৩০ আশ্বিন  ১৪২৬  শুক্রবার ১৮ অক্টোবর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের পর এবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির বিমান যাওয়ার জন্য পাক আকাশসীমা ব্যবহারের অনুমতি চাইল ভারত। এই সপ্তাহের শেষেই নিউ ইয়র্ক যাবেন প্রধানমন্ত্রী। নরেন্দ্র মোদির মার্কিন সফরের জন্য পাকিস্তানের আকাশসীমা ব্যবহারের অনুমতি চেয়ে পাক সরকারের কাছে বিদেশমন্ত্রকের তরফে আবেদন করা হয়। কিন্তু, সেই অনুরোধ রাখল না ইসলামাবাদ। পাকিস্তানের তরফে জানানো হয়েছে, কাশ্মীরে কারফিউ না ওঠা পর্যন্ত ভারতের সঙ্গে কোনও বিষয়ে কোনও আলোচনা তাঁরা চান না।

আরও পড়ুন: রানুর পর বিনোদ, শানুর গান গেয়ে এবার নেটদুনিয়ায় ভাইরাল উবের চালক]

কাশ্মীরে ৩৭০ ধারা বিলোপ হওয়ার পর ভারতের ‘বেপরোয়া মনোভাবের প্রতিবাদে’ নিজেদের আকাশসীমা বন্ধ করে দেয় পাকিস্তান। শুধু তাই নয়, ভারতের সঙ্গে সমস্তরকম কূটনৈতিক এবং বাণিজ্যিক সম্পর্কও ছিন্ন করে ইমরান খানের সরকার। পাকিস্তান কূটনৈতিক বা বাণিজ্যিক সম্পর্ক ছিন্ন করায় ভারতের তেমন লোকসান হয়নি। উলটে পাকিস্তানেরই ক্ষতি হয়েছে। তবে, পাক আকাশসীমা বন্ধ থাকায় ভারত সরকার তথা বিমানসংস্থাগুলি খানিকটা অসুবিধায় পড়েছে। মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলিতে যেতে বেশ সমস্যায় পড়তে হচ্ছে ভারতকে। কদিন আগেই রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের বিমান ওড়ার অনুমতি চেয়েছিল ভারত। কিন্তু, পাক সরকার ঔদ্ধত্য দেখিয়ে সেই অনুমতি দেয়নি। এবারে সরাসরি মোদির বিমান ওড়ার অনুমতি চাইল ভারত। কিন্তু, সেই অনুরোধ না রেখে আবারও ঔদ্ধত্যের পরিচয় দিলেন পাক প্রধানমন্ত্রী। উল্লেখ্য, এর আগেও একবার প্রধানমন্ত্রীর বিমান ওড়ার অনুমতি দেয়নি পাকিস্তান। 

[আরও পড়ুন: ‘পাক অধিকৃত কাশ্মীর একদিন ভারতের অধীনে আসবেই’, হুংকার বিদেশমন্ত্রী জয়শংকরের]

বালাকোট এয়ারস্ট্রাইকের পর ভারতের জন্য নিজেদের আকাশসীমা পুরোপুরি বন্ধ করে দেয় পাকিস্তান।  সেটা ছিল ২৬ ফেব্রুয়ারি। তারপর থেকে দীর্ঘদিন বন্ধ ছিল পাকিস্তানের অধিকাংশ এয়ার রুট। বালাকোট হামলার প্রায় ১৪০ দিন পর আকাশপথ খোলে পাকিস্তান। এই ১৪০ দিনে প্রায় ৪৯১ কোটি টাকা ক্ষতি হয়েছে লোকসানের ভারে ধুঁকতে থাকা এয়ার ইন্ডিয়ার৷ দ্বিপাক্ষিক আলোচনার পর আকাশপথ খুললেও, ভারত ৩৭০ ধারা বাতিলের পর আবার তা বন্ধ করে পাকিস্তান। এর ফলে, মধ্যপ্রাচ্যের কিছু দেশে যেতে অসুবিধা হয় ভারতের। যেতে হয় অন্য রুট দিয়ে ঘুরে।

 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং