৫ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৬  রবিবার ১৯ মে ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo নির্বাচন ‘১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও #IPL12 ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
নির্বাচন ‘১৯

৫ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৬  রবিবার ১৯ মে ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ছবির শুটিংয়ে কলকাতায় এলেন নাসিরুদ্দিন শাহ। ছবির নাম ‘দেবতার গ্রাস’। তবে, চমকটা অন্যত্র। প্রথমত, বাংলা ছবিতে নাসিরুদ্দিন শাহ। আর দ্বিতীয়ত, এই ছবিতে ভারতীয় চলচ্চিত্র জগতের দুই কিংবদন্তি অভিনেতাকে দেখা যাবে স্ক্রিন শেয়ার করতে। নাসিরুদ্দিন শাহ এবং সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। এই প্রথম সৌমিত্রর চট্টোপাধ্যায়ের সঙ্গে কোনও ছবিতে দেখা যাবে তাঁকে। শৈবাল মিত্রর পরিচালনায় ছবির কাজ শুরু হয়েছে কলকাতায়।

[আরও পড়ুন:  সোহিনীর ‘মানভঞ্জন’ করছেন অনির্বাণ! ব্যাপারটা কী? ]

চিত্রনাট্য লিখেছেন পরিচালক নিজেই। জেরোম লরেন্স ও রবার্ট ই লিয়ের লেখা নাটক ‘ইনহেরিট দ্য উইন্ড’ অবলম্বনে তৈরি হয়েছে ছবির চিত্রনাট্য। প্রায় দেড় বছর ধরে চলেছে ছবির চিত্রনাট্য লেখার কাজ। ১৯৬০-এর নাটককে সমসময়ের প্রেক্ষাপটে তুলে ধরছেন পরিচালক। গল্পে সাম্প্রদায়িকতার ছোঁয়া রয়েছে। এপ্রসঙ্গে ছবির পরিচালক শৈবাল মিত্র বলেন, “এখনকার ভারতবর্ষের প্রেক্ষাপটে চিত্রনাট্য তৈরি করেছি। সামাজিক-রাজনৈতিক পরিবেশগত দিক দিয়ে দেখলে সবটাই ভীষণ বিবর্ণ এখন। হিঙ্গলগঞ্জ নামে এক ছোট্ট শহরের প্রেক্ষাপটে লেখা এই ছবির গল্প। সেখানের খ্রিস্টান ধর্মাবলম্বী আদিবাসী সম্প্রদায়কে নিয়ে মূল কাহিনি। সেই এলাকায় কুণাল জোসেফ নামে বিজ্ঞানের এক অধ্যাপকের চরিত্র ঘিরে আবর্তিত হয়েছে পুরো কাহিনি। বিজ্ঞানমনস্ক কুণাল জোসেফ বাইবেল পড়াতে কুন্ঠা বোধ করেন। তবে কলেজের নিয়মানুযায়ী, বাইবেল পড়ানোটা বাধ্যতামূলক। এই টানাপোড়েনের উপর ভিত্তি করে এগিয়েছে ‘দেবতার গ্রাস’ ছবির চলন৷

ছবিতে নাসিরুদ্দিন শাহ এবং সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়কে দেখা যাবে দুই ডাকসাইটে উকিলের ভূমিকায়। একে অপরের ভাল বন্ধু। তবে, বসন্ত কুমার (সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়) এবং অ্যান্থোনকে (নাসিরুদ্দিন শাহ) সম্মুখ সমর পরিস্থিতিতে পড়তে হয় কুণাল জোসেফের মামলা নিয়ে।

[আরও পড়ুনমাতৃদিবসে ‘মা’কে উৎসর্গ করে অমিতাভের নতুন গান]

তবে এই দুই কিংবদন্তী অভিনেতা ছাড়াও ‘দেবতার গ্রাস’-এ অভিনয় করছেন শ্রমন চট্টোপাধ্যায়, অনসূয়া মজুমদার, পার্থপ্রতিম মজুমদার, শুভ্রজিৎ দত্ত, অমৃতা চট্টোপাধ্যায়দের। কৌশিক সেনকে দেখা যাবে দিল্লির এক সাংবাদিকের ভূমিকায়। সঙ্গীত পরিচালনার দায়িত্বে রয়েছেন তেজেন্দ্র নারায়ণ মজুমদার। কোর্টরুম ড্রামার ক্ষেত্রে ইনডোর শুট হলেও, বাঁকুড়া, পুরুলিয়া এবং বীরভূমে রয়েছে আউটডোর শিডিউল। তবে, সৌমিত্রর শারীরিক অবস্থার কথা ভেবে বেশি আউটডোর রাখা হয়নি। 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং