BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বিহারে সুশান্তের মৃত্যুকে হাতিয়ার করে ভোটপ্রচার বিজেপির! পোস্টার ঘিরে বিতর্ক

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: September 6, 2020 5:05 pm|    Updated: September 6, 2020 5:05 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সুশাসন, দুর্নীতি, করোনা পরিস্থিতি, পরিযায়ী শ্রমিকদের সমস্যা, কর্মসংস্থান, বন্যা। সবকিছু ছাপিয়ে বিহারের আসন্ন নির্বাচনের অন্যতম ইস্যু হয়ে দাঁড়িয়েছে এক অভিনেতার মৃত্যু। তিনি সুশান্ত সিং রাজপুত (Sushant Singh Rajput)। বিহার থেকে যে গুটিকয়েক অভিনেতা বলিউডে গিয়ে সর্বোচ্চ স্তরের সাফল্য পেয়েছেন, তাঁদের মধ্যে একজন সুশান্ত। স্বাভাবিকভাবেই রহস্যজনক পরিস্থিতিতে তাঁর মৃত্যু মেনে নিতে পারছে না বিহার। সুশান্তের মৃত্যুতে বিহারবাসী যেমন বেদনাদীর্ণ, তেমনি তদন্ত প্রক্রিয়া নিয়ে ক্ষুব্ধ। আর ঘরের ছেলের জন্য বিহারবাসীর সেই আবেগকে এবার ভোট বাক্সে কাজে লাগাতে চাইছে বিজেপি (BJP)। সোজা কথায় বলতে গেলে, অভিনেতার মৃত্যুকে হাতিয়ার করে বিহারের ভোট বৈতরণী পার করতে চাইছে গেরুয়া শিবির। অন্তত তাদের নতুন পোস্টার দেখলে সেটাই মনে হয়।

Bihar-poster

বিহার বিজেপির কলা এবং সংস্কৃতি মোর্চার (Arts and Culture Cell) তরফে শনিবারই সুশান্তের স্মরণে নতুন পোস্টার প্রকাশ করা হয়েছে। যাতে সুশান্তের ছবি দিয়ে লেখা আছে ‘তোমাকে না ভুলেছি, আর না ভুলতে দেব।’ সেই সঙ্গে লেখা ‘জাস্টিস ফর সুশান্ত’ স্লোগান। মোট ৩০ হাজারটি এই ধরনের স্টিকার ছাপা হয়েছে। বিহারের বিজেপি নেতাদের গাড়িতে এবং বিভিন্ন যানবাহনে এই স্টিকারগুলি লাগানো থাকবে। শুধু তাই নয়, বিহার বিজেপি প্রয়াত অভিনেতার ছবি-সহ ‘জাস্টিস ফর সুশান্ত’ লেখা ৩০ হাজার মাস্কও বিতরণ করেছে। যা কিনা ভোটের প্রচারে গিয়ে গেরুয়া শিবিরের কর্মীরা পরবেন। অর্থাৎ সব মিলিয়ে সুশান্তের প্রতি বিহারবাসীর ভালবাসাকে পুরোপুরি কাজে লাগাতে চাইছে বিজেপি।

[আরও পড়ুন: ‘পরিবারের মোহ কাটান’, এবার প্রিয়াঙ্কাকে নিশানা করে সোনিয়াকে চিঠি উত্তরপ্রদেশের নেতাদের]

সুশান্তের মৃত্যু যে রাজনীতির ইস্যু হতে চলেছে সে ইঙ্গিত অবশ্য আগেই মিলেছিল। নিন্দুকেরা বলেন, অভিনেতার মৃত্যুর তদন্তে বিহার পুলিশের অতি সক্রিয়তা, সিবিআই তদন্তের দাবিতে বিহারের মুখ্যমন্ত্রীর আন্দোলন এবং সর্বোপরি কংগ্রেসশাসিত মহারাষ্ট্র পুলিশকে ক্রমাগত কাঠগড়ায় তোলার চেষ্টা, অনেক আগেই জানান দিচ্ছিল যে বিজেপি সুশান্তের মৃত্যুকে বিহারের ভোটে কাজে লাগাতে চাইবে। আর সেকারণে শুরু থেকেই এই মামলার তদন্তকে মহারাষ্ট্র এবং বিহার এই দুই রাজ্যের মধ্যেকার লড়াই হিসেবে তুলে ধরার চেষ্টা হয়েছে। আসলে সুশান্ত মামলায় মহারাষ্ট্র পুলিশের বিরুদ্ধে যত গাফিলতির অভিযোগ উঠেছে, বিহারে তত ব্যাকফুটে চলে গিয়েছে কংগ্রেস-আরজেডি (RJD) জোট। স্বাভাবিকভাবেই গেরুয়া শিবিরের নতুন পোস্টার দেখে তাঁরা ক্ষুব্ধ। আরজেডি বলছে,”সামান্য রাজনৈতিক স্বার্থের জন্য সুশান্তের মৃত্যুকে ব্যবহার করা উচিত নয় বিজেপির। আমরা সকলেই ওঁর মৃত্যুতে সিবিআই তদন্ত চেয়েছি। আমরা চাই, সুশান্ত সুবিচার পাক, রাজনীতিকরা নয়।”

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement