BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

মাথায় ঝুলে বাধ্যতামূলক স্বেচ্ছাবসরের খাঁড়া, ‘ছাঁটাই তালিকা’ ঘিরে আতঙ্কে রেলকর্মীরা

Published by: Monishankar Choudhury |    Posted: August 19, 2020 9:34 pm|    Updated: August 19, 2020 9:34 pm

An Images

প্রতীকী

সুব্রত বিশ্বাস: বাধ্যতামূলক স্বেচ্ছাবসর দেওয়া শুরু হয়েছে রেলে। পঞ্চান্ন বছর বয়স ও ত্রিশ বছর চাকরির যেটি আগে পূর্ণ হবে, এমন কর্মীদের বিদায় জানানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছে রেল। প্রাথমিকভাবে বাছাইপর্বের পর তাঁদের কর্ম জীবনের খতিয়ান দেখে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবে রেল।

[আরও পড়ুন: ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে করোনায় সংক্রমিত প্রায় ৩২০০, লাফিয়ে বাড়ছে সুস্থতার হারও]

ইতিমধ্যে তালিকাবদ্ধদের বিষয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে কমিটিও গঠন করা হয়েছে। তিন মাসের নোটিসে বাধ্যতামূলক স্বেচ্ছাবসর দেওয়া হবে কর্মীদের। এজন্য কমিটিকে আবেদন জানালেও তা গ্রাহ্য করা হবে না বলে জানা গিয়েছে। প্রাথমিকভাবে তালিকাবদ্ধদের মধ্যে যাঁরা কোনওরকম নোটিস ছাড়াই ছুটি নিয়েছেন তাঁদের অবাধ্য বলে গণ্য করবে কমিটি। কাজে দক্ষতা বা বাৎসরিক গোপন রিপোর্টের উপরও বাধ্যতামূলক স্বেচ্ছাবসরে পাঠানোর বিষয়টি নির্ভর করবে বলে রেল কর্তারা জানিয়েছেন।

রেল বোর্ডের নির্দেশে বিভিন্ন জোন কর্মীদের বয়স ও কত বছর চাকরি করছেন তার তালিকা তৈরি করছে। পূর্ব রেল গত জানুয়ারি থেকে মার্চের মধ্যে যাঁদের বয়স পঞ্চান্ন ও কর্মজীবন ত্রিশ বছর হয়েছে এমন তালিকা তৈরি করে ফেলেছে। তালিকা প্রকাশ্যে আসতেই কর্মীদের মধ্যে কাজ হারানোর আতঙ্ক শুরু হয়ে গিয়েছে। কর্মী সংগঠনের অভিযোগ, এই বয়সে সন্তানদের উচ্চ শিক্ষা চলে, বিভিন্ন ঋণ শোধ করার প্রক্রিয়া চলে। ফলে কর্মীরা চরম অসুবিধার মধ্যে পড়বেন। পূর্ব রেলের মেনস ইউনিয়নের সাধারণ সম্পাদক অমিত ঘোষ বলেন, ৩৭২ জনের যে লিস্ট তৈরি হয়েছে। তার কোনও বিষয় কর্মী সংগঠনকে হয়নি। ত্রিশ বছর চাকরি ও পঞ্চান্ন বয়স ধরলে অসংখ্য নাম আসবে। তবে কিসের ভিত্তিতে ৩৭২ জনকে আনা হলো তালিকায় তা অস্পষ্ট। যাঁরা কাজে আসেন না, অদক্ষ তাঁদের রেল বের করে দিলে সংগঠনের করার কিছু নেই। কিন্তু যাঁরা দক্ষ, নিয়মিত কাজে আসেন তাঁদের সরালে চরম পদক্ষেপ করবে কর্মী সংগঠন। আন্দোলন এতটাই তীব্র হবে যে, রেল প্রশাসন চিন্তা করতে পারবে না তার গতিমুখ নিয়ে। অবিলম্বে উপযুক্ত পদক্ষেপ করুক রেল বলে তিনি হুমকি দেন।

[আরও পড়ুন: জেলা প্রশাসনের ডাকা বৈঠকে গরহাজির বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ, অধরাই রইল সমাধান সূত্র]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement