BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২৭ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

দুঃসংবাদ! এবার থেকে পাসবই আপডেট করতেও টাকা নেবে ব্যাঙ্ক

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: January 11, 2018 10:12 am|    Updated: January 11, 2018 10:18 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নোট বাতিলের পর ফের বড়সড় দুঃসংবাদ শোনাতে চলেছে মোদি সরকার। দ্রুতই ব্যাঙ্কের যাবতীয় ফ্রি সার্ভিস বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। এবার থেকে ব্যাঙ্কে যে কোনও কাজের জন্যই খরচ করতে হবে নগদ টাকা। যেমন ধরা যাক পাসবই আপডেট বা মোবাইল নম্বর আপডেট। দ্রুতই এই কাজগুলির জন্যই আলাদা আলাদা করে চার্জ ধার্য করা হবে। ইতিমধ্যেই কয়েকটি ব্যাঙ্ক এই প্রক্রিয়া শুরু করে দিয়েছে আংশিকভাবে। দ্রুতই স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া-সহ অন্যান্য রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কগুলিও এই একই পথে হাঁটতে পারে বলে জানিয়েছে সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম ‘ফিনান্সিয়াল এক্সপ্রেস’।

[SBI গ্রাহকদের জন্য সুখবর, কমছে ন্যূনতম টাকা রাখার পরিমাণ]

তাদের সাম্প্রতিকতম রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে, প্রত্যেক অ্যাকাউন্টধারীকেই এবার থেকে ব্যাঙ্কের যাবতীয় পরিষেবার জন্য নগদ টাকা খরচ করতে হবে। ইতিমধ্যেই ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া ঘোষণা করেছে, ২০ জানুয়ারি থেকে কোনও গ্রাহক তাঁর মোবাইল নম্বর বা বাড়ির ঠিকানা বদলাতে চাইলে ২৫ টাকা খরচ করতে হবে। ডুপ্লিকেট পাসবুকের জন্য এখন কোনও টাকা না লাগলেও ২০ জানুয়ারি থেকে লাগবে ৫০ টাকা করে, দাবি ওই রিপোর্টে। ২০ তারিখের পর থেকে ইন্টারেস্ট সার্টিফিকেট পেতেও লাগবে ৫০ টাকা করে। KYC সংক্রান্ত কোনও নথি আপডেট করতে লাগবে ৫০ টাকা করে।

[পাসবুক আপডেটেই মিলছে ১ লক্ষ টাকা! জনস্রোত আছড়ে পড়ল ব্যাঙ্কে]

রিপোর্টে দাবি করা হয়েছে, এটিএম থেকে টাকা তুলতে বা ডিজিটাল লেনদেন করতে এখন বাড়তি চার্জ দিতে হয় না। কিন্তু ২০ তারিখের পর থেকে তাতেও বসছে নয়া চার্জ। প্রতিবার এটিএম থেকে টাকা তুলতে দিতে হবে ওই চার্জ। ইন্টারনেট মারফত কাউকে টাকা পাঠাতে বা লেনদেন করতেও বাড়তি টাকা লাগবে। এভাবে এক ধাক্কায় ফ্রি সার্ভিস উঠে যাওয়ার খবরে মাথায় হাত পড়ে গিয়েছে মধ্যবিত্তর। সাধারণ মানুষ কষ্টের রোজগারের খানিকটা টাকা ব্যাঙ্কে রাখার চেষ্টা করেন ভবিষ্যতের জন্য। কিন্তু নোট বাতিলের পর থেকে যেভাবে সরকারি ও বেসরকারি ব্যাঙ্কগুলি নতুন নতুন নিয়ম চালু করছে- তাতে যেন এখন ব্যাঙ্কে টাকা রাখাটাও একটা বড় খরচের কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে।

[ব্যাঙ্ক ম্যানেজারের নাম করে ফোন, প্রতারকদের থেকে সাবধান]

সম্প্রতি স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া নিয়ম চালু করে, গ্রাম ও শহরের অ্যাকাউন্টধারীরা সেভিংস অ্যাকাউন্টে ন্যূনতম কিছু টাকা না রাখলে পেনাল্টি দিতে হবে। প্রতিবাদে গর্জে ওঠেন দেশের মানুষ। অনেকেরই মাসের শেষে কয়েক হাজার টাকাও থাকে না অ্যাকাউন্টে। সেক্ষেত্রে তাঁরা পেনাল্টি দেবেন না নিজের নিত্যপ্রয়োজনীয় দরকারের টাকা তুলে খরচ করবেন? অ্যাকাউন্টে ন্যূনতম ব্যালেন্স রাখতে হিমশিম খাচ্ছেন বহু সাধারণ নাগরিকই। শহুরে এলাকায় এসবিআই অ্যাকাউন্টে ন্যূনতম ৩০০০ টাকা রাখতেই হয়। টাকার অঙ্ক না কমালে সাধারণ মানুষ ব্যাঙ্কটির দিক থেকে মুখ ফিরিয়ে নিতে পারেন বলে মনে করা হচ্ছে। শেষমেশ চাপে পড়ে ওই নিয়ম প্রত্যাহারের পথে হাঁটছে স্টেট ব্যাঙ্ক। যদিও ঠিক কবে থেকে, সেটা এখনও স্পষ্ট।  ক্ষোভের আঁচ পেয়েই এসবিআই এখন ভাবছে, এই মিনিমাম ব্যালেন্স এক হাজার টাকায় নামিয়ে আনার কথা। তাও প্রতি তিন মাসে। যদিও এই সিদ্ধান্তে এখনও সিলমোহর পড়েনি। প্রথম দিকে তো ব্যাঙ্কটি মেট্রো শহরে অন্তত ৫ হাজার টাকা না রাখলে জরিমানা করছিল, পরে তা কমিয়ে তিন হাজারে নামিয়ে আনা হয়। কিন্তু সাধারণ মানুষের ব্যাঙ্কে ওই ক’টা টাকাও মাসের শেষে থাকে না।

[SBI-তে অ্যাকাউন্ট রয়েছে, এই খবরটি জানেন কি?]

আপাতত ব্যাঙ্কের ফ্রি পরিষেবা শেষ হয়ে যাওয়ার খবরে দেশ জুড়ে আলোড়ন পড়ে গিয়েছে। যদিও আর একটি সূত্র এই খবরের সত্যতা স্বীকার করেনি। ভারতীয় ব্যাঙ্ক অ্যাসোসিয়েশন-এর একটি সূত্রকে উদ্ধৃত করে আর এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি জানিয়েছে, সোশ্যাল মিডিয়াতে যে খবর ছড়িয়েছে তা ভুয়ো। এবছরের ২০ জানুয়ারি থেকে ব্যাঙ্কের ফ্রি সার্ভিস মোটেও বন্ধ হয়ে যাচ্ছে না। যদিও তারা এও জানিয়েছে, একগুচ্ছ পরিষেবার দাম নিয়ে নিয়মিত চিন্তাভাবনা করছে কেন্দ্র। তবে এখনই কোনও ফ্রি পরিষেবার জন্য পয়সা খরচ করতে হচ্ছে না গ্রাহকদের। সংগঠনটি এক বিবৃতিতে জানিয়েছে, ‘জনগণকে সতর্ক করে জানানো হচ্ছে, আরবিআই এরকম কোনও নির্দেশ জারি করেনি। সোশ্যাল মিডিয়াতে যে খবর ছড়াচ্ছে তা সম্পূর্ণ ভুয়ো।’

[এবার SBI এটিএম থেকে টাকা তুললে কত চার্জ দিতে হবে জানেন?]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement