২১ আষাঢ়  ১৪২৭  মঙ্গলবার ৭ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

‘করোনা নিয়ে রাহুলের জ্ঞান সীমিত’, কটাক্ষ বিজেপি সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডার

Published by: Sucheta Chakrabarty |    Posted: May 30, 2020 7:52 pm|    Updated: May 30, 2020 9:47 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা ঠেকাতে কেন্দ্রের ব্যর্থতা নিয়ে বার বার সরব হয়েছেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী (Rahul Gandhi)। এবার তাঁর মন্তব্যের পালটা জবাব দিলেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডা। ওয়ানাড় সাংসদকে আক্রমণ শানিয়ে শনিবার তিনি বলেন যে, করোনা নিয়ে রাহুল গান্ধীর জ্ঞান সীমিত।

করোনা রোধের উপায় নিয়ে প্রায় দিনই কেন্দ্রকে তোপ দেগেছেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধী। শুধু তিনি নন, কংগ্রেস সভানেত্রী সোনিয়া গান্ধী-সহ কংগ্রেসের প্রথম সারির নেতারা কেউই কেন্দ্রকে এই বিষয়ে আক্রমণ করতে ছাড়েননি। কখনও পরিযায়ী শ্রমিক, কখনও ঘোষিত হওয়া আর্থিক প্যাকেজ কখনও বা লকডাউনের পরিকল্পনা নিয়ে বার বার কেন্দ্রকে কটাক্ষ করেছেন কংগ্রেসের তাবড় নেতৃত্বরা। সংক্রমণ রোধে প্রথম থেকেই কেন্দ্রকে বেশি পরিমাণে করোনা পরীক্ষা করার বিষয়ে জোর দিয়েছিলেন রাহুল গান্ধী। আর্থিক মন্দা ভবিষ্যতে বড় সমস্যা হবে বলেও সতর্ক করেন তিনি। এমনকি কেন্দ্রকে চোখে আঙুল দিয়ে দেখাতে বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ নিতে পিছপা হননি রাহুল গান্ধী। তা সত্ত্বেও এদিন তাঁর জ্ঞানের পরিধি নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি।

[আরও পড়ুন:রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৫ হাজার ছাড়াল, ২৪ ঘণ্টায় মৃত আরও সাত]

দ্বিতীয় মোদী সরকারের বর্ষপূর্তিতে সাংবাদিক বৈঠক করেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডা (J P Nadda)। এই বৈঠকেই রাহুল গান্ধীকে করোনা নিয়ে পালটা আক্রমণ করলেন তিনি। তিনি বলেন, “করোনা নিয়ে কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীর স্বল্প ধারণা রয়েছে। এই মারণ ভাইরাসের হাত থেকে মুক্তির উপায় কী, তা না বলে সোনিয়া পুত্র ক্রমশ রাজনীতি করে যাচ্ছেন। কোভিড সংক্রমণ নিয়ে রাহুল গান্ধীর পড়াশোনাও অল্প। তাই বিভিন্ন সময়ে তিনি এমন মন্তব্য করেন যা এই সংকটকালে দেশবাসীর মনে বিভ্রান্তি তৈরি করেছে। মোদি সরকার সংক্রমণ রুখতে সমস্ত সঠিক পদ্ধতি অবলম্বন করেছেন।” ওয়ানাড় সাংসদের প্রতিটি মন্তব্য উদ্দেশ্য প্রণোদিত বলেও কটাক্ষ করেন তিনি।

[আরও পড়ুন:‘কেমন আছো?’, আশা ভোঁসলের ফোন পেয়ে আপ্লুত করোনা আক্রান্ত সুজিত বসু]

সর্বভারতীয় সভাপতি আরও বলেন, “দ্বিতীয় মোদি সরকার মাত্র এক বছরে একাধিক বলিষ্ঠ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন।” পৃথিবীর শক্তিশালী দেশগুলো করোনা মোকাবিলা করতে গিয়ে নাজেহাল হয়ে পড়লেও বিপুল জনসংখ্যা নিয়ে ভারত মারণ ভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণ করতে পেরেছে বলেই দাবি করেন তিনি। তবে গেরুয়া শিবিরের আক্রমণে চুপ থাকেনি কংগ্রেসও। জে পি নাড্ডার মন্তব্যের পালটা প্রতিক্রিয়া দিয়েছেন প্রবীণ কংগ্রেস নেতা কে সি বেণুগোপাল। তিনি বলেন, “মোদি সরকার গঠনমূলক পরামর্শকে সমালোচনা বলে মনে করেন। ফলস্বরূপ দেশে সংক্রমণ বাড়ছে।”

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement