১৩ মাঘ  ১৪২৯  শনিবার ২৮ জানুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

সাময়িক স্বস্তিতে অনুব্রত, ৭ ডিসেম্বর অবধি স্থগিত কেষ্টর দিল্লি যাত্রা

Published by: Paramita Paul |    Posted: December 1, 2022 12:15 pm|    Updated: December 1, 2022 12:32 pm

ED not allowed to take Anubrata Mandal to Delhi till 7th December | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আপাতত দিল্লি যেতে হচ্ছে না অনুব্রত মণ্ডলকে (Anubrata Mandal)। তৃণমূল নেতার আইনজীবী কপিল সিব্বল অন্য কাজে ব্যস্ত। তাই বৃহস্পতিবার এই শুনানি পিছিয়ে দেওয়ার আরজি জানানো হয়েছিল অনুব্রতর তরফে। শুনানি পিছিয়ে দেওয়ার আবেদনে আপত্তি জানায়নি এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেটের (Enforcement Directorate) আইনজীবীও। ফলে এদিন দিল্লি হাই কোর্টে শুনানি হয়নি। মামলার পরবর্তী শুনানি ৭ ডিসেম্বর। ততদিন আসানসোলের জেলেই থাকবেন বীরভূমের দাপুটে তৃণমূল নেতা।

গরু পাচার মামলায় অনুব্রতকে গ্রেপ্তার করেছে ইডি। তাঁকে দিল্লি নিয়ে গিয়ে জেরা করতে চায় তারা। এই আরজি নিয়ে দিল্লির রাউস অ্যাভিনিউ কোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিল ইডি। পালটা এই আরজি খারিজের দাবি নিয়ে দিল্লি হাই কোর্টে মামলা করেন অনুব্রত। সেখানে তাঁর হয়ে সওয়াল করার কথা কপিল সিব্বলের। এদিন সেই মামলার শুনানি ছিল। কিন্তু অনুব্রতর তরফে জানানো হয়, সুপ্রিম কোর্টে সাংবিধানিক বেঞ্চের শুনানিতে ব্যস্ত রয়েছেন পোড় খাওয়া আইনজীবী সিব্বল। তাই মামলার শুনানি পিছিয়ে দেওয়ার আরজি জানানো হয়। আদালতের তরফে ইডির আইনজীবীর কাছে জানতে চাওয়া হয়, এতে তাদের কোনও আপত্তি আছে কিনা। ইডি জানায়, তাদের আপত্তি নেই। এরপরই মামলার শুনানি পিছিয়ে দেওয়া হয়। ফলে ৭ ডিসেম্বর অবধি কেষ্টকে দিল্লি নিয়ে যেতে পারবে না ইডি। 

[আরও পড়ুন: পঞ্চায়েত নির্বাচনের আগে কাশীপুরে উদ্ধার বিপুল পরিমাণ বিস্ফোরক ও অস্ত্র, গ্রেপ্তার ২]

আগামিকাল রাউস অ্য়াভিনিউ আদালতে ইডির আরজির শুনানি রয়েছে। কিন্তু হাই কোর্টে মামলার শুনানি পিছিয়ে যাওয়ায় সেই শুনানি হবে কি না, তা নিয়েও অনিশ্চয়তা তৈরি হল। 

প্রসঙ্গত, অনুব্রতর দাবি, গরু পাচার সংক্রান্ত সমস্ত ঘটনা ঘটেছে বাংলায়। তাহলে কেন দিল্লিতে এনে তাঁকে জেরা করা হবে? এই প্রশ্ন তুলে দিল্লি হাই কোর্টের দ্বারস্থ হলেন তৃণমূলের জেলা সভাপতি। এ প্রসঙ্গে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের আবেদন ও সুপ্রিম কোর্টের নির্দেশের প্রসঙ্গ টানা হয়েছে। তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদকের আরজির প্রেক্ষিতের আদালত জানিয়েছিল, দিল্লি নয়, জেরা করা হোক কলকাতাতেই। যদিও ইডির আইনজীবীর পালটা দাবি, অভিষেকের বিষয়টা সম্পূর্ণ আলাদা। অনুব্রত তো ইতিমধ্যেই ধৃত। তাকে দিল্লি আনতে অসুবিধা কোথায়?

[আরও পড়ুন: ডিসেম্বরের শুরুতেই কার্যত উধাও শীত, কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গে বাড়ল তাপমাত্রা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে