১২ মাঘ  ১৪২৮  বুধবার ২৬ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

‘প্রেমিকাকে চড় মারার অধিকার না থাকলে, তা প্রেম নয়’, বিতর্কিত মন্তব্য পরিচালকের

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: July 7, 2019 5:42 pm|    Updated: July 8, 2019 2:47 pm

Netizens slams Kabir Singh director Sandeep for controversial statement

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মুক্তির দুই সপ্তাহের মধ্যেই ২০০ কোটির গণ্ডি পার করেছে ‘কবীর সিং’। দক্ষিণী রিমেক হলেও শাহিদ কাপুর অভিনীত এই ছবি আপাতত বলিপাড়ায় আলোচনার শীর্ষে। শাহিদের অভিনয়, পর্দার রোমান্স থেকে সংলাপে মজেছেন সিনেদর্শকরা। প্রেমে ব্যর্থ এক নেশাতুর চিকিৎসকের কাহিনি নিয়ে এগোনো এই ছবি মুক্তির পরই মুম্বইয়ের চিকিৎকদের রোষানলে পড়েছে। প্রীতির প্রেমে বিমর্ষ কবীর সিং-ও বিতর্কে জড়িয়েছেন একাধিকবার। তবে, এবার ইস্যুটা একটু আলাদা। খবরের শিরোনামে আসার কারণ ছবির একটি দৃশ্য এবং তাঁকে ঘিরে পরিচালক সন্দীপ ভাঙ্গা রেড্ডি মন্তব্য। যা নিয়ে বেজায় চটেছেন সিনেদর্শকদের একাংশ তথা নারীবাদীরা। 

[আরও পড়ুন: কপিল দেব রূপে রণবীর সিং, জন্মদিনেই প্রকাশ করলেন ‘৮৩’র ফার্স্ট লুক]

প্রেমিকা প্রীতিকে পেতে মরিয়া কবীর সিং। আর তাঁকে পাওয়ার জন্য সেই ‘পাগল প্রেমিক’ চিকিৎসক, দিনের পর দিন যা নয় তাই করছেন। কখনও নেশাতুর হয়ে অপারেশন থিয়েটারে ঢুকছেন তো কখনও মারদাঙ্গা-সহ এমন কিছু করছেন, যা তাঁকে অনায়াসেই ‘অ্যান্টি হিরো’ তকমা দিতে পারে। সিনেদর্শকদের একাংশ আবার এমনটাও দাবি করেছেন যে এই ছবির ছত্রে ছত্রে বা দৃশ্যে দৃশ্যে নাকি নারীবিদ্বেষী চিন্তাধারার প্রতিফলন ঘটেছে। তবে গল্পের নায়কের কী আদৌ এসব করা উচিত? যা নিয়ে একাধিকবার প্রশ্নের মুখে পড়েছে সন্দীপ ভাঙ্গার ‘কবীর সিং’। জোর করে, টেনে হিঁচড়ে কি ভালবাসা পাওয়া যায়? আর ভালবাসার সেই মানুষটিকে না পেলে অনায়াসেই কি তাঁকে চড় মারা যায়? এহেন নানা প্রশ্ন চাগাড় দিয়েছিল দর্শকমনে। এহেন অবস্থায় ‘কী করা উচিত’ আর ‘কী করা উচিত নয়?’-এর মিশেলে তৈরি ‘কবীর সিং’ পরিচালক সন্দীপের এক বক্তব্য যেন আরও উসকে দিল সেই বিতর্ককে। সম্প্রতি এক টেলিভিশন সাক্ষাৎকারে ছবি নিয়ে ওঠা নানা প্রশ্নের উত্তর দিতে গিয়ে বেফাঁস এক মন্তব্য করে বসেন সন্দীপ ভাঙ্গা। আর পরিচালকের সেই মন্তব্যকে ঘিরেই উঠেছে বিতর্কের ঝড়। সন্দীপ বলেন, “যখন আপনি গভীরভাবে কাউকে ভালবাসেন, সেক্ষেত্রে আপনার এবং আপনার ভালবাসার মানুষটির একে অপরকে চড় মারার অধিকার রয়েছে। এটা এমন কোনও বড় ব্যাপার নয়! আপনি পুরুষ হলেও আপনার সেই অধিকার রয়েছে। আবেগ থাকলে এসব হবেই।”

[আরও পড়ুন: সোশ্যাল মিডিয়ায় ফের ট্রোলড ডিজাইনার সব্যসাচী, কেন জানেন?]

‘কবীর সিং’-এর একটি দৃশ্য উল্লেখ করে তিনি বলেন, “প্রীতি কবীরকে চড় মারতে পারলে কবীরেরও অধিকার রয়েছে তাঁকে পালটা চড় মারার। যে সম্পর্কে প্রেমিকাকে চড় মারা অধিকার নেই, চুমু খাওয়ার অধিকার নেই, মানুষটিকে ছোঁয়ার অধিকার নেই, আমি মনে করি সেই সম্পর্ক আবেগহীন। তাতে কোনও প্রাণ নেই।” সেই সঙ্গেই সমালোচকদের একহাত নিয়ে তিনি ‘পরগাছা’র সঙ্গে তুলনা টেনে মন্তব্য করেন, “যারা সমালোচনা করছেন বা নিন্দার ঝড় তুলেছেন, তাঁরা বোধহয় জীবনে কোনও দিন কাউকে ভালবাসেননি। কিংবা আমাকে তাঁরা ঘৃণা করেন।” প্রবল আত্মবিশ্বাসের সঙ্গে এও দাবি করেন যে, এই ছবি ইতিমধ্যেই ২১৮ কোটি ছাড়িয়েছে এবং খুব শিগগিরই ৩০০ কোটির গণ্ডি পেরোবে। উল্লেখ্য, এর আগে গায়িকা সোনা মহাপাত্র এরকম একটি ‘ডার্ক শেড’-এর চরিত্র নির্বাচনের জন্য শাহিদ কাপুরকে ঠুকেছিলেন সোশ্যাল মিডিয়ার ময়দানে। অনেকে আবার এও দাবি করেছেন, একাধিকবার বিতর্কে জড়ানোয় ‘কবীর সিং’ এতটাই প্রচারের আলো এসেছে যে যার ফলস্বরূপ বক্স অফিসে উপচে পড়েছে সাফল্য।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে