BREAKING NEWS

০২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  বুধবার ১৮ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

ধর্ষণকাণ্ডে জামিন, মুম্বই আদালতের নির্দেশে স্বস্তি আদিত্যর

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: July 3, 2019 8:29 pm|    Updated: July 3, 2019 8:29 pm

Mumbai court granted interim bail to actor Aditya Pancholi

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আদিত্য পাঞ্চোলি বনাম কঙ্গনা রানাউতের ঝামেলার জল গড়িয়েছে বহুদূর। দিনকয়েক আগেই, অভিনেতার বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ এনে মুম্বই পুলিশের কাছে মামলা দায়ের করেন কঙ্গনা। মুম্বইয়ের ভারসোভা থানার পুলিশ আদিত্যর বিরুদ্ধে ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৬, ৩২৮, ৩৮৪, ৩৪১, ৩৪২, ৩২৩ ও ৫০ ধারায় মামলা দায়ের করে। তবে সব কিছুর পর মঙ্গলবার মুম্বইয়ের এক স্থানীয় আদালতের তরফে আদিত্যর জামিন মঞ্জুর করা হয়।

[আরও পড়ুন: বাইকে হেলমেটহীন শাহরুখ, ফিল্মি কায়দায় সতর্ক করলেন মাস্টার ব্লাস্টার]

সূত্রের খবর, নগর দায়রা আদালতের বিচারক এইচবি গাইকোয়াড় জুলাইয়ের ১৯ তারিখ অবধি আদিত্য পাঞ্চোলির জামিন মঞ্জুর করেন। পুলিশের কাছে দায়ের করা অভিযোগে কঙ্গনা দাবি করেন, বেশ কয়েকবছর আগে তাঁকে একাধিকবার ধর্ষণ করেছে আদিত্য। উল্লেখ্য, অতীতেও এই বিষয়ে অভিযোগ জানিয়েছিলেন কঙ্গনা। তখন তিনি দাবি করেছিলেন, ১৭ বছর বয়সে প্রথম তাঁকে ধর্ষণ করে আদিত্য। এই ঘটনার পর পুলিশের কাছে অভিযোগও জানিয়েছিলেন। কিন্তু, আদিত্যকে শুধু হুঁশিয়ারি দিয়ে সেই সময়ে ছেড়ে দেওয়া হয়। ধর্ষণের মতো গুরুতর অপরাধের পরও তাঁর নামে কোনও এফআইআর দায়ের করা হয়নি। এপ্রসঙ্গে পুলিশ জানিয়েছে, অভিনেত্রীর অভিযোগের ভিত্তিতে একটি এফআইআর দায়ের করা হয়েছে। তবে ১০ বছর আগে ঘটে যাওয়া ঘটনার প্রমাণ কীভাবে জোগাড় করা হবে তা নিয়ে আলোচনা চলছে। উপযুক্ত তথ্যপ্রমাণ না পাওয়া গেলে ধর্ষণের অভিযোগ প্রমাণ করা খুবই সমস্যার। তবে পুলিশের তরফ থেকে সবরকম চেষ্টা চলছে।

[আরও পড়ুন: সাসপেন্স উসকে দিল ট্রেলার, ‘জাজমেন্টাল হ্যায় কেয়া’ দেখতে উৎসাহী সিনেপ্রেমীরা]

কঙ্গনা তাঁর এক বিবৃতিতে জানিয়েছিলেন, আদিত্য তাঁকে মুম্বইয়ে একটি অ্যাপার্টমেন্ট দিয়েছিলেন। তবে সেখানে তাঁর বন্ধুদের প্রবেশের কোনও অনুমতি ছিল না। তাঁকে গৃহবন্দি করে রাখা হত প্রায়। নির্যাতন চালানো হত তাঁর উপর। সেই ঘটনা জানিয়ে জারিনার সঙ্গেও নাকি দেখা করেছিলেন কঙ্গনা। আদিত্যর হাত থেকে তাঁকে বাঁচানোর অনুরোধ করেন। কঙ্গনার দাবি, জারিনা সেই সময়ে তাঁকে সাহায্য করেননি। এই অভিযোগ সামনে আসতেই কঙ্গনাকে আইনি নোটিস পাঠান আদিত্য। অভিযোগে আদিত্য জানান, “কঙ্গনা শুধু আমাকে নয়, আমার ছেলে-মেয়ে-স্ত্রী সকলকে নিয়ে কটূ মন্তব্য করেছেন। আমাদের সম্মানহানি করেছেন।” সেজন্য তাঁর বিরুদ্ধে মানহানির মামলা করেন আদিত্য পাঞ্চোলি ও জারিনা ওয়াহাব। ২০১৭ সালে এই সব কথাই সামনে আসে যখন আন্ধেরির আদালতে মানহানির মামলা দায়ের করেন আদিত্য এবং জারিনা।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে