২৯ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  সোমবার ১৬ ডিসেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কেরলের ওয়ানড় থেকে মনোনয়ন জমা দিলেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। বৃহস্পতিবার ওয়ানড়ে এক মেগা রোড শো করে মনোয়নপত্র জমা দিতে যান কংগ্রেস সভাপতি। সঙ্গে ছিলেন তাঁর বোন তথা কংগ্রেস সাধারণ সম্পাদক প্রিয়াঙ্কা গান্ধী বঢরা। রাহুলের রোড শো ঘিরে ওয়ানড়ে কংগ্রেস কর্মী সমর্থকদের উৎসাহ ছিল চোখে পড়ার মতো। শয়ে শয়ে মানুষ রাস্তার দুধারে দাঁড়িয়ে তাঁকে কেরলে স্বাগত জানান। কংগ্রেস কর্মীদের পাশাপাশি, মুসলিম লিগ সমর্থকদেরও দেখা যায় দলীয় পতাকা নিয়ে রাহুলকে স্বাগত জানাতে।

[আরও পড়ুন: মাত্র ১৪ মাসেই তলানিতে বিপ্লবের জনপ্রিয়তা, ত্রিপুরায় দ্রুত বাড়ছে কংগ্রেস]

ওয়ানড় আসনটিতে মূল লড়াই ত্রিমুখী। রাহুলের প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী বামফ্রন্ট। কিন্তু, মনোনয়ন জমা দেওয়ার পর কংগ্রেস সভাপতি জানিয়ে দিলেন, ওয়ানড় থেকে লড়লেও সিপিএমের বিরুদ্ধে একটি শব্দও তিনি বলবেন না। রাহুল বলেন, “আমি বুঝতে পারছি, সিপিএম এখানে আমাকে আক্রমণ করবে। কারণ, ওদের আমাকে আক্রমণ করা ছাড়া আর কোনও উপায় নেই। কিন্তু, আমি সেই সব আক্রমণ সহ্য করে নেব। সিপিএমের বিরুদ্ধে একটি কথাও বলব না। সিপিএম আমার আসল শত্রু নয়। আমাদের আসল প্রতিদ্বন্দ্বী বিজেপি এবং আরএসএস। বিজেপিকে বার্তা দিতেই এই আসন থেকে লড়া। দক্ষিণ ভারতের মানুষ বিজেপির কাছ থেকে অবহেলা পেয়েছে। আমি বোঝাতে চাই, আমি দক্ষিণ ভারতের মানুষের পাশে আছি।”

[আরও পড়ুন: প্রধানমন্ত্রী ‘জঙ্গি’, গোধরায় মুসলিম হত্যা প্রসঙ্গ তুলে মোদিকে কটাক্ষ নায়ডুর]

উল্লেখ্য, ওয়ানড় আসনটিতে সংখ্যালঘু অধ্যুষিত। মূলত মুসলিম-খ্রিস্টান এবং উপজাতির বাস। সে অর্থে বিরাট কোনও প্রভাব বিজেপি বা আরএসএসের নেই। এনডিএ-র তরফে এই কেন্দ্রে প্রার্থী হয়েছেন ভারত ধর্ম জন সেনার সুপ্রিমো তুষার ভেলাপল্লি। এদিকে, রাহুলের ওয়ানড় থেকে মনোনয়ন দেওয়াকে রীতিমতো কটাক্ষ করছে বিজেপি। স্মৃতি ইরানি থেকে শুরু করে বিজেপির ছোটবড় সব নেতাই বলছেন, কংগ্রেস সভাপতি হারের ভয়ে আমেঠি কেন্দ্র থেকে পালিয়ে যাচ্ছেন। সংখ্যালঘু অধ্যুষিত ওয়ানড়ে লড়ছেন।

 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং