৭ ভাদ্র  ১৪২৬  রবিবার ২৫ আগস্ট ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জলে ভাসছে অসম৷ কাজিরাঙ্গা অভয়ারণ্যের পরিস্থিতি অত্যন্ত সঙ্গীন৷ তার জেরে বিপন্ন বন্যপ্রাণীরা৷ আবহাওয়ার সঙ্গে অস্তিত্ব রক্ষায় লড়াইয়ে ব্যস্ত তারা৷ এই পরিস্থিতিতে ওই অভয়ারণ্যে থাকা একটি রয়্যাল বেঙ্গল টাইগার প্রাণে বাঁচতে যা করল, তা দেখে আতঙ্কিত স্থানীয়রা৷

[ আরও পড়ুন: খেলার ছলেই চিরঘুমের দেশে ৩ মাসের শিশু, বিহারের বন্যা ফেরাল আয়লানের স্মৃতি]

বৃহস্পতিবার অসমের কাজিরাঙ্গা অভয়ারণ্য লাগোয়া জাতীয় সড়কের পাশে একটি বাড়িতে ঢুকে পড়ে বাঘটি৷ তা দেখে ভয় পেয়ে যান স্থানীয়রা৷ সেই সময় যদিও গৃহকর্তা বাড়িতে ছিলেন না৷ তবে এলাকায় বাড়ির মালিক পৌঁছনোর আগে লোকমুখে গ্রামে বাঘ ঢোকার কথা রটে যায়৷ খবর দেওয়া হয় বনদপ্তরে৷ বনকর্মীরা যত তাড়াতাড়ি সম্ভব এলাকায় পৌঁছয়৷ বাড়ির ভিতরে বাঘ ঠিক কী অবস্থায় রয়েছে, তা দেখতে ড্রোনের সাহায্য নেন বনকর্মীরা৷ তাতেই দেখা যায়, একটি বাড়িতে ঢুকে বিছানার উপর দিব্যি আরামে বসে রয়েছে সে৷ হাবভাব দেখে মনে হচ্ছে, জল থইথই পরিস্থিতির মাঝে বাড়িতে ঢুকে যেন বেশ নিশ্চিন্ত হয়েছে বাঘটি৷

এদিকে, মোটেও সে বাড়ি থেকে বেরোতে রাজি নয়৷ নাছোড়বান্দা বাঘটিকে উদ্ধার করতে বেশ বেগ পেতে হয় বনকর্মীদের৷ বাধ্য হয়ে ঘুমপাড়ানি গুলি ছোঁড়েন বনকর্মীরা৷ তারপর বেহুঁশ অবস্থায় উদ্ধার করা হয় বাঘটিকে৷

[ আরও পড়ুন: ভয়াবহ বন্যায় ভাসছে বিহার, মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৬৭]

ওয়াইল্ড লাইফ ট্রাস্ট ইন্ডিয়ার পক্ষ থেকে এই ছবিটি টুইট করা হয়৷ ছবিটি ভাইরাল হতে বিশেষ সময় লাগেনি৷ আর তারপর থেকেই নেটিজেনদের আলোচনায় বাঘ বাবাজি৷ অনেকেই বলছেন, বাঘটিকে দেখে মনে হচ্ছে সে বেশ ক্লান্ত৷ আবার কেউ বলছেন, এতদিন খাবার না পেয়ে অসহায় হয়ে গিয়েছে বাঘটি৷ তাই বাধ্য হয়েই গৃহস্থ বাড়িতে খাবারের খোঁজে এসেছে সে৷ কেউ কেউ আবার কাজিরাঙ্গা অভয়ারণ্য কর্তৃপক্ষের বিপন্ন বন্যপ্রাণকে অন্যত্র স্থানান্তরিত করা উচিত৷ না হলে হয়ত পশু মৃত্যুর সংখ্যা ক্রমশই বাড়বে৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং