BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ভারতীয় সেনার বিরুদ্ধে বিদ্বেষমূলক টুইটের জের, মামলা JNU-এর পড়ুয়ার বিরুদ্ধে

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: July 25, 2020 8:09 pm|    Updated: July 25, 2020 8:09 pm

An Images

সাজিব বিন সৈয়দ (ফাইল ফটো)

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতীয় সেনা (Indian Army) ও রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘ (RSS) -এর বিরুদ্ধে সোশ্যাল মিডিয়াতে বিদ্বেষমূলক টুইট করেছিল। এর জেরে জওহরলাল নেহেরু বিশ্ববিদ্যালয়ের এক ছাত্রের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করল দিল্লি পুলিশ। অভিযুক্ত ওই ছাত্রের নাম সাজিব বিন সৈয়দ।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ক্যাম্পাস ফ্রন্ট অফ ইন্ডিয়া নামে একটি সংগঠনের সভাপতি সৈয়দ সম্প্রতি একটি টুইট করেছিল। তাতে ভারতীয় সেনা ও আরএসএসের বিরুদ্ধে তোপ দেগে সে লিখেছিল, আরএসএসের নির্দেশে কাশ্মীরে গণহত্যা চালাচ্ছে ভারতীয় সেনা। বিজেপি সরকার উচিত অবিলম্বে ক্ষমতা দখলের মনোভাব ছেড়ে রাষ্ট্রসংঘ যে কাশ্মীরিদের আত্মনিয়ন্ত্রণের অধিকারকে স্বীকৃতি দিয়েছে তাকে মান্যতা দেওয়া। বর্তমানে কাশ্মীরে যা চলছে তাতে আন্তর্জাতিক সংগঠনগুলিরও এই বিষয়ে হস্তক্ষেপ করা উচিত।

[আরও পড়ুন: রাম মন্দিরের ভূমি পুজোর দিন অযোধ্যায় অকাল দিওয়ালি, প্রস্তুতি খতিয়ে দেখে জানালেন যোগী]

ওই টুইটে কেন্দ্রের বিজেপি সরকার কাশ্মীরিদের ঐতিহ্যকে ধ্বংস করতে চাইছে বলেও অভিযোগ করে সৈয়দ। তার কথায়, বর্তমানে বিশ্বের সবথেকে বেশি সেনা কাশ্মীরেই মোতায়েত করা হয়েছে। প্রতিদিন সেখানে মানবাধিকার লঙ্ঘনেরও ঘটনা ঘটছে। আসলে ইজরায়েল যেমন প্যালেস্তাইনকে দখল করার চেষ্টা চালাচ্ছে তেমনি কাশ্মীরের ঐতিহ্যকে ধ্বংস করে তা দখল করার চেষ্টা করছে কেন্দ্র। তবে ইজরায়েল যেমন নিজেদের লক্ষ্যপূরণ করতে পারেনি এখানেও একই ঘটনা ঘটবে।

শনিবার জেএনইউ (JNU) -এর ওই পড়ুয়ার বিরুদ্ধে দিল্লি পুলিশের তরফে জানানো হয়, গত ৮ জুলাই ভারতীয় সেনার বিরুদ্ধে করা একটি টুইটের জেরে সাজিব বিন সৈয়দের বিরুদ্ধে কাপাশেরা পুলিশ স্টেশনে একটি এফআইআর দায়ের হয়েছে। তদন্ত চলছে।

[আরও পড়ুন: ‘দরকার হলে প্রধানমন্ত্রীর বাসভবনের বাইরেও বিক্ষোভ দেখাব’, হুমকি অশোক গেহলটের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement