৩ মাঘ  ১৪২৮  সোমবার ১৭ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

বেসরকারিকরণের প্রতিবাদ, দেশজুড়ে পরপর দু’দিন ব্যাঙ্ক ধর্মঘটের হুমকি কর্মী সংগঠনগুলির

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: December 1, 2021 8:48 pm|    Updated: December 1, 2021 8:48 pm

Bank unions threaten two-day nationwide strike privatisation of PSBs | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কেন্দ্রের বেসরকারিকরণ (Bank Privatisation) নীতির প্রতিবাদে ফের দেশজুড়ে ব্যাংক ধর্মঘটের হুমকি দিল একাধিক কর্মী সংগঠন। অবিলম্বে বেসরকারিকণের প্রক্রিয়া বন্ধ না করলে আগামী ১৬ এবং ১৭ ডিসেম্বর একযোগে ধর্মঘট ডাকতে পারে ব্যাংক কর্মীদের ৯টি সর্বভারতীয় সংগঠন। ইউনাইটেড ফোরাম অফ ব্যাংক ইউনিয়নস (United Forum of Bank Unions) নামের একটি যৌথ সংগঠন বুধবার এই সিদ্ধান্ত জানিয়েছে। শেষ পর্যন্ত যদি এই ধর্মঘট হয়, তাহলে হাজার হাজার গ্রাহক ভোগান্তির মুখে পড়তে পারেন।

Bank unions threaten two-day nationwide strike privatisation of PSBs

প্রসঙ্গত, ফেব্রুয়ারির শুরুতে সংসদে  পেশ করা সাধারণ বাজেটে দেশের কয়েকটি রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংক বেসরকারিকরণের কথা ঘোষণা করেছিলেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ (Niramala Sitharaman)। বেসরকারিকরণের জন‌্য প্রাথমিকভাবে চারটি মাঝারি মাপের ব্যাংক-কে বেছে নেয় মোদি (Narendra Modi) সরকার। সূত্রের খবর, এর মধ্যে অন্তত গোটা দু’য়েক ব্যাংকের বেসরকারিকরণের প্রক্রিয়া শুরুও হয়ে গিয়েছে। প্রস্তাব পাশ করানোর জন্য কী কী আইনি পরিবর্তন প্রয়োজন, ইতিমধ্যেই তা খতিয়ে দেখা শুরু করেছে অর্থমন্ত্রক। সংসদের চলতি অধিবেশনেই পেশ হতে পারে ব্যাংকিং আইন সংশোধনী বিল (২০২১)।

[আরও পড়ুন: পরিবার নেই, স্বজন হারানোর বেদনা বোঝেন না যোগী! অখিলেশের মন্তব্যে ঘনাল বিতর্ক]

কেন্দ্রের এই উদ্যোগে রীতিমতো ক্ষুব্ধ ব্যাংক কর্মীদের সংগঠনগুলি। তাঁদের দাবি, ভারতের মতো উন্নয়নশীল দেশে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংকের গুরুত্ব অপরিসীম। বহু মানুষের সঞ্চয়ের অন্যতম আধার এই রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কগুলি। UFBU-নামের ওই সংগঠনটির বক্তব্য, ব্যাংকিং ব্যবস্থাকে দুর্বল করে এমন যে কোনও ধরনের সংস্কারের বিরোধিতা করছেন তারা। কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তেরও প্রতিবাদ করা হবে।

[আরও পড়ুন: বিয়েতে দেদার নাচাগানা, আতশবাজি পোড়াচ্ছেন? ‘নিকাহ’ পড়াবেন না মুসলিম ধর্মগুরুরা]

বাজেটে রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাংক বেসরকারিকরণ সংক্রান্ত প্রস্তাবের পরই বিরোধীরা এর বিরুদ্ধে সরব হয়েছে। সরকারের তীব্র সমালোচনা করে বলা হয়েছে, সরকারি কোষাগার ভরতে সম্পত্তি বেচে দেওয়া হচ্ছে। তবে কেন্দ্রের বক্তব‌্য, সংস্থাগুলিকে আরও বেশি কার্যকর করার লক্ষ্যেই এই ব‌্যবস্থা। সরকারের এই সিদ্ধান্তের প্রভাব পড়বে লক্ষ লক্ষ ব্যাংক কর্মচারীর ভবিষ‌্যতের উপর। সেকারণেই  কর্মী সংগঠনগুলির এই প্রতিবাদ। 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে