BREAKING NEWS

১৩ কার্তিক  ১৪২৭  শুক্রবার ৩০ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

GST সংক্রান্ত আইন লঙ্ঘন কেন্দ্রের! প্রকাশ্যে ক্যাগের বিস্ফোরক রিপোর্ট

Published by: Biswadip Dey |    Posted: September 25, 2020 6:45 pm|    Updated: September 25, 2020 6:45 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: জিএসটি-র (GST) ক্ষতিপূরণকে কেন্দ্র করে নিজেই নিজের নিয়ম ভেঙেছে ভারত সরকার! ‘দ্য কম্পট্রোলার অ্যান্ড অডিটর জেনারেল অফ ইন্ডিয়া’ বা ক্যাগের (CAG) বিস্ফোরক দাবি এমনটাই। ৪৭ হাজার ২৭২ কোটি টাকা জিএসটি কমপেনসেশন সেস ফান্ডে পাঠায়নি কেন্দ্র। সিএফআইতে এই টাকা ফেরত দেয় সরকার। ২০১৭-১৮ ও ২০১৮-১৯ দুই অর্থবর্ষের ঘটনা থেকে পরিষ্কার কেন্দ্র আইন লঙ্ঘন করেছে।

ক্যাগের দাবি, ওই টাকা সিএফআইতে দেওয়ার পর সরকার তা অন্য খাতে খরচ করেছে। প্রসঙ্গত, কয়েকদিন আগে সংসদের বাদল অধিবেশনে অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারামণ (Nirmala Sitharaman) জানিয়েছিলেন, আইনে জিএসটির ক্ষতি বাবদ রাজ্যগুলিকে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার কোনও বিধান নেই।

[আরও পড়ুন: মন্দার আশঙ্কা কমিয়েছে মোদির ‘আত্মনির্ভরতা’র ডাক, প্রশংসা আইএমএফের]

ক্যাগের আরও অভিযোগ, খনিজ ট্রাস্ট, তেল শিল্প উন্নয়ন ও পরিকাঠামো ইত্যাদি খাতের শুল্ক হিসেবে সংগৃহীত ফান্ডের অর্থও নির্দিষ্ট ফান্ডে স্থানান্তরিত করা হয়নি।

ক্যাগ জানাচ্ছে, ২০১৮-১৯ অর্থবর্ষে সরকার ২ লক্ষ ৭৪ হাজার ৫৯২ কোটি টাকার শুল্ক সংগ্রহ করেছিল। এর মধ্যে ১ লক্ষ কোটি টাকা পাঠিয়ে দেওয়া হয় সিএফআইয়ে।

জিএসটি কম্পেনসেশন সেস অ্যাক্টের আইন অনুযায়ী, সারা বছর যে জিএসটি সংগৃহীত হবে তা রাখা হবে জিএসটি কম্পেনসেশন ফান্ডে। ওই অ্যাকাউন্টটি পাবলিক অ্যাকাউন্ট হিসাবে গণ্য হয়। আইন অনুযায়ী, এই অ্যাকাউন্ট থেকে রাজ্যগুলিকে টাকা দেওয়া যাবে। তবে তা কেবলমাত্র তাদের রাজস্বে ঘাটতি পড়লেই। দেশজুড়ো কোভিড-১৯ মহামারীর প্রকোপের সময় সব রাজ্যই এই আইনটির সাহায্য চায় সেই সময়ই অর্থমন্ত্রী একথা বলেন। এবার ক্যাগের রিপোর্টেই ধরা পড়ল গণ্ডগোল।

[আরও পড়ুন: প্রকাশ্যে টাঙানো হবে অভিযুক্তের ছবি, মহিলাদের যৌন হেনস্তা রুখতে নির্দেশ যোগীর]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement