BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

মুশকিল আসান! দক্ষতা অনুযায়ী পরিযায়ী শ্রমিকদের কাজ দিতে App আনছে কেন্দ্র

Published by: Sucheta Chakrabarty |    Posted: June 10, 2020 5:59 pm|    Updated: June 10, 2020 6:00 pm

An Images

ফাইল ফটো

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লকডাউনের জেরে একের পর এক সমস্যায় পড়েছেন পরিযায়ী শ্রমিকেরা। কখনও বাড়ি ফেরার সমস্যা কখনও বা কাজের। দক্ষতা অনুযায়ী শ্রমিকদের কর্ম সংস্থান করতে এবার নয়া পন্থা অবলম্বন করেছে কেন্দ্র। শ্রমিকদের জন্য বিশেষ অ্যাপ আনার ভাবনা-চিন্তা করছে মোদি সরকার।

পরিযায়ী শ্রমিকদের কর্ম সংস্থান করতে মঙ্গলবারই কেন্দ্র-রাজ্যগুলিকে নির্দেশ দিয়েছিল সুপ্রিম কোর্ট (Supreme Court)। দক্ষতা অনুযায়ী শ্রমিকদের কাজের ব্যবস্থা করারও নির্দেশ দেওয়া হয়। সেই নির্দেশকে মান্যতা দিয়েই মুশকিল আসান করতে মাঠে নামল মোদি সরকার। পরিযায়ীদের জন্য বিশেষ প্রকল্পের ভাবনা চিন্তা শুরু করা হয়েছে কেন্দ্রীয় স্তরে৷ শোনা যায়, লকডাউনের জেরে শ্রমিকদের ক্ষতে মলমের প্রলেপ দিতে প্রধানমন্ত্রী একটি অ্যাপ আনতে চলেছেন। জানা যায়, এই অ্যাপটি শ্রমদপ্তরের সঙ্গে যুক্ত থাকবে৷ এতেই তাঁদের শিক্ষাগত যোগ্যতা এবং কাজের দক্ষতার কথাও উল্লেখ করা থাকবে৷ এর ফলে নিজ নিজ যোগ্যতায় কাজ পাবেন শ্রমিকরা৷

[আরও পড়ুন:করোনায় মৃত ইমামের সচিব, দিল্লিতে ফের বন্ধ করা হচ্ছে জামা মসজিদ]

সমস্যা হল এই পরিযায়ী শ্রমিকেরা সকলেই অসংঠিত ক্ষেত্রে কাজ করেন৷ তাহলে এই বিশাল পরিমাণ শ্রমিককে কীভাবে এক জায়গায় আনা সম্ভব? সেক্ষেত্রে প্রতিটি রাজ্যকে গুরুদায়িত্ব পালনের ভার দেওয়া হবে। কেন্দ্রীয় শ্রমদপ্তর ও স্বরাষ্ট্র দপ্তরের সঙ্গে রাজ্য নিয়মিত যোগাযোগ রাখবে৷ তাদের থেকেই তথ্য নেওয়া হবে৷ সেই তথ্যই তুলে ধরা হবে নতুন তৈরি সিস্টেমে৷ যা শ্রমিকদের কর্ম সংস্থানে সাহায্য করবে। এমনকি যদি কোনও শ্রমিক পরবর্তীকালে স্বাধীনভাবে কাজ করতে চান, তাহলে তাঁকে সেই সুযোগ দেওয়া হবে বলে জানান এক সরকারি আধিকারিক৷

[আরও পড়ুন:লাদাখ সীমান্ত থেকে সরাতে হবে ১০ হাজার সেনা, চিনকে সাফ বার্তা ভারতের]

লকডাউনের জেরে কাজ হারিয়ে বেকারত্বের শিকার হয়েছেন পরিযায়ী শ্রমিকেরা। প্রাণ বাঁচিয়ে ভিন রাজ্য থেকে বাড়ি ফিরতে পারলেও অন্ন জোগানের চিন্তায় দিশেহারা অবস্থা তাঁদের। আনলক ওয়ানের প্রথম পর্বে ধীরে ধীরে কল কারখানা খুললেও শ্রমিকের অভাবে কাজ এগোচ্ছে না৷ কেন্দ্রের তৈরি এই অ্যাপের মাধ্যমে সেই সমস্যার সমাধান হবে বলেই মনে করছে কেন্দ্র৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement