BREAKING NEWS

১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ চকচকে কাগজের মোড়ক, মোদিকে কটাক্ষ তৃণমূল কংগ্রেসের

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: May 12, 2020 8:56 am|    Updated: May 12, 2020 10:59 pm

An Images

করোনা সংক্রমণ বৃদ্ধির হার বেড়েই চলেছে। দেশে আক্রান্তের সংখ্যা  ৭০হাজার ৭৫৬। মৃত্যু ২৩০০ ছুঁতে চলেছে। তবে তারই মধ্যে লকডাউনে আরও খানিকটা ছাড়ের পথে হাঁটছে কেন্দ্র। আজ থেকেই চালু হচ্ছে বিশেষ যাত্রীবাহী ট্রেন। বিকেলে রাজধানী দিল্লি থেকে বিভিন্ন রাজ্যে রওনা হবে ১৫ জোড়া ট্রেন। এদিকে, বুধবার থেকে রাজ্যের গ্রিন জোনগুলিতে জরুরি পরিষেবায় যুক্ত কর্মীদের জন্য চালু হচ্ছে সরকারি বাসও।  ১৭ মে লকডাউন পরবর্তী সময়ে কোন পথে এগোবে বাংলা, তা স্থির করতে বিকেলে বৈঠক করবেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এ রাজ্যে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা ১২৬। আক্রান্তের সংখ্যা  ২১৭৩। বিশ্বে আক্রান্ত ৪২,৫৪,৮০০। মৃত ২ লক্ষ ৮৭ হাজারের বেশি। করোনা সংক্রান্ত সমস্ত আপডেট: 

রাত ১০.৪০: প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ চকচকে কাগজের মোড়ক। মোড়কের ভিতর থেকে কোন জিন বেরোবে তা জানা যাবে কাল কিংবা পরশু। প্রধানমন্ত্রীর আর্থিক প্যাকেজ নিয়ে প্রতিক্রিয়া তৃণমূল কংগ্রেসের।

রাত ১০.১৫: দিল্লিতে ২৭ জন CISF জওয়ানের দেহে মিলল করোনার জীবাণু। 

রাত ১০.০৭: এয়ার ইন্ডিয়ার বিমানে সিঙ্গাপুর থেকে বেঙ্গালুরু ফিরলেন ২৪ ভারতীয়।

রাত ৯.৫৩: প্রধানমন্ত্রীর ‘ভোকাল ফর লোকাল’ স্ট্র্যাটেজিকে সমর্থন অমিত শাহর।

রাত ৯.৩০: জঙ্গিপুর মহকুমা হাসপাতালের স্বাস্থ্যকর্মী রঘুনাথগঞ্জের প্রতাপপুর কলোনিতে যে বাড়িতে ছিলেন তাঁর সংস্পর্শে আশা মোট ৫ জনকে এদিন জঙ্গিপুর মহকুমা হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। তাঁদের মধ্যে একজন শিশুও রয়েছেন। স্বাস্থ্য দপ্তর তাঁদের লালা রস সংগ্রহ করে করোনা পরীক্ষার জন্য মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়। 

রাত ৯.০৫: মালদ্বীপ থেকে ২৩ জন মহিলা ও ৩ শিশু-সহ ২০২ জন ভারতীয় পৌঁছলেন কোচি বন্দরে। 

রাত ৮.৪৫: বুধবার থেকে ক্যাফে, খাবারের দোকান আর চায়ের দোকান খোলা যাবে। কিন্তু শুধুমাত্র হোম ডেলিভারি আর টেক অ্যাওয়ে সার্ভিস চালু থাকবে। জানাল মেঘালয় পুলিশ।

রাত ৮.৩৪: সচেতনতা ও সামাজিক দূরত্বের আবেদন জানিয়ে ভাষণ শেষ করলেন প্রধানমন্ত্রী মোদি।

রাত ৮.৩২: রাজ্যের প্রস্তাবের উপর ভিত্তি করে লকডাউনের চতুর্থ পর্যায়ের কথা ঘোষণা মোদির। ১৮ মে’র আগে জানিয়ে দেওয়া হবে নিয়ম।

রাত ৮.২৯: ভারতীয়দের লোকাল প্রোডাক্ট কেনার আবেদন মোদির। সেই প্রোডাক্টে  প্রচারও করার কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। কারণ দেশের দুর্দিনে স্থানীয়রাই পাশে দাঁড়িয়েছে। 

রাত ৮.২০: ২০ লক্ষ কোটি টাকার বিশেষ আর্থিক প্যাকেজ ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর। ভারতের জিডিপির প্রায় ১০ শতাংশ এই প্যাকেজ। এর ফলে সব সেক্টরের কোয়ালিটি ও এফিসিয়েন্সি বাড়বে।

রাত ৮.০৭: করোনা মোকাবিলায় প্রতিদিন ২ লক্ষ পিপিই ও N95 বানাচ্ছে ভারত।

রাত ৮টা: জাতীর উদ্দেশে ভাষণ শুরু প্রধানমন্ত্রীর। 

সন্ধ্যা ৭.৩০: করোনায় আক্রান্ত দিল্লির দুর্নীতিদমন শাখার অ্যাসিট্যান্ট সাব ইন্সপেক্টর।

সন্ধ্যা ৬.৪০: ভারত এখন প্রতিদিন ১ লক্ষ COVID-19 পরীক্ষা করতে পারবে। ঘোষণা কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষ বর্ধনের।

সন্ধ্যা ৬.৩০: করোনা আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভরতি রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট পুতিনের মুখপাত্র ডিমিট্রি পেসকোভ।

বিকেল ৫.৫৫: লকডাউনে ঘরে বসেই এবার মদ পাবেন মহারাষ্ট্রবাসী। হোম ডেলিভারিতে সায় দিল মহারাষ্ট্রের আবগারি দপ্তর। তবে নির্দিষ্ট গাইডলাইন মেনেই তা করতে হবে। 

বিকেল ৫.৩০: রাজ্যের স্বরাষ্ট্রসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, “রাজ্যে নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১১০ জন। সোমবার রাজ্যে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ছিল ২ হাজার ৬৩ জন। আজ তা বেড়ে হয়েছে ২ হাজার ১৭৩। হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন ২৪ হাজার ২৯৬ জন। রাজ্যে মোট ৫২ হাজার ৬২২ জনের করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে।”

বিকেল ৫: পশ্চিমবঙ্গে পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য ১০০টি ট্রেন যাতায়াত করানোর কথা ভাবা হচ্ছে, পরিকল্পনা চলছে। বললেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্য়োপাধ্যায়।

বিকেল ৪.৫০: লকডাউনের মাঝেও অর্থনৈতিক ক্ষেত্র সচল রাখার চেষ্টা। রেড জোনকে তিন ভাগে ভাগ করার পরামর্শ মুখ্যমন্ত্রীর। A জোনে সম্পূর্ণ লকডাউন। B জোনে সোনার, ইলেকট্রনিক্সের দোকান ছাড়া অন্যান্য দোকান খোলায় ছাড় দেওয়ার পরিকল্পনা। C জোনে ছাড়ের মাত্রা আরও বাড়বে। কোন ক্ষেত্রে ছাড় মিলবে, ঠিক করবে পুলিশ। নবান্নের বৈঠকে বললেন মুখ্যমন্ত্রী।  

বিকেল ৪.৪৩: সামাজিক দূরত্ব মেনে টলিপাড়ায় কাজ শুরুর পক্ষে মুখ্যমন্ত্রী। শুটিং ছাড়া ডাবিং, এডিটিংয়ের কাজ চালু হতে পারে। জানালেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। 

বিকেল ৪.৪০: করোনা সংক্রমণের জেরে সমস্যা দীর্ঘস্থায়ী হবে। আশঙ্কা প্রকাশ মুখ্যমন্ত্রীর। আগামী তিন মাসের জন্য সতর্কতা বজায় রাখার পরামর্শ। ধাপে ধাপে পরিকল্পনা করে সব স্বাভাবিক করার পক্ষে তিনি।

বিকেল ৪.৩০: দ্বিতীয় দফায় কাজ শুরু করবে ‘বন্দে ভারত মিশন’। ১৬ থেকে ২২ মে’র মধ্যে একত্রিশটি দেশ থেকে ভারতীয়দের উদ্ধার করে আনবে ১৪৯টি বিমান। ঘোষণা

দুপুর ৩.২১: বাঘাযতীনে করোনা আক্রান্তের মৃত্যু।  ডি ব্লকের বাসিন্দা ক্যালকাটা টেলিফোনসের সদ্য অবসরপ্রাপ্ত কর্মী সুভাষ দাসের মৃত্যু হয়েছে টালিগঞ্জের এমআর বাঙুর হাসপাতালে। 

দুপুর ৩: Containment Zone এ চায়ের দোকানে আড্ডা। দক্ষিণ ২৪ পরগনার বারুইপুর থানার আটঘরা এলাকায় জমায়েত সরাতে গিয়ে আক্রান্ত পুলিশ। চলে ইটবৃষ্টি।  গুরুতর জখম ৫ পুলিশকর্মী।

দুপুর ২.১৬: মুর্শিদাবাদে ফেরা ৩ জন করোনা আক্রান্ত পরিযায়ী শ্রমিকের দিল্লি যোগ নিশ্চিত করল স্বাস্থ্য দপ্তর। যে অ্যাম্বুল্যান্সে তাঁরা ফিরেছিলেন,তাঁর চালকের নমুনা পরীক্ষার রিপোর্টের অপেক্ষায় ফরাক্কাবাসী।

দুপুর ১.৪৫:২০ জুলাই পর্যন্ত কলকাতা পুরসভার প্রশাসকদের মেয়াদ বাড়িয়ে দিল কলকাতা হাই কোর্ট। আগে এক অন্তর্বতী রায়ে ৮ জুন পর্যন্ত কাজ করতে ক্ষমতা দিয়েছিল।

দুপুর ১.২৫: লকডাউন আবহে প্রতিবেশী দেশগুলিকে সাহায্যের হাত বাড়িয়েছে ভারত। ‘মিশন সাগর’ কর্মসূচির আওতায় প্রথম ভারত থেকে পণ্যবাহী জাহাজ পৌঁছল মালদ্বীপের বন্দরে। ৫৮০ টন প্রয়োজনীয় সামগ্রী সেখানে খালাস করা হবে।

দুপুর ১.১৬: বিহারের পরিযায়ী শ্রমিকদের পৌঁছতে গিয়ে বর্ধমান থেকে উধাও হয়ে যাওয়া দুটি সরকারি বাসের খোঁজ মিলল।  আজ দুপুরে ফিরে উধাও রহস্যের জট খুললেন চালকরা। সকলেই সুস্থ রয়েছেন।  ৭৭ জন শ্রমিককে নিয়ে বিহার থেকে ফের বারাণসী পৌঁছে দিয়েছিলেন বলে জানালেন তাঁরা।  

দুপুর ১২.৩০: লকডাউন জারি থাকবে না তুলে দেওয়া হবে, এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে দিল্লিবাসীর মতামত চেয়ে পাঠালেন মুখ্যমন্ত্রী কেজরিওয়াল। হোয়াটসঅ্যাপে অথবা ফোনে ভয়েস রেকর্ড করে বুধবার বিকেলের মধ্যে মতামত জানাতে হবে। 

দুপুর ১২.১১: ফের জাতির উদ্দেশে ভাষণ প্রধানমন্ত্রীর। আজ রাত ৮টায় বক্তব্য রাখবেন মোদি, খবর প্রধানমন্ত্রীর দপ্তর সূত্রে। লকডাউন শিথিল নাকি আর্থিক প্যাকেজ? – কী ঘোষণা করবেন তিনি, তাকিয়ে দেশবাসী।

দুপুর ১২: এশিয়ায় করোনার নতুন হটস্পট বাংলাদেশ। নামেই লকডাউন, তাই দ্রুতহারে বাড়ছে সংক্রমণ। পর্যবেক্ষণ বিশেষজ্ঞদের। 

বেলা ১১.৫০: এয়ার ইন্ডিয়ায় পিওন করোনা আক্রান্ত। সংক্রমণ এড়াতে দিল্লিতে সংস্থার সদর দপ্তর বন্ধ করে দেওয়া হল। গোটা অফিস স্যানিটাইজ করা হবে। আক্রান্তকে পাঠানো হল হোম কোয়ারেন্টাইনে।

বেলা ১১.২০: সরিয়ে দেওয়া হল রাজ্যের স্বাস্থ্যসচিবকে। বিবেক কুমারের বদলে নতুন স্বাস্থ্যসচিব পরিবহণ বিভাগের সচিব নারায়ণ স্বরূপ নিগম। করোনা সংক্রমণ নিয়ে সংকটের সময় এই রদবদল অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ বলে মনে করা হচ্ছে। 

Notification on Vivek Kumar

সকাল ১০.৩১: করোনায় আক্রান্ত হয়ে কলকাতায় কর্মরত আরও এক CISF জওয়ানের মৃত্যু। তিনি অ্যাসিস্ট্যান্ট সাব-ইন্সপেক্টর পদে কর্মরত ছিলেন বলে বাহিনী সূত্রে খবর। 

সকাল ১০.১৫: লকডাউন ওঠার পর চিনের ইউহানে ফের করোনা সংক্রমণ বেড়েছে। তার জেরে এক আধিকারিককে বরখাস্ত করল প্রশাসন।

সকাল ১০.০৫: ঢাকা থেকে বিশেষ বিমানে শ্রীনগর ফিরলেন ১৬৯ জন পড়ুয়া। 

সকাল ৯.৩৪: ধাপে ধাপে এগোচ্ছে ‘বন্দে ভারত মিশন’। শিকাগো থেকে ৩০০ ভারতীয়কে নিয়ে রওনা দিচ্ছে বিমান। বুধবার এসে পৌঁছবে মুম্বইয়ে। সেখান থেকে চেন্নাইয়ের উদ্দেশে রওনা। বিমানবন্দরে যাত্রীদের স্বাস্থ্যপরীক্ষার পর ছাড়া হবে। 

সকাল ৮.৫৬: দেশে হু হু করে বাড়ছে COVID সংক্রমণ। গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনায় আক্রান্ত ৩৬০৪ জন। আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৭০,৭৫৬।  মৃত্যু হয়েছে ২২৯৩ জনের। টুইট করে পরিসংখ্যান জানাল স্বাস্থ্যমন্ত্রক।

সকাল ৮.৪০: আমেরিকায় করোনার হামলায় মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়ে গেল ৮১ হাজার। তবে গত দু দিনে সংক্রমণ কিছুটা কম বলে খবর। 

সকাল ৮.০৫:১৭ মে লকডাউন উঠলে, তারপর কোন পথে এগোবে বাংলা, তা স্থির করতে আজ বিকেল বৈঠকে বসছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। জেলাশাসক, পুলিশ সুপার, জেলার মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিকদের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্স।

[আরও পড়ুন:‘ঘরে ফিরতে চাওয়াই মানবপ্রবৃত্তি, কিন্তু সংক্রমণ রুখতে হবে’, বৈঠকে ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর]

সকাল ৭.৫৮: বেঙ্গালুরু থেকে শ্রমিক স্পেশ্যাল ট্রেন ফিরল বাঁকুড়ায়। ভোরে ১২০০ শ্রমিক নিয়ে ট্রেনটি পৌঁছায়। স্বাস্থ্য পরীক্ষার পর তাঁদের বাড়ি ফেরানো হবে। ১৪ দিন থাকতে হবে হোম কোয়ারেন্টাইনে। সেসময় তাঁদের খাওয়ানো হতে পারে হাইড্রক্সি ক্লোরোকুইন।

সকাল ৭.৪০: করোনা চিকিৎসায় আরও অর্থ বরাদ্দ ট্রাম্প প্রশাসনের।  অতিরিক্ত ১১ বিলিয়ন ডলার কাজে লাগানো হবে করোনা সংক্রান্ত পরীক্ষা, চিকিৎসার জন্য। খবর হোয়াইট হাউস সূত্রে।

সকাল ৭.৩০: লকডাউন উঠলেও চূড়ান্ত নজরদারি প্রয়োজন। সাবধানতা অবলম্বন না করলে ফের দ্রুত ছড়াতে পারে সংক্রমণ। সতর্কবার্তা দিল WHO. 

[আরও পড়ুন: প্রতিষেধক প্রস্তুতির উদ্যোগ দেশেই, ICMR`র সঙ্গে গাঁটছড়া ভারত বায়োটেকের]

সকাল ৭ : লকডাউনের মাঝেই আজ থেকে যাত্রীবাহী ট্রেন চালু করছে রেল। দিল্লি থেকে বিভিন্ন রাজ্যে পৌঁছবে ট্রেন। সমস্ত স্টেশনে প্রস্তুতি তুঙ্গে। ঘরে ফেরার অপেক্ষায় বহু মানুষ। স্টেশনে স্বাস্থ্য পরীক্ষায় পাশ করলে ট্রেনে ওঠার অনুমোদন মিলবে। শুধুমাত্র এসি ট্রেনে সফর। থাকবে না রান্না করা খাবার অথবা শয্যার ব্যবস্থা।

 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement