BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বিমানে করোনা আক্রান্ত ব্রিটিশ নাগরিক, দ্রুত নামানো হল ২৭০ জন যাত্রীকে

Published by: Sucheta Chakrabarty |    Posted: March 15, 2020 4:20 pm|    Updated: March 15, 2020 4:20 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কেরলের কোচি বিমানবন্দরে উড়ানের জন্য প্রস্তুত ফ্লাই এমিরেটস-এর এক বিমান। কিন্তু হঠাৎ বিপত্তি! টেক অফের আগেই জানা যায় ওই বিমানে রয়েছেন করোনা আক্রান্ত এক ব্রিটিশ নাগরিক। আর তারপরেই বিমানের ২৭০ জন যাত্রীকেই নামিয়ে দেওয়া হয় বিমান থেকে, তৎক্ষণাৎ তাদের হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই তাদের পরীক্ষা করে তারপর ছাড়া হবে।

জানা গিয়েছে, কয়েক দিন আগে ১৯ জনের একটা ব্রিটিশ দল কেরলে এসেছিল। তারা কেরলের মুন্নারে গিয়েছিল। সেখানে থাকাকালীনই তাঁদের মধ্যে একজন করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হন। তাঁকে সেখানের একটি হাসপাতালে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হয়। কিন্তু হঠাৎই কাউকে না বলে সেই ব্যক্তি কোয়ারেন্টাইন থেকে বেরিয়ে কোচি বিমানবন্দরে এসে হাজির হন। দলটির দুবাই ফিরে যাওয়ার কথা ছিল। করোনা আক্রান্ত হওয়ার পর থেকেই ওই ব্রিটিশ নাগরিকের উপর নজর রাখা হয়েছিল। তিনি বিমানবন্দরে আসার পরে বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। সঙ্গে সঙ্গে ওই ব্যক্তিকে বিমান থেকে নামিয়ে আনা হয়।

বিমানবন্দর সূত্রে খবর, প্রথমে চিন্তাভাবনা করা হয়েছিল, ১৯ জনের ওই দলটিকে কোয়ারেন্টাইনে নিয়ে যাওয়া হবে। কিন্তু তারপরে বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ সিদ্ধান্ত নেয়, বিমানের ২৭০ জনকেই নামিয়ে আনা হবে। তাঁদের প্রত্যেককে পরীক্ষা করে দেখা হবে। কারণ ওই ব্যক্তির সংস্পর্শে এসে কেউ করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন কিনা তা পরীক্ষা করে দেখা হবে। এখনও পর্যন্ত অবশ্য কেরল সরকারের তরফে এই বিষয়ে কোনও মন্তব্য করা হয়নি। বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, তারা আগে পরীক্ষা করে তারপর সেই কথা সরকারকে জানাবে।

[আরও পড়ুন: ফের পশ্চিমী ঝঞ্ঝার জের, আগামী ২৪ ঘণ্টায় ধেয়ে আসছে বৃষ্টি]

ইতিমধ্যেই কেরলে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন ২২ জন। তাদের মধ্যে প্রথম ৩ জন ব্যক্তি সুস্থ হয়ে যাওয়ায় তাদের হাসপাতাল থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়। তবে ভারতে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। রবিরার করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ১০৮। ইতিমধ্যেই ২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

[আরও পড়ুন: করোনা আতঙ্ক: সোশ্যাল মিডিয়ায় তারাপীঠ মন্দির বন্ধের গুজব, পুলিশের দ্বারস্থ কমিটি]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement