৬ শ্রাবণ  ১৪২৬  সোমবার ২২ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ‘চৌকিদার চোর হ্যায়’ মন্তব্যের জেরে এবার আরও বিপাকে রাহুল গান্ধী। সুপ্রিম কোর্টে লিখিতভাবে দুঃখপ্রকাশ করার পরও বিপদ কাটছে না কংগ্রেস সভাপতির। মঙ্গলবার নতুন করে রাহুলকে আদালত অবমাননা মামলায় কারণ দর্শানোর নোটিস পাঠাল শীর্ষ আদালত। রাফালে রায় পুনর্বিবেচনার মামলার পাশাপাশি রাহুলের আদালত অবমাননার মামলারও শুনানি হবে বলে জানিয়েছেন প্রধান বিচারপতি রঞ্জন গগৈ।

[আরও পড়ুন: ‘গোমূত্র পান করে আমার স্তন ক্যানসার সেরেছে’, আজব দাবি সাধ্বী প্রজ্ঞার]

সুপ্রিম কোর্ট রাফালের চুরি যাওয়া নথিকে প্রামাণ্য হিসেবে গ্রহণ করার সিদ্ধান্তের পর রাহুল গান্ধী দাবি করেছিলেন সুপ্রিম কোর্টও মেনে নিয়েছে চৌকিদারই চোর। জনসভায় গিয়ে সেকথা ফলাও করে ঘোষণাও করেন কংগ্রেস সভাপতি। সেখানেই শুরু বিপত্তি। বিজেপি অভিযোগ আনে, কংগ্রেস সভাপতি সুপ্রিম কোর্টের পর্যবেক্ষণের ভুল ব্যাখ্যা করে আদালতের অবমাননা করেছেন। এরপরই নোটিস পাঠানো হয় রাহুলকে।

[আরও পড়ুন: দিল্লিতে কংগ্রেসের প্রার্থী তালিকায় চমক, টিকিট পেলেন বক্সার বিজেন্দর সিং]

নোটিসের জবাবে গতকালই রাহুল গান্ধী স্বীকার করে নেন তাঁর ভুল হয়েছে। সুপ্রিম কোর্টের নাম নিয়ে মন্তব্য করা উচিত হয়নি। রাজনৈতিক উত্তেজনায় সুপ্রিম কোর্টের রায় না পড়েই মন্তব্য করে ফেলেছেন। কিন্তু রাহুলের সেই জবাবে সন্তুষ্ট নন মামলাকারী মীনাক্ষী লেখি। এদিন শুনানিতে মীনাক্ষীর আইনজীবী মুকুল রোহতগি বলেন, “রাহুল নিজের মন্তব্যের জন্য শুধুমাত্র দুঃখপ্রকাশ করেছেন। তিনি ক্ষমা চাননি। একজন দলের সভাপতি হওয়া মানেই আপনি সুপ্রিম কোর্টকে জড়িয়ে যা ইচ্ছা বলতে পারেন না।” এরপরই কংগ্রেস সভাপতিকে ফের নোটিস পাঠায় সর্বোচ্চ আদালত। রঞ্জন গগৈ জানান, তিনি এখনও রাহুল গান্ধীর জবাব পড়েননি। তাই এই মামলার শুনানি রাফালে রায় পুনর্বিবেচনা মামলার সঙ্গেই হবে। আগামী ৩০ এপ্রিল দুটি মামলারই পরবর্তী শুনানি হবে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং