবে তা এখনই বলা যাচ্ছে না।”

 [আরও পড়ুন:  নিউইয়র্কের সেই সন্ধ্যায় দীপিকাকে কী উপহার দিয়েছেন নীতু কাপুর?]

‘লে মাস্ক’ প্রসঙ্গে এ আর রহমান বলেন, “এই ছবির বিষয়বস্তু এমনই যে চিরাচরিত ফরম্যাটে ছবিটা ঠিক বানাতে চাইনি আমি। ছবির ভাবনাটা আমার মাথায় হঠাৎ-ই আসে। একদিন আমার স্ত্রীর সঙ্গে এমনিই কথা বলছিলাম। ও খুব সুগন্ধি ভালবাসে। ও-ই আমাকে বলে ‘গন্ধ’ বিষয়টি নিয়ে কোনও ছবি করতে। সেখান থেকেই এই ছবির ভাবনা তৈরি হয়।” রহমান আপাতত ব্যস্ত তাঁর পরের ছবি ‘নাইন্টি নাইন সংস’ নিয়ে। ছবিটি রোম্যান্টিক মিউজিক্যাল ঘরানার ছবি। তাঁর এই দ্বিতীয় ছবি দিয়েই তিনি প্রযোজক এবং লেখক হিসেবে ডেবিউ করলেন।

 
 
 
 
 
View this post on Instagram
 
 
 
 
 
 
 
 
 

Experience “Scent of a song“ from @LeMuskFilm – A musical sensory experience presented by @intel at @CannesXr from tomorrow @Festival_Cannes

A post shared by @ arrahman on

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং