১৩ মাঘ  ১৪২৬  সোমবার ২৭ জানুয়ারি ২০২০ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফয়েলে মোড়া সাদা ভাতের মধ্যে স্বচ্ছন্দ্যে বিচরণ আস্ত আরশোলার। প্যাকেটটি পালটে নতুন করে আনা হল খাবার। কিন্তু তাতেও সেই এক ছবি। ভাত ছেড়ে কিছুতেই যাচ্ছে না আরশোলা। এমন চূড়ান্ত অব্যবস্থার নিদর্শন খোদ দিল্লির বিখ্যাত বঙ্গভবনে। এখানকার সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ খাদ্য সরবরাহকারী সংস্থা বিজলি গ্রিলের বিরুদ্ধে উঠল এমনই গুরুতর অভিযোগ।

জানা গেছে, কংগ্রেস সাংসদ অধীর চৌধুরির বাড়ি থেকে তাঁর মেয়ের জন্য বঙ্গভবনের বিজলি গ্রিল থেকে খাবার আনতে দেওয়া হয়েছিল। তাঁর ব্যক্তিগত সচিব গিয়েছিলেন খাবারটি আনতে। কিন্তু বাড়ি ফিরে দেখা যায়, ফয়েলে মোড়া ভাতের মধ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে আরশোলা। সঙ্গে সঙ্গে অভিযোগ জানিয়ে বঙ্গভবনের বিজলি গ্রিলের অফিসে ফোন করা হয়। সূত্রের খবর, ম্যানেজার জানান যে তিনি অন্য কাউকে দিয়ে নতুন করে খাবার পাঠাচ্ছেন। এর কিছুক্ষণ পর এক ব্যক্তি খাবার নিয়ে পৌঁছন তাঁর বাড়িতে। কিন্তু নতুন খাবারের প্যাকেট খুলেও দেখা যায়, সেই একই ছবি। অর্থাৎ ভাতের মধ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে আরশোলা। দ্বিতীয়বার এমন দৃশ্য দেখে কার্যত হতাশ সাংসদের পরিবারের সদস্যরা। ক্ষুব্ধও হয়েছেন তাঁরা।

[আরও পড়ুন: মদ্যপান নিয়ে বচসার জের! সিনিয়রকে খুনের পর আত্মঘাতী ছত্তিশগড় পুলিশের কর্মী]

বিজলি গ্রিল যথেষ্ট নামী খাদ্য সরবরাহকারী সংস্থা। কলকাতা-সহ বিভিন্ন মেট্রো শহরে বিজলি গ্রিলের খাবারের মান এখনও পর্যন্ত যথেষ্ট ভাল বলেই গ্রাহকরা জানিয়েছেন। সম্প্রতি মান বজায় রাখার দোহাই দিয়ে দামও বাড়ানো হয়েছে বলে অভিযোগ গ্রাহকদের। দিল্লির বঙ্গভবন রীতিমতো ভিআইপি ভবন। সেখানকার সমস্ত খাবার সরবরাহের জন্য চুক্তিবদ্ধ বিজলি গ্রিল। কিন্তু সেখানে এমন দায়সারাভাবেই চলছে পরিষেবা। এমনকী কর্তৃপক্ষের নজরে তা আনার পরও একই ভুলের পুনরাবৃত্তি। এবং সাংসদের মেয়ের ক্ষেত্রে কোনও বাড়তি নজর নেই কর্তৃপক্ষের, এমনই অভিযোগ অধীর চৌধুরির ক্ষুব্ধ কন্যার। এর বিরুদ্ধে তাঁরা কোনওরকম ব্যবস্থা নেবে কি না, তা ভেবে দেখবেন বলে ঘনিষ্ঠ মহলে জানিয়েছেন বহরমপুরের কংগ্রেস সাংসদ।

[আরও পড়ুন: নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলকে সমর্থনের জের, নিজের দলকেই তোপ প্রশান্ত কিশোরের]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং