BREAKING NEWS

১৪ মাঘ  ১৪২৯  রবিবার ২৯ জানুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

নোটে ছবি ছাপা নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার অধিকার কার? পুরনো নোটেরই বা কী হয়?

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: October 29, 2022 4:19 pm|    Updated: October 30, 2022 9:04 am

Lakshmi-Ganesh photos on currency: Who decides what’s printed on banknotes | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কেউ বলছে নোটে ছাপতে হবে লক্ষ্মী-গণেশের ছবি। কারও আবার দাবি লক্ষ্মী-গণেশ নয়, নোটে ছত্রপতি শিবাজী মহারাজের (Shibaji Maharaj) ছবি ছাপা হোক। এক বিজেপি নেতা আবার বলছেন, অন্য কারও নয়, নোটে ছাপা হোক খোদ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির (Narendra Modi) ছবি। দাবি তো উঠছে, কিন্তু এই দাবি পূরণের অধিকার কার হাতে? কে ঠিক করেন নোটের ডিজাইন, বা টাকায় কার ছবি ছাপা হবে? কী বলছে নিয়ম?

Lakshmi-Ganesh photos on currency: Who decides what’s printed on banknotes?
ছবি: প্রতীকী

নিয়ম অনুযায়ী, নোটে ছবি ছাপা বা নোটের ডিজাইন নিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়ার অধিকার পুরোপুরি রিজার্ভ ব্যাংকের (Reserve Bank)। RBI আইনের ২২ নম্বর অনুচ্ছেদ বলছে, নোটের ডিজাইন নিয়ে সিদ্ধান্ত নিতে পারে একমাত্র শীর্ষ ব্যাংকই। যদিও রিজার্ভ ব্যাংকের আইনেরই ৩৫ নম্বর অনুচ্ছেদে বলা হয়েছে, RBI নোটের যে ডিজাইন তৈরি করছে, সেটা একমাত্র কেন্দ্র সরকার অনুমোদন দিলেই প্রকাশ করা যাবে। এমনিতে নোটের ডিজাইন সংক্রান্ত বিষয়টি দেখে রিজার্ভ ব্যাংকের কারেন্সি ম্যানেজমেন্ট বিভাগ। এই বিভাগ যদি নোটে কোনও পরিবর্তনের সুপারিশ করে, সেটাতেও কেন্দ্র সরকারের অনুমোদন নিতে হয়। মোট কথা, নোটের ডিজাইনের ব্যাপারটি খাতায়-কলমে রিজার্ভ ব্যাংকের হাতে থাকলেও পরোক্ষভাবে কেন্দ্রের হাতেই সিদ্ধান্ত নেওয়ার ভার থাকে।

[আরও পড়ুন: ভূমিকম্পেও টলবে না রাম মন্দির! তৈরি হচ্ছে কর্ণাটকের বিশেষ পাথরে]

এতো গেল নতুন নোটের কথা। পুরনো নোটের কী হয়? নিয়ম বলছে, নোটের ডিজাইন বদলে গেলে প্রথমে দুই ধরনের নোট একসঙ্গে বাজারে থাকে। তারপর রিজার্ভ ব্যাংক ধীরে ধীরে পুরনো নোটগুলি বাজার থেকে তুলে নেয়। কয়েনের ক্ষেত্রে আবার কেন্দ্রের অধিকার আরও বেশি। কয়েনের ডিজাইন কী হবে, বা কয়েনের মাপ কী হবে, কী দিয়ে তৈরি হবে, সবটাই কেন্দ্র সরকার ঠিক করে। রিজার্ভ ব্যাংকের দায়িত্ব শুধু সেটা বাজারে ছড়িয়ে দেওয়া।

[আরও পড়ুন: ভূমিকম্পেও টলবে না রাম মন্দির! তৈরি হচ্ছে কর্ণাটকের বিশেষ পাথরে]

মজার কথা হল, স্বাধীনতার পর থেকেই যে ভারতীয় নোটে গান্ধীজির (Mahatma Gandhi) ছবি ছিল, তেমনটা নয়। স্বাধীনতার পর ব্রিটেনের রাজার ছবি সরিয়ে নোটে গান্ধীজির  ছবি দেওয়ার চিন্তাভাবনা শুরু হয়েছিল। কিন্তু সেই ভাবনাকে বাস্তব রূপ দিতে সময় লেগে যায় ১৯৮৭ সাল পর্যন্ত। সেবারই প্রথম গান্ধীর ছবি দিয়ে ৫০০ টাকার নোট ছাপা হয়। তারপর ১৯৯৬ সাল থেকে সব নোটেই গান্ধীজীর ছবি দেওয়াটা দস্তুর হয়ে দাঁড়িয়েছে। ১৯৮৭ সালের আগে ভারতীয় নোটে নানা ধরনের ছবি ব্যবহৃত হত। এর মধ্যে সবচেয়ে উল্লেখযোগ হল অশোক স্তম্ভ এবং ইন্ডিয়া গেটের ছবি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে