১৯ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  সোমবার ৬ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

এয়ার ইন্ডিয়া বিক্রির সিদ্ধান্ত দেশবিরোধী, তোপ দেগে আদালতে যাচ্ছেন বিজেপি সাংসদ

Published by: Paramita Paul |    Posted: January 27, 2020 2:53 pm|    Updated: January 27, 2020 3:00 pm

Air India Sell : Subramanian Swamy called the decision

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: “এয়ার ইন্ডিয়া নিলামের সিদ্ধান্ত দেশবিরোধী।” এহেন বেনজির ভাষায় কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সুর চড়ালেন বিজেপি সাংসদ সুব্রহ্মণ্যম স্বামী।একই সুরে কেন্দ্রের বিজেপি সরকারকে আক্রমণ করেছেন কংগ্রেস নেতা কপিল সিব্বল-সহ অন্য বিরোধী নেতারাও।

২০১৮ সালেই সরকারি বিমান সংস্থাটির সিংহভাগ শেয়ার বেসরকারি সংস্থার কাছে বিক্রি করে দেওয়া হবে বলে জানিয়েছিল কেন্দ্র। তবে অলাভজনক ‘এয়ার ইন্ডিয়া’র নিলামে কেউই আগ্রহ প্রকাশ করেনি। ফলে একপ্রকার বাধ্য হয়েই এবার ১০০ শতাংশ অংশীদারিত্ব বিক্রি করার কথা ভাবছে সরকার। সোমবার সরকারের তরফে একটি বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করে জানানো হয়েছে, দেশে এবং বিদেশের বিভিন্ন রুটে চলা এয়ার ইন্ডিয়ার ১০০ শতাংশ অংশীদারিত্ব বিক্রি করা হবে। এয়ার ইন্ডিয়া কেনার জন্যে প্রাথমিক আবেদন জমা দেওয়ার শেষ তারিখ ১৭ মার্চ। তবে এবার সরকারের পক্ষ থেকে একটি শর্ত রাখা হয়েছে। বলা হয়েছে, যে সব সংস্থা এই নিলামে সামিল হতে চায় তাদের সংস্থার অন্যান্য দায়দায়িত্বের পাশাপাশি ৩.২৬ বিলিয়ন মার্কিন ডলারের ঋণের বোঝাও নিতে হবে। এছাড়াও, এই নিলামের পর ভারতীয় সংস্থা বা ব্যক্তির হাতেই থাকতে হবে এয়ার ইন্ডিয়ার মালিকানা। অর্থাত্‍ বিদেশী ক্রেতার বিশেষ কোনও সুযোগ থাকছে না বলেই ধরা যেতে পারে।

[আরও পড়ুন: নির্ভয়ার ধর্ষক মুকেশের আরজিকে অগ্রাধিকার দেওয়ার পরামর্শ প্রধান বিচারপতির]

কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে সুর চড়িয়েছে বিরোধী দলগুলি। তবে কেন্দ্রীয় সিদ্ধান্তের নজিরবিহীন বিরোধিতা করেছেন বিজেপি সাংসদ সুব্রহ্মণ্যম স্বামীও। টুইটার হ্যান্ডেলে তিনি লেখেন, “এয়ার ইন্ডিয়া বিক্রি সম্পূর্ণ দেশবিরোধী সিদ্ধান্ত। এর বিরুদ্ধে আমি আদালতের দ্বারস্থ হব।” তাঁর কথায়, এয়ার ইন্ডিয়া দেশের ঐতিহ্যবাহী সম্পদ। সেই সম্পদ বিক্রি করে দেওয়া উচিত নয়। আরেকটি টুইটে তিনি জানান, গত এপ্রিল থেকে লাভের মুখ দেখতে শুরু করেছে ‘মহারাজা’। তারপরেও এয়ার ইন্ডিয়াকে কেন বিক্রি করে দেওয়া হচ্ছে, তা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন বিজেপির রাজ্যসভার সাংসদ।

[আরও পড়ুন : সুপ্রিম কোর্টে বহুবিবাহ ও নিকাহ হালালা বন্ধের দাবিতে মামলা, বিরোধিতা মুসলিম ল বোর্ডের]

এদিকে কেন্দ্রের এহেন সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে এক যোগে সরব হয়েছেন বিরোধী দলগুলিও। রীতিমতো সাংবাদিক বৈঠক ডেকে কংগ্রেস নেতা কপিল সিব্বল বলেন,”সরকারের হাতে টাকা নেই। তাই তাঁরা এটা করছে। দেশের বৃদ্ধির হার ৫ শতাংশে এসে ঠেকেছে। এমনকী মনরেগা প্রকল্পের দরুণ প্রচুর টাকা বাকি পড়ে রয়েছে। তাই দেশের সমস্ত ঐতিহ্যবাহী সম্পদ বিক্রি করে দিচ্ছে কেন্দ্র সরকার।” কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে