BREAKING NEWS

২৬ শ্রাবণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১৩ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

বিশ্বকাপের সেমিফাইনালের জন্যই হয়েছে মুলতুবি রাজ্যসভা! দাবি বিজেপি সাংসদের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: July 9, 2019 5:43 pm|    Updated: July 9, 2019 5:43 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ক্রিকেটের মরশুম চলছে। স্বাভাবিকভাবেই ক্রিকেট জ্বরে আক্রান্ত গোটা দেশ। আলোচনায় এখন শুধু বিরাটের ড্রাইভ, রোহিতের পুল আর বুমরাহর ইয়র্কার। আর এই ক্রিকেট উৎসবের আঁচ থেকে বাদ যায়নি সংসদ ভবনও। সাংসদদেরও রীতিমতো পেয়ে বসেছে বিশ্বকাপ ফিভার। কিন্তু, তা বলে সংসদের আস্ত একটা অধিবেশন বাতিল করা হল, স্রেফ বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল বলে! তেমনটাই নাকি হয়েছে। অন্তত বিজেপি সাংসদ স্বপন দাশগুপ্তের এমনটাই দাবি।

[আরও পড়ুন: নাটকীয় মোড় কর্ণাটকে, বিধায়কদের গণইস্তফা খারিজের ভাবনা স্পিকারের]

মঙ্গলবার রাজ্যসভা নতুন করে উত্তাল হয় কংগ্রেস এবং তৃণমূল সাংসদদের হট্টগোলের জেরে। কর্ণাটক ইস্যুতে রাজ্যসভায় বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন কংগ্রেস নেতারা। তাদের দাবি, বিজেপির হস্তক্ষেপেই কর্ণাটক সরকারের বর্তমান দুরবস্থা। কংগ্রেস সাংসদদের সঙ্গে তাল মেলান তৃণমূল সাংসদরাও। এর জেরে রাজ্যসভার অধিবেশন মুলতুবি করে দিতে হয় চেয়ারম্যানকে। এ নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ক্ষোভ উগরে দেন বিজেপি সাংসদ স্বপন দাশগুপ্ত। বিরোধীদের উদ্দেশে তাঁর কটাক্ষ, “আমি নিশ্চিত কংগ্রেস এবং তৃণমূল রাজ্যসভার অধিবেশনে হট্টগোল করেছে কারণ ওরা আজ বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল দেখতে চাইছিল। সেজন্যেই অধিবেশন মুলতুবি করে দিত হল। অন্য কোনও কারণ তো আমি দেখতে পাচ্ছি না।” উল্লেখ্য, রাজ্যসভার মতো লোকসভাতেও দেখা গিয়েছে বিক্ষোভের আঁচ। আর বিক্ষোভ নিতান্তই রাজনৈতিক, এর সঙ্গে বিশ্বকাপের কোনও মিল নেই। তবে যেহেতু ক্রিকেট মরশুম চলছে, তাই বিজেপি সাংসদ বিরোধীদের কটাক্ষ করতে ক্রিকেটের উদাহরণই টেনে এনেছেন।

[আরও পড়ুন: লোকসভায় ৮টি বিল পেশ সরকারের, নজরদারির অভিযোগে সরব বিরোধীরা ]

ক্রিকেটের উদাহরণ টেনে সংসদে বক্তব্য অবশ্য নতুন কিছু নয়। সোমবারই কংগ্রেস সাংসদ শশী থারুর বাজেট নিয়ে বক্তব্য রাখতে গিয়ে টেনে আনেন ক্রিকেটের উদাহরণ। তিনি বলেন, “ক্রিকেট এখন আমাদের মাথায় ঘুরপাক খাচ্ছে। তাই ক্রিকেটীয় ভাষায় আমার বলা উচিত, প্রথম বাজেট থেকে আমরা সরকারের কাছে বড় বড় বাউন্ডারি প্রত্যাশা করেছিলাম। কিন্তু আমরা এমন একটা বাজেট দেখলাম যেখানে অপ্রত্যাশিত ডিফেন্সিভ শট খেলা হল। বাজেটে সহজ ক্যাচ ছাড়া হয়েছে, অকারণে নো বল-ওয়াইড বল করা হয়েছে।” সাংসদদের এইসব বক্তব্যেই স্পষ্ট, সংসদ চত্বরও ক্রিকেট আমেজে গা ভাসাতে কুণ্ঠাবোধ করেনি।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement