BREAKING NEWS

৮ বৈশাখ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২২ এপ্রিল ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

আম্বানির বাড়ির সামনে বোমা উদ্ধারে চাঞ্চল্যকর মোড়, বিস্ফোরক বোঝাই গাড়ির মালিক মৃত

Published by: Sulaya Singha |    Posted: March 5, 2021 6:30 pm|    Updated: March 5, 2021 6:47 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মুকেশ আম্বানির (Mukesh Ambani) বাড়ির বাইরে গাড়ি থেকে বোমা উদ্ধার রহস্যের সমাধান এখনও করতে পারেনি মুম্বই পুলিশ। তারই মধ্যে শুক্রবার চাঞ্চল্যকর মোড় নিল ঘটনা। যে গাড়িটি থেকে বিস্ফোরক পাওয়া গিয়েছিল, এদিন সেই স্করপিওর মালিক মনসুক হিরেনের মৃতদেহ উদ্ধার করল পুলিশ। প্রাথমিকভাবে পুলিশের অনুমান, আত্মহত্যা করেছেন হিরেন। ব্রিজ থেকে ঝাঁপ দিয়ে তিনি আত্মঘাতী হয়েছেন বলেই জানা যাচ্ছে।

এ ব্যাপারে বিস্তারিত কিছু জানাতে রাজি হননি মুম্বই পুলিশ কমিশনার পরমবীর সিং ও যুগ্ম কমিশনার মিলিন্দ ভরম্বে। শুধু বলেছেন, “তিনি যে আত্মঘাতী হয়েছেন, সে বিষয়টি নিশ্চিত। তবে বিস্তারিত তথ্য পরবর্তীতে দেওয়া হবে।”

[আরও পড়ুন: বিহারের বিষমদ কাণ্ডে ৯ জনকে ফাঁসির সাজা! যাবজ্জীবন চারজনকে]

উল্লেখ্য, গত ২৫ ফেব্রুয়ারি মুকেশ আম্বানির বাড়ি অ্যান্টিলিয়ার বাইরে ২০টি জিলেটিন স্টিক-সহ একটি গাড়ি উদ্ধার করা হয়। ঘটনার পর থেকেই কারমাইকেল রোডের নিরাপত্তা বাড়ানো হয়। আসা ও যাওয়ার প্রত্যেকটি গাড়ি তল্লাশি করে তারপর ছাড়া হয়। মুকেশের বাড়ির বাইরে বিস্ফোরক বোঝাই স্করপিও গাড়িটি রেখে এক ব্যক্তিকে একটি সাদা ইনোভা গাড়ি চেপে চলে যেতে দেখা গিয়েছিল।

এরই মধ্যে আবার চাউর হয়ে যায় জঙ্গি গোষ্ঠী জইশ-উল-হিন্দ (Jaish Ul Hind) এই ঘটনার দায় স্বীকার করেছে। কিন্তু সেই খবরের ২৪ ঘণ্টা কাটতে না কাটতেই জঙ্গি গোষ্ঠীটি স্পষ্ট জানিয়ে দেয়, আম্বানির বাড়ির বাইরে বোমা বোঝাই গাড়ি উদ্ধারের ঘটনার সঙ্গে তাদের কোনও যোগ নেই। আম্বানির সঙ্গে তাদের কোনও শত্রুতাও নেই। ফলে সমাধানসূত্র বের করতে আরও তৎপর হয়ে উঠেছে মুম্বই পুলিশ। ঘটনায় এখনও পর্যন্ত অন্তত ১৫ জনকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। খতিয়ে দেখা হয়েছে শ’খানেক সিসিটিভি ফুটেজও। এবার পরিত্যক্ত গাড়ির মালিকের মৃতদেহ উদ্ধার হওয়ায় রহস্য যে আরও ঘনীভূত হল, তা বলাই বাহুল্য।

[আরও পড়ুন: করোনা টিকার সার্টিফিকেটে মোদির ছবি কেন, স্বাস্থ্যমন্ত্রকের কাছে জবাব তলব কমিশনের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement