১৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  সোমবার ৫ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘দোজখের জন্য তৈরি থাকো’, মহালয়ার ভিডিওয় দুর্গা সাজায় হুঁশিয়ারি নুসরতকে

Published by: Suparna Majumder |    Posted: September 25, 2022 9:28 pm|    Updated: September 25, 2022 9:31 pm

Nusrat Jahan trolled for her Mahalaya post | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের বিতর্কে নুসরত জাহান (Nusrat Jahan)। মহালয়ার (Mahalaya) দিন দেবী দুর্গার সাজে ভিডিও পোস্ট করেন অভিনেত্রী-সাংসদ। তাতেই চটেছেন নেটদুনিয়ার একাংশ। “দোজখের জন্য তৈরি থাকো”, এমন হুঁশিয়ারিও দেওয়া হয়েছে তারকার সোশ্যাল মিডিয়া পোস্টের কমেন্টবক্সে। 

Nusrat-1

বিতর্ক যেন নুসরতের নিত্যসঙ্গী। কখনও ব্যক্তিগত জীবনের টানাপোড়েন নিয়ে, তো কখনও পোশাকের জন্য কটাক্ষ, বিদ্রূপের শিকার হতে হয় টলিপাড়ার নায়িকাকে। দুর্গাপুজোর প্যান্ডেলে গিয়েও সমালোচিত হয়েছেন তিনি। রবিবার সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি ভিডিও পোস্ট করেন নুসরত। যাতে লালপেড়ে সাদা শাড়ি পরে দেবী দুর্গার সাজে দেখা গিয়েছে তাঁকে। ভিডিওর নেপথ্যে “বাজল তোমার আলোর বেনু…” গানটিও শোনা যাচ্ছে। 

 
 
 
 
 
View this post on Instagram
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 

A post shared by Nusrat J Ruhii (@nusratchirps)

[আরও পড়ুন: ‘পাঠান’-এর নতুন লুকে ফের শার্টলেস শাহরুখ, নেটদুনিয়ায় আগুন ঝরালেন বলিউড বাদশা]

নুসরতের এই সাজ অনেকেরই পছন্দ হয়েছে। অভিনেত্রী-সাংসদকে প্রশংসায় ভরিয়ে দিয়েছেন তাঁরা। তবে কটাক্ষ এবং বিদ্রূপও করা হয়েছে। এর মধ্যেই একজন অভিনেত্রীকে ‘দোজখ’-এর জন্য তৈরি থাকার হুঁশিয়ারি দিয়েছেন। কেউ অভিনেত্রীকে ধিক্কার জানিয়েছেন, কেউ আবার লিখেছেন, “মহা ঠগবাজ নেয়ে নাকি মা দুর্গা!” নুসরত হিন্দু না মুসলমান, সেই প্রশ্নও করা হয়েছে। 

Nusrat-2

‘শুভ মহালয়া’ লিখে ভিডিওটি পোস্ট করেন নুসরত। তাতে আবার একজন লেখেন, “শুভ মহালয়া বোলো না। ওটা ভুল। আমি গত বছর জেনেছিলাম মহালয়াতে পিতৃপুরুষের তর্পণ করা হয়। তাই মহালয়া শব্দটার আগে শুভ বলতে নেই। শ্রাদ্ধে যেমন বলে না কেউ।”

Nusrat post reaction

উল্লেখ্য, এর আগেও দুর্গাপুজোর মণ্ডপে গিয়ে কটাক্ষের শিকার হন নুসরত। তবে অভিনেত্রী-সাংসদ সর্বধর্ম সমন্বয়ে বিশ্বাসী। এর আগে এই প্রসঙ্গে কথা বলতে গিয়ে তিনি বলেন, “ঈশ্বর এক ও অদ্বিতীয়। আমি নুসরত জাহান। মুসলিম পরিবারের মেয়ে। আমি ধর্মের ভেদাভেদ মানি না। আমি যেমন কোরান পড়েছি। তেমন গীতা ও বাইবেলও পড়েছি। সেখানে কোথাও ধর্মের ভেদাভেদ ও হানাহানির কথা বলা হয়নি।” 

[আরও পড়ুন: মীরের কণ্ঠে চণ্ডীপাঠ শোনার আবদার অনুরাগীর, কী বললেন তারকা?]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে