BREAKING NEWS

১৬ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  শনিবার ৩০ মে ২০২০ 

Advertisement

‘এখন মসজিদে থাকলে আল্লাহ রক্ষা করবে’, ফাঁস তবলিঘি জামাতের মৌলানার অডিও বার্তা

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: April 2, 2020 10:08 am|    Updated: April 2, 2020 12:38 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দিল্লির নিজামউদ্দিন মারকাজে তবলিঘি জামাত নিয়ে উত্তাল গোটা দেশ। মুসলিমদের ধর্মীয় অনুষ্ঠানের সঙ্গে যুক্ত ছিলেন প্রায় ৯ হাজার মানুষ। তাঁদের মধ্যে সিংহভাগই COVID-19 আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা করা হচ্ছে। লকডাউনে নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে জমায়েতের গুরুতর অভিযোগ উঠেছে ধর্ম প্রচারকদের বিরুদ্ধে। এরই মধ্যে তবলিঘি জামাতের প্রধান মৌলানা মহম্মদ সাদ কান্ধালভির একটি অডিও ক্লিপ ভাইরাল হয়েছে। একটি সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের রিপোর্ট অনুযায়ী, সেই অডিও ক্লিপে বিতর্কিত মন্তব্য করেছেন মৌলানা। সেই অডিও বার্তায় কান্ধালভিকে বলতে শোনা গিয়েছে, অনুগামীরা যেন মসজিদেই থাকে, আল্লাহ তাঁদের রক্ষা করবে।

দিল্লি পুলিশ এই অডিও ক্লিপটি নিয়ে তদন্ত শুরু করেছে। অন্যতম অভিযুক্ত এই মৌলানা কান্ধালভির কোনও হদিশ পাওয়া যাচ্ছে না। নিষেধাজ্ঞা অমান্য জমায়েতের অভিযোগ উঠেছে তাঁর বিরুদ্ধে। অডিও বার্তায় তাঁকে বলতে শোনা গিয়েছে, ‘যদি তোমরা মনে করো মসজিদে জমায়েত করলে তোমরা মারা যাবে, তাহলে আমি বলি, এর থেকে ভাল জায়গা নেই মৃত্যুর জন্য।’ মনে করা হচ্ছে, যে সময় এই কথাগুলি বলছিলেন কান্ধালভি সেইসময় মারকাজে প্রচুর মানুষ ভিড় করেছিলেন। তিনি এও বলেন যে, ‘ডাক্তাররা বলেছেন বলে এই সময় প্রার্থনা বা মানুষের সঙ্গে মেলামেশা ত্যাগ করা উচিত নয়। আল্লাহ যখন এই রোগ দিয়েছেন তখন কোনও চিকিৎসক, কোনও ওষুধ আমাদের রক্ষা করতে পারবে না।’

[আরও পড়ুন: নিজামুদ্দিনের জমায়েত থেকে করোনা হতে পারে ৯ হাজার জনের! উদ্বেগে কেন্দ্র]

যদিও দিল্লি পুলিশকে মারকাজ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছিল, তাঁরা করোনা সংক্রমণ রুখতে সরকারি নির্দেশ মেনেই সবকিছু করেছে। কিন্তু কান্ধালভি অডিও বার্তা সম্পূর্ণ উলটো কথা বলছে। মৌলানাকে এও বলতে শোনা গিয়েছে, ‘এই সময় মসজিদগুলিতে জমায়েত বাড়ানো উচিত। আমার খুব দয়া হয় তাঁদের উপর যাঁরা বলছেন, এখন মসজিদে নমাজ পড়া বা যাওয়া উচিত নয়। এটা মসজিদ ছেড়ে পালানোর সময় নয়। যদি আমরা মসজিদে থাকি তাহলে আল্লাহ বিশ্বকে শান্ত করবে।’

[আরও পড়ুন: ৫টি ট্রেনে জামাত সদস্যদের সংস্পর্শে থাকা যাত্রীদের খোঁজে রেল, চলছে জোর তল্লাশি]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement