BREAKING NEWS

১৬ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  শনিবার ৩ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

মোদির উদ্যোগেই যুদ্ধবিরতি, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধ প্রসঙ্গে লোকসভায় দাবি বিদেশমন্ত্রীর

Published by: Biswadip Dey |    Posted: March 15, 2022 5:49 pm|    Updated: March 15, 2022 7:05 pm

External Affairs Minister Dr. S Jaishankar makes a statement on the situation in Ukraine in Lok Sabha। Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির (PM Narendra Modi) উদ্যোগেই ইউক্রেন-রাশিয়ার (Russia-Ukraine War) মধ্যে যুদ্ধবিরতি সম্ভব হয়েছে। বুধবার লোকসভায় এমনই দাবি করলেন বিদেশমন্ত্রী এস জয়শংকর (S Jaishankar)। এদিকে যুদ্ধবিধ্বস্ত দেশটিতে আটকে থাকা ভারতীয় পড়ুয়াদের দেশে ফেরাতে বিদেশমন্ত্রক যে পদক্ষেপ করেছে, তার প্রশংসায় পঞ্চমুখ হতে দেখা গিয়েছে কংগ্রেসকেও!

ঠিক কী বলেছেন বিদেশমন্ত্রী? তাঁর দাবি, রুশ-ইউক্রেন যুদ্ধের মাঝে অল্প সময়ের জন্য বেশ কয়েকবার যুদ্ধবিরতি ঘোষিত হয়েছে। আর এর পিছনে রয়েছে প্রধানমন্ত্রীর সদর্থক ভূমিকা। তিনি জানিয়েছেন, ইউক্রেন ও রাশিয়ার প্রেসিডেন্টদের সঙ্গে মোদির কথোপকথনের ফলেই যুদ্ধবিরতি সম্ভব হয়েছে।

[আরও পড়ুন: যাবজ্জীবন সাজাপ্রাপ্ত ১৪৫ জন বন্দি মুক্তি, মানবিক সিদ্ধান্ত রাজ্য সরকারের]

এদিন ইউক্রেন যুদ্ধ প্রসঙ্গে বলতে গিয়ে কিয়েভে গোলার আঘাতে ভারতীয় পড়ুয়া নবীন শেখরাপ্পার মৃত্যুতে গভীর শোকপ্রকাশও করেছেন তিনি। সেই সঙ্গে আহত ভারতীয় পড়ুয়া হরজ্যোত সিংয়ের প্রসঙ্গে তিনি জানিয়েছেন তাঁর চিকিৎসার সমস্ত ব্যয়ভার সরকার বহন করেছেন। এবং তাঁকে বিশেষ বিমানে দেশে ফেরানোর ব্যবস্থাও করা হয়েছে বলে জানান বিদেশমন্ত্রী।

এদিকে আটক ভারতীয়দের ফেরাতে বিদেশমন্ত্রকের ভূমিকার ঢালাও প্রশংসা করেছে কংগ্রেস। প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী ও বর্ষীয়ান কংগ্রেস সাংসদ আনন্দ শর্মা রাজ্যসভায় দাবি করেছেন, বিদেশমন্ত্রক যে কাজ করেছে তা সহজ ছিল না।

[আরও পড়ুন: ‘ইসলামে হিজাব বাধ্যতামূলক নয়’, শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ধর্মীয় পোশাক বিতর্কে রায় কর্ণাটক হাই কোর্টের]

গত ২৪ ফেব্রুয়ারি ইউক্রেনে ঢুকে পড়েছিল রুশ সেনা। তারপর থেকেই সেদেশে আটকে পড়া ভারতীয়দের নিয়ে শুরু হয় উদ্বেগ। এরপরই শুরু হয় আটক ভারতীয়দের দেশে ফেরানোর প্রক্রিয়া। সরকারের দাবি, এই মুহূর্তে ইউক্রেনে আর কোনও ভারতীয়ই আটকে নেই। যাঁরা দেশে ফেরেননি, তাঁরাও ইউক্রেনের প্রতিবেশী দেশগুলিতে রয়েছেন। শীঘ্রই তাঁরা দেশে ফিরবেন। যদিও বিরোধীদের দাবি, এখনও বেশ কিছু ভারতীয় রয়ে গিয়েছে যুদ্ধবিধ্বস্ত ইউক্রেনে।

এরই মধ্যে রবিবার ইউক্রেন ইস্যু নিয়ে উচ্চ পর্যায়ের বৈঠকে বসেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। রবিবার যুদ্ধ পরিস্থিতি সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনার পাশাপাশি প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে আত্মনির্ভরতা নিয়েও আলোচনা হয়। প্রতিরক্ষা ক্ষেত্রে ভারতকে আত্মনির্ভর হওয়ার ডাক দিয়েছেন মোদি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে