BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বানভাসি অসমে মৃত বেড়ে ৪২, ক্ষতিগ্রস্ত ১৩ লক্ষের বেশি মানুষ

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: July 13, 2020 3:38 pm|    Updated: July 13, 2020 3:38 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: টানা চারদিন ধরে প্রবল ঝড়বৃষ্টির ফলে আরও ভয়াবহ হয়ে উঠেছে অসমের বন্যা (Flood) পরিস্থিতি। এখনও পর্যন্ত রাজ্যের বিভিন্ন জায়গা থেকে মোট ৪২ জনের মৃত্যুর খবর পাওয়া গিয়েছে। আর ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন ১৩ লক্ষের বেশি মানুষ। ব্রহ্মপুত্র নদের জল বেশিরভাগ জায়গায় বিপদসীমার উপর দিয়ে বয়ে যাওয়ার কারণে সতর্ক রয়েছে অসম (Assam) ও অরুণাচল প্রদেশের সরকার। অনেক জায়গায় নতুন করে জল বাড়তে পারে বলেও সতর্ক করা হয়েছে।

ভারতীয় আবহাওয়া দপ্তর থেকে সদ্য প্রকাশিত বুলেটিনে উল্লেখ করা হয়েছে, চারদিন টানা বৃষ্টিপাতের ফলে অসমের পরিস্থিতি ভয়ানক হয়ে উঠেছে। ৪২ জন মারা গিয়েছেন ও ১৩ লক্ষ মানুষ ক্ষতিগ্রস্ত। ব্রহ্মপুত্র-সহ রাজ্যের প্রধান নদ-নদীগুলিতে জলস্তর বৃদ্ধির ফলে ক্ষতিগ্রস্ত মানুষের সংখ্যা আরও বাড়বে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। আগামী ১৬ জুলাই পর্যন্ত প্রবল বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে। ফলে পরিস্থিতি আরও খারাপ হতে পারে।

[আরও পড়ুন: ডিজিটাল ইন্ডিয়া গড়তে মোদির পাশে Google, ৭৫ হাজার কোটি টাকা বিনিয়োগের ঘোষণা]

অসমের বিপর্যয় মোকাবিলা দপ্তর সূত্রে খবর, প্রবল বৃষ্টি হওয়ার পর গুয়াহাটি, ডিব্রুগড়, ধুবরি, গোয়ালপাড়া, জোরহাট ও শোনিতপুর জেলায় ব্রহ্মপুত্র নদের জল অনেক বেড়ে গিয়েছে। এর ফলে ধেমাজি, লক্ষ্মীপুর, বিশ্বনাথ, শোনিতপুর, উদালগুড়ি, দারাং, বাকসা, নলবাড়ি, বরপেটা, চিরাং, বঙ্গাইগাঁও, কোকরাঝোড়, ধুবরি, গোয়ালপাড়া, কামরূপ, নওগাও, পশ্চিম কার্বি আংলং, মাজুলি-সহ ২৪টি জেলার ২ হাজারের বেশি গ্রাম বন্যাকবলিত হয়ে পড়েছে। এর মধ্যে ১৬টি জেলায় ২২৪টি ত্রাণ শিবির খুলে ২১ হাজারের বেশি মানুষকে আশ্রয় দিয়েছে অসম সরকার।

[আরও পড়ুন: ‘ঘাতক’ কমান্ডোর হাতে খতম ১২ চিনা সেনা, গালওয়ানের লড়াইয়ে গুরতেজ যেন ‘লিওনাইডাস’]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement