২৬ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  শুক্রবার ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:  জ্বলছে ‘পৃথিবীর ফুসফুস’। ফুসফুসই বটে! কারণ, পৃথিবীর অক্সিজেনের প্রায় ২০ শতাংশই তৈরি হয় এই অঞ্চল থেকে। আগুনের হলকা যদিও এখন থিতুপ্রায়। তবুও ধোঁয়ায় কালো হয়ে যাওয়া আকাশ-বাতাসে বিপন্ন বাকি জীবজন্তুদের অস্তিত্ব। প্রায় তিন সপ্তাহ ধরে দাবানলে পুড়ছে আমাজন। তাকে বাঁচাতে গর্জে উঠেছে গোটা বিশ্ব। সোশ্যাল মিডিয়ায় সরব হলিউড ও বলিউড বিনোদুনিয়ায় তারকারা। অক্ষয় কুমার, অনুষ্কা শর্মা, অর্জুন কাপুর, আলিয়া ভাট থেকে হংসিকা মোতওয়ানে, একাধিক বলিউড তারকারা জলন্ত আমাজনের ছবি শেয়ার করে দুঃখপ্রকাশ করেছেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। পিছিয়ে থাকেননি বাংলা বিনোদন ইন্ডাস্ট্রির তারকারাও। প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়, স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়, দেব, জিৎ থেকে অঙ্কুশ হাজরা-সহ আরও অনেক তারকারাই সোশ্যাল মিডিয়ায় পরিবেশ নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন।  

[আরও পড়ুন: জ্বলছে পৃথিবীর ফুসফুস, আমাজনের জঙ্গল বাঁচানোর অনুরোধ ‘শংকর’ দেবের ]

“দগ্ধ আমাজন গোটা পৃথিবীর সমস্যা। আমাদের সকলের দায়িত্ব সুস্বাস্থ্যকর একটা বিশ্ব গড়ে তোলা। প্রকৃতি মা’য়ের ক্ষত সারানোর দায়িত্ব আমাদের সকলেরই”, আমাজন ইস্যু নিয়ে এমন উদ্বেগ মাখা মন্তব্যই প্রকাশ করলেন প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়। 

উষ্মাপ্রকাশ করেছেন অভিনেতা স্বস্তিকা মুখোপাধ্যায়,  জিৎ এবং অঙ্কুশ হাজরাও।

দেব নিজে ‘আমাজন অভিযান’-এর শুটিং করে এসেছিলেন সেখানে। দাবানলে ছারখার হয়ে যাওয়া আফ্রিকার সেই বৃষ্টি-অরণ্যকে দেখে সোশ্যাল মিডিয়ায় দুঃখপ্রকাশ করেছেন অভিনেতা। দিঘা আর দার্জিলিঙের বাইরে বেরোতে না পারা যে বাংলা ছবি এককালে ভৌগোলিক প্রতিবন্ধী হয়েই থেকে গিয়েছিল, সেই টলিউডই পরিচালক কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায়ের হাত ধরে ব্যাংকক, ইউরোপ, আমেরিকা হয়ে আমাজনের বৃষ্টি-অরণ্যে ঢুকে পড়েছিল। মাথায় কাউবয় হ্যাট আর হাতে বন্দুক নিয়ে অ্যাডভেঞ্চারে মত্ত বাঙালির প্রতিনিধি তখন পর্দার শংকর ওরফে দেব। সেই স্মৃতির অ্যালবাম থেকেই সযত্নে ক্যামেরার নেপথ্যের কিছু দৃশ্য সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট আমাজনকে বাঁচানোর অনুরোধ জানিয়েছিলেন দেব।  

চিন্তার ভাঁজ পড়েছে তারকাদের মাথায়। কারণ, দাবানলে পোড়া আমাজনের জঙ্গল থেকে উৎপন্ন হওয়া কার্বন ডাই-অক্সাইড পরিবেশের জন্য মারাত্মক ক্ষতিকারক। শুধু তাই নয়, অস্তিত্ব সংকটে বহু প্রাণ।  ‘আমাজনকে বাঁচান’, কাতর আরজি টলিউডের অভিনেতাদের। দেরিতে হলেও অবশেষে ঘুম ভেঙেছে ব্রাজিল প্রশাসনের।

[আরও পড়ুন: ‘পার্সেল’ ছবির প্রথম ঝলকে অন্য রূপে ধরা দিলেন ঋতুপর্ণা]

সোশ্যাল মিডিয়- যে সত্যিই বেশ শক্তিশালী তা আরও একবার প্রমাণিত হল। বিশ্বজোড়া মানুষের আমাজন নিয়ে গর্জন, হাহাকার, কাতর-আর্তি অবশেষে কানে গিয়েছে ব্রাজিল প্রসাশনের। কারণ, আমাজন অরণ্যের আগুন নেভানোর জন্য অবশেষে সেনা পাঠাতে উদ্যত হয়েছেন প্রেসিডেন্ট জাইর বলসোনারো। আন্তর্জাতিক চাপের মুখে পড়ে সশস্ত্র সেনাবাহিনীকে ইতিমধ্যেই আমাজনের জঙ্গলে পাঠিয়েছেন।

 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং