BREAKING NEWS

১৭  আষাঢ়  ১৪২৯  শনিবার ২ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘করোনা থেকে বাঁচতে চড়া রোদে গিয়ে বসুন’, নয়া নিদান দিয়ে বিতর্কে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অশ্বিনী চৌবে

Published by: Sucheta Chakrabarty |    Posted: March 19, 2020 5:25 pm|    Updated: March 19, 2020 5:25 pm

'Go and sit in the Sun': Ashwini Choubey give advice to prevent Corona

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা থেকে বাঁচতে বিশেষজ্ঞদের পর এবার নয়া নিদান দিলেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অশ্বিনী চৌবে। এই মারণ ভাইরাসের হাত থেকে রক্ষা পেতে চড়া রোদে পনেরো মিনিট বসে থাকার পরামর্শ দেন কেন্দ্রীয়মন্ত্রী। তবে শুধু অশ্বিনী চৌবে নন, করোনা দমনে তাঁর মত রকমারি নিদান দিয়েছেন কয়েকজন বিজেপি নেতারা।

নভেল করোনাভাইরাস দমন করতে দেশবাসীকে নয়া নিদান দিয়ে বিতর্কের মুখে কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অশ্বিনী চৌবে। এদিন সংসদ থেকে বেরিয়ে এসে তিনি মন্তব্য করেন,”প্রতিদিন বেলা ১১টা থেকে দুটোর মধ্যে সূর্যের তাপ থাকে সবচেয়ে বেশি। এই সময়ে রোদে বসলেই শরীরে তৈরি হবে ভিটামিন-ডি। এতে রোগ প্রতিরোধের ক্ষমতা বৃদ্ধি পাবে মানুষের মধ্যে। আর তারা করোনাতেও আক্রান্ত হলেও মারা পড়বেন না।”

প্রতিদিনই করোনা মোকাবিলা করতে রাজ্যের মন্ত্রীদের নিয়ে বৈঠক সারছেন মুখ্যমন্ত্রীরা। বুধবার রাতেই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী প্রত্যেক সাংসদ ও মন্ত্রীর কাছে আবেদন জানিয়েছেন, “কেউ যেন মহামারী নিয়ে অবৈজ্ঞানিক মন্তব্য না করেন।” গত সোমবার স্বাস্থ্যমন্ত্রক থেকে করোনাভাইরাস নিয়ে তিন পাতার নির্দেশিকা প্রকাশ করা হয়। তাতে অবশ্য কোথাও লেখা নেই যে রোদে থাকলে করোনাভাইরাস সংক্রমণ রুখতে সুবিধা হয়। এমনকি এইমসের চিকিৎসক জানান,”গরম বাড়লেই করোনা দমন হবে এই ভারণা ভ্রান্ত।” করোনা দমনে বিভিন্ন ধর্মীয় সংগঠনগুলি গোমূত্র বা গোমূত্র দেওয়া হ্যান্ড স্যানিটাইজারের ভরসা রেখেছে। কেউ আবার আতঙ্কে গোমূত্র খাওয়ার পার্টেও করছেন। অশ্বিমী চৌবের এই মন্তব্যে বিতর্ক শুরু হয়েছে রাজনৈচিক মহলে কিছু রাজনৈতিক নেতারা বলছেন,”মানুষেক শরীরে ভিটামিন-ডি তারি করতে সূর্যরশ্মির তুলনা হয় না একথা ঠিকই। কিন্তু এর সঙ্গে করোনা দমনের কোনও সম্পর্ক থাকতেই পারেন না।”

[আরও পড়ুন:অ্যাথলিটদের ক্ষোভের জের, টোকিও অলিম্পিক বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিচ্ছে IOC!]

ইতিমধ্যেই করোনাকে বিশ্বে মহামারির আখ্যা দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা ‘হু’। বিশ্বে এপর্যন্ত করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হল সাত লক্ষ, মৃত্যু হয়েছে সাড়ে নয় হাজারের বেশি মানুষ। এই ভাইরাসকে নির্মূল করার জন্য কোমর বেঁধে নেমেছেন অস্ট্রেলিয়ার বিজ্ঞানীরা। জোরদার কাজ চলছে ইজরায়েল, চিন এমনকি ভারতেও।

[আরও পড়ুন:করোনা রুখতে আগামিকাল সব রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে বৈঠক প্রধানমন্ত্রীর]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে