১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

যুবতীকে গণধর্ষণ করে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভিডিও পোস্ট দুষ্কৃতীদের

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: June 3, 2019 9:21 pm|    Updated: June 3, 2019 9:21 pm

An Images

ছবিটি প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মন্দির যাওয়ার পথে গণধর্ষণের শিকার ৩০ বছরের এক যুবতী। শুধু তাই নয়, ধর্ষণের ভিডিও তুলে সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট করে দেয় দুষ্কৃতীরা। ঘটনাটি ঘটেছে রাজস্থানের পালি জেলায়। সোমবার নির্যাতিতার অভিযোগের ভিত্তিতে এই ঘটনায় জড়িত চারজনকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। তবে এখনও একজন পলাতক বলে জানা গিয়েছে।

[আরও পড়ুন- নাবালক ছেলেকে ফাঁস দিয়ে ঝুলিয়ে দিল বাবা! নৃশংস দৃশ্য ক্যামেরাবন্দি করল মেয়ে]

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, ধর্ষিতা ওই যুবতীর স্বামী শ্রমিকের কাজ করেন। ফলে বেশিরভাগ সময় বাড়িতে একাই থাকতেন তিনি। গত ২৬ মে এক বন্ধুর সঙ্গে স্থানীয় একটি মন্দিরে যাচ্ছিলেন ওই যুবতী। সেসময় রাস্তা থেকে তাঁকে জোর করে তুলে নিয়ে যায় পাঁচ দুষ্কৃতী।

তারপর নির্জন স্থানে নিয়ে গিয়ে একাধিকবার ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ। এমনকী ধর্ষণের ভিডিও তুলে সোশ্যাল মিডিয়াতে পোস্ট করে দেয়। প্রথমে ভয়ে বিষয়টি কাউকে না জানালেও রবিবার পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করেন ওই যুবতী। তারপরই চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়।

[আরও পড়ুন- ফিরল নিপা আতঙ্ক, কেরলের হাসপাতালে ভরতি পড়ুয়া]

এপ্রসঙ্গে পালি শিল্পতালুক এলাকার পুলিশ আধিকারিক কিশোর সিং ভাট্টি জানান, অভিযোগ দায়ের হওয়ার পরেই তদন্তে নামে পুলিশ। আর পরেরদিনই অভিযুক্তদের মধ্যে চারজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। ধৃতরা হল জিতেন্দ্র ভাট (২০), গোবিন্দ ভাট (২০), দীনেশ ভাট (২৪) ও মহেন্দ্র ভাট (২২)। তাদের বিরুদ্ধে অপহরণ, গণধর্ষণ, মারধর-সহ একাধিক অভিযোগে মামলা দায়ের করা হয়েছে। তবে আরও এক অভিযুক্ত সঞ্জয় ভাট পলাতক। তার সন্ধানে তল্লাশি চালানো হচ্ছে। ধৃতদের জেরা করার পর আদালতে তোলা হবে। পাশাপাশি মেডিক্যাল পরীক্ষার জন্য ওই যুবতীকে পাঠানো হবে হাসপাতালে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement