৬ মাঘ  ১৪২৬  সোমবার ২০ জানুয়ারি ২০২০ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

৬ মাঘ  ১৪২৬  সোমবার ২০ জানুয়ারি ২০২০ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লোকসভায় পাশ হওয়ার পর এবার রাজ্যসভায় পেশ হতে চলেছে নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল। সূত্রের খবর, আগামিকাল অর্থাৎ বুধবারই বিলটি সংসদের উর্ধ্ব-কক্ষে বিলটি পেশ করতে চলেছেন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রী অমিত শাহ। রাজ্যসভায় বিল নিয়ে আলোচনার জন্য ৬ ঘণ্টা সময় বরাদ্দ হয়েছে। তবে রাজনৈতিক মহলের ধারনা, নির্ধারিত সময়ের অনেক বেশি সময় ধরেই চলতে পারে বিতর্ক।


সূত্রের খবর, লোকসভায় আটকাতে না পারলেও রাজ্যসভায় নাগরিকত্ব বিলটি আটকে দেওয়ার মরিয়া চেষ্টা করবে কংগ্রেস। সেই সঙ্গে বিলটি আটকানোর চেষ্টা করতে পারে তৃণমূল কংগ্রেসও। রাজ্যসভায় লোকসভার তুলনায় শক্তি অনেকটাই বেশি বিরোধীদের। তাই বিরোধী শিবির চাইছে, যদি কোনওভাবে বিলটিকে আটকে দেওয়া যায়। কংগ্রেস সূত্রের খবর, দলের তিন বর্ষীয়ান নেতা এই বিলের বিপক্ষে বক্তব্য রাখবেন। কংগ্রেস শিবিরের নেতৃত্ব দেবেন কপিল সিব্বল। বক্তব্য রাখবেন আনন্দ শর্মা এবং অসমের সাংসদ নিপুন বোরা।

[আরও পড়ুন: CAB নিয়ে উত্তাল অসম, পিছিয়ে দেওয়া হল গুয়াহাটি বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা ]


তবে সংখ্যাতত্ত্ব যা বলছে, তাতে বিরোধীদের হাজার চেষ্টাও হয়তো কাজে লাগবে না। লোকসভার তুলনায় রাজ্যসভায় বিরোধীদের শক্তি বেশি হলেও, বিলটিকে আটকে দেওয়ার মতো জায়গায় নেই তাঁরা। রাজ্যসভার মোট আসনসংখ্যা ২৪৫। সেই হিসেবে বিল পাশ করাতে প্রয়োজন ১২৩ জন সাংসদের সমর্থন। তবে, এই মুহূর্তে ৭টি আসন ফাঁকা পড়ে আছে। তাই, ম্যাজিক ফিগার কমে দাঁড়িয়ে ১২০। এই মুহূর্তে দল হিসেবে একা বিজেপির হাতেই রয়েছে ৮৩ জন সাংসদ। বিজেপির অন্যান্য জোটসঙ্গীদের মিলিয়ে এনডিএ এবং বিজেপি পন্থী দলগুলির মোট সাংসদ সংখ্যা ১১৯। অর্থাৎ, সংখ্যাগরিষ্ঠতার জন্য প্রয়োজন মাত্র ১টি অতিরিক্ত আসন। গেরুয়া শিবিরের আশা, বিজেডি, টিআরএস এবং ওয়াইএসআর কংগ্রেস পার্টি তাঁদের সমর্থন করবে। তা যদি নাও হয়, অন্তত এই দলগুলি ওয়াক আউট করবে। এই তিন দল ওয়াক আউট করলে সহজেই পাশ হয়ে যাবে বিল। অন্যদিকে, বিরোধী শিবির চেষ্টা করছে এনডিএর জোটসঙ্গীদের মধ্যে কাউকে দলে টানার।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং