১২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  শনিবার ২৮ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

‘টাকার লোভে মা’কে বাড়িছাড়া করেছিল সিধু’, বিস্ফোরক অভিযোগ দিদির, অস্বস্তিতে কংগ্রেস

Published by: Biswadip Dey |    Posted: January 28, 2022 7:32 pm|    Updated: January 28, 2022 7:32 pm

Navjot Sidhu deserted his mother for money, says his sister Suman। Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: আগামী মাসের ২০ তারিখ পাঞ্জাবে বিধানসভা নির্বাচন। তার ঠিক আগেই ভোটমুখী রাজ্যে বেকায়দায় পড়লেন পাঞ্জাব (Punjab) কংগ্রেসের (Congress) প্রধান নভজ্যোৎ সিং সিধু (Navjot Singh Sidhu)। তাঁর বড় দিদি সুমন তুর বিস্ফোরক অভিযোগ করলেন তাঁর বিরুদ্ধে। নিজের ভাইকে ‘নিষ্ঠুর ব্যক্তি’ বলে তোপ দেগে তাঁর অভিযোগ, সিধু নাকি নিজের মা’কে টাকার জন্য বাড়ি থেকেই বের করে দিয়েছিলেন। শেষ পর্যন্ত স্টেশনেই মৃত্যু হয় তাঁর।

শুক্রবার চণ্ডীগড়ে এক সাংবাদিক সম্মেলনে এই বোমা ফাটান সুমন। দাবি করেন, ১৯৮৬ সালে তাঁদের বাবার মৃত্যু হলে তাঁকে ও মা’কে বাড়ি থেকে বের করে দিয়েছিলেন সিধু। পরে ১৯৮৯ সালে স্টেশনে মৃত্যু হয় বৃদ্ধার। সুমন ক্ষোভ উগরে জানিয়েছেন, ”আমরা অনেক কটিন সময় দেখেছি। আমার মা’কে চার মাসের জন্য হাসপাতালেও ভরতি হতে হয়েছিল। আমি যা বলছি তার প্রামাণ্য নথি রয়েছে আমার কাছে।”

[আরও পড়ুন: এবার লক্ষ্মীর ভাণ্ডার প্রকল্পের সুবিধা পেতে নিজের নামে থাকতে হবে ‘সিঙ্গেল অ্যাকাউন্ট’]

সুমন পরিষ্কার জানাচ্ছেন, স্রেফ সম্পত্তির লোভেই সিধু এই কাজ করেছিলেন। তাঁর কথায়, ”আমার বাবা তাঁর পেনশনের টাকা-সহ সব সম্পত্তি এবং একটি বাড়িও রেখে গিয়েছিলেন। সিধু সেই টাকা আত্মসাৎ করতেই নিজের মা’কেও রাস্তায় বের করে দিয়েছিল। আমাদের সিধুর থেকে কোনও টাকার প্রয়োজন নেই।”

এখানেই শেষ নয়। সুমনের অভিযোগ, ১৯৮৭ সালে সিধু একটি সাক্ষাৎকারে নির্জলা মিথ্যে বলেছিলেন। দাবি করেছিলেন, তাঁর মা-বাবার ছাড়াছাড়ি হয়ে গিয়েছিল। কিন্তু এই দাবি একেবারেই ভিত্তিহীন এবং সর্বৈব মিথ্যে। শুধু তাই নয়, একথা জানার পর তাঁর মা আদালতের দ্বারস্থও হয়েছিলেন বলে দাবি সুমনের।

এবারের নির্বাচনে পাঞ্জাবে কংগ্রেসের মুখ্যমন্ত্রীর মুখ কে তা এখনও ঘোষিত নয়। কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী সম্প্রতি জানিয়েছেন, শিগগিরি এব্য়াপারে ঘোষণা করতে পারে দল। বর্তমান মুখ্যমন্ত্রী চান্নিকে মুখ্যমন্ত্রীর মুখ করা হতে পারে এই সম্ভাবনা রয়েছে। কিন্তু এর পাশাপাশি নেতাদের উপরে সিধুর প্রভাবের কারণে শেষ পর্যন্ত তিনিও মুখ্যমন্ত্রীর মুখ হতে পারেন বলে মনে করা হচ্ছে। এই পরিস্থিতিতে দিদির অভিযোগে ভাবমূর্তি ক্ষতিগ্রস্ত হতে পারে তাঁর। এমনটাই মনে করছে ওয়াকিবহাল মহল।

[আরও পড়ুন: ‘তালিবান মনে করে আমার শরীরটাও ওদের’, বিস্ফোরক দাবি একমাত্র আফগান পর্ন তারকার]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে