BREAKING NEWS

১২ মাঘ  ১৪২৮  বুধবার ২৬ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

নিয়ন্ত্রণরেখায় ফের পাক সেনার হামলা, গোলাবর্ষণে শহিদ ভারতীয় জওয়ান

Published by: Sucheta Chakrabarty |    Posted: June 14, 2020 12:30 pm|    Updated: June 14, 2020 6:53 pm

Again Pak troops along LOC in JK, one Indian jawan killed

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের জম্মু-কাশ্মীরের বারামুলায় সংঘর্ষবিরতি চুক্তিলঙ্ঘন। পাক সেনার হামলায় নিহত এক জওয়ান, গুরুতর আহত ৩। শনিবার রাত থেকেই পাক সেনার গুলি বর্ষণের প্রত্যুত্তর দিতে ব্যস্ত হয়ে পড়ে ভারতীয় সেনা। রবিবার সকালে চলতে থাকে সেই লড়াই।

অনবরত সংঘর্ষবিরতি চুক্তিলঙ্ঘন করে চলেছে  পাক সেনা । গত ৬ মাসে পাকিস্তান ২০০০ বার সংঘর্ষবিরতি চুক্তিলঙ্ঘন করেছে। এমনটাই জানিয়েছেন প্রতিরক্ষামন্ত্রকের মুখপাত্র। শনিবার রাত থেকে ফের পাক সেনা কাশ্মীরের শাহপুর-কেরণি সেক্টরে গুলি বর্ষণ করতে শুরু করে। ফলে তার যোগ্য জবাব দিতে প্রস্তুতি নেয় ভারতীয় সেনাও। রবিবার সকালে পুঞ্চ (Punch), বারামুলার (Barahmula) রামপুরে শুরু হয় ভারত-পাক গুলির লড়াই। পাক সেনার গুলিতে নিহত হন এক ভারতীয় সেনা। গুরুতর আহত হন ৩ জন। তাদের দ্রুত নিকটবর্তী হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। একমাসের মধ্যে এই নিয়ে একাধিকবার পাকিস্তান পুঞ্চ আর রাজৌরি সেক্টর বরাবর যুদ্ধবিরতি লঙ্ঘন (Ceasefire violation) করেছে। ৪ জুন হাবিলদার পি মাথিয়াঝগন সুন্দরবনি সেক্টরে পাক বাহিনীর গুলির মুখে পড়ে প্রাণ হারান। ১০ জুন প্রাণ হারান জওয়ান গুরুচরণ সিং।

[আরও পড়ুন:একতরফা সিদ্ধান্তের জের, বিতর্কিত মানচিত্র ইস্যুতে নেপালকে হুঁশিয়ারি ভারতের]

পিরপঞ্জাল পর্বত এলাকায় এলওসি’তে সাম্প্রতিক ইন্দো-পাক বাহিনীর মধ্যে উত্তেজনা বেড়েছে বলে জানা যায়। শনিবার প্রতিরক্ষা মন্ত্রকের মুখপাত্র দেবেন্দ্র আনন্দ জানান, এবছর সংঘর্ষবিরতি চুক্তি লঙ্ঘনের ঘটনা আমাদের অবাক করেছে। ২০১৯ সালে জম্মু ও কাশ্মীরে ধারা রদ করার পর সংঘর্ষ বিরতি চুক্তি লঙ্ঘনের ঘটনা বৃদ্ধি পেয়েছিল। তারপর থেকে তা বেড়েই চলেছে। কেন্দ্রের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ১৬ বছরের মধ্যে সবচেয়ে বেশি সংঘর্ষ বিরতি চুক্তিলঙ্ঘন করা হয়েছিল ২০১৯ সালে। ৩১৬৮ বার তা লঙ্ঘন করে গোলাগুলি করা হয় পাকিস্তান থেকে। চলতি বছর জানুয়ারি থেকে জুন মাস পর্যন্ত প্রতি মাসেই পাকিস্তানের সংঘর্ষ বিরতি চুক্তিলঙ্ঘনের ঘটনা বাড়ছে।

[আরও পড়ুন:করোনায় স্বস্তি দেবে ‘প্রন পজিশন’, চিকিৎসায় সিলমোহর কেন্দ্রের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে