৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

আত্মহত্যাই করেছেন সুশান্ত, ময়নাতদন্তের পর প্রাথমিক ধারণা পুলিশের, চলছে ফুসফুসের পরীক্ষা

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: June 15, 2020 10:30 am|    Updated: June 15, 2020 11:03 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: শেষ হল সুশান্ত সিং রাজপুতের ময়নাতদন্ত। আত্মহত্যা নাকি খুন? রবিবার বেলা গড়াতেই এই প্রশ্ন তুলেছেন অনেকে। সুশান্তের পরিবারের তরফেও জানানো হয়েছিল যে, তাঁদের ছেলে একাজ করতেই পারেন না! এমনকী, অভিনেতার কাকা ‘আত্মহত্যা’র খবর উড়িয়ে দিয়ে দাবি করেছিলেন, “খুন হয়েছেন সুশান্ত! সিবিআই তদন্ত করুক।” একের পর এক রহস্য। সত্যিটা কী? জানতে ময়নাতদন্তের রিপোর্টই ভরসা। অবশেষে, সোমবার সকালে এল সেই রিপোর্ট।

রবিবার গভীর রাতেই ড. আরএন কুপার মিউনিসিপ্যাল হাসপাতালে সুশান্তের ময়নাতদন্ত করেন তিন চিকিৎসকের এক টিম। এবং হাসপাতাল সূত্রে খবর, অভিনেতার ময়নাতদন্তের রিপোর্টে আত্মহত্যার উল্লেখ রয়েছে। ফুসফুসে কোনওরকম বিষ পাওয়া গিয়েছে কিনা, তা জানতে মুম্বইয়ের জেজে হাসপাতালে পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে। কোভিড টেস্টও করানো হয়েছে সুশান্ত সিং রাজপুতের (Sushant Singh Rajput) । রিপোর্ট নেগেটিভ।

শেষকৃত্য আজই মুম্বইতে সম্পন্ন করা হবে বলে খবর। পবনহংস এরোড্রামের কাছে শ্মশানে হবে শেষকৃত্য। ইতিমধ্যেই পাটনা থেকে মুম্বইয়ের উদ্দেশে রওনা দিয়েছেন সুশান্তের বাবা কৃষ্ণ কুমার সিং এবং তাঁর আত্মীয়স্বজনেরা। গতকালই মুম্বই প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছিল যে, পরিবার চাইলে অভিনেতার মরদেহ পাটনার বাড়িতে নিয়ে যেতে পারবেন, সবরকম ব্যবস্থা করা হবে প্রশাসনের পক্ষ থেকে। গতকালই গুরগাঁও থেকে সুশান্তের বোন এবং দুই তুতো ভাই পৌঁছেছেন মুম্বইতে। অভিনেতার আমেরিকা প্রবাসী দিদি শ্বেতা সিং ইতিমধ্যেই জানিয়েছেন যে তিনি দেশে ফিরছেন। তবে শেষকৃত্য মুম্বইতেই সম্পন্ন হবে কিনা, সেই সিদ্ধান্ত নেবেন অভিনেতার বাবা কৃষ্ণ কুমার সিং। আপাত সূত্রে খবর, মুম্বইতেই শেষকৃত্য হওয়ার সম্ভাবনা প্রবল। 

[আরও পড়ুন: ‘আত্মহত্যা সমাধানের পথ নয়!’ ‘ছিঁছোড়ে’তে অবসাদ কাটানোর মন্ত্র দিয়ে সুশান্ত নিজেই হার মানলেন?]

প্রসঙ্গত, জন অধিকারী পার্টির নেতা পাপ্পু যাদব গতকালই তদন্তের দাবি করে বলেছেন যে, “সুশান্ত আত্মহত্যআ করতেই পারেন না। খুন হয়েছেন।”

[আরও পড়ুন: ‘নভেম্বরেই বিয়ের কথা ছিল সুশান্তের!’, বিস্ফোরক মন্তব্য অভিনেতার তুতো ভাইয়ের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement