BREAKING NEWS

২৪  মাঘ  ১৪২৯  বুধবার ৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

অপমানজনক মন্তব্য করিনি, কারকারে নিয়ে কমিশনকে উত্তর সাধ্বী প্রজ্ঞার

Published by: Bishakha Pal |    Posted: April 22, 2019 2:15 pm|    Updated: April 22, 2019 2:15 pm

Sadhvi Pragya replies to Election Commission notice

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: হেমন্ত কারকারেকে নিয়ে অপমানজনক কোনও মন্তব্যই করেননি। নির্বাচন কমিশনের শোকজের জবাবে একথা সাফ জানিয়ে দিলেন ভোপালের বিতর্কিত বিজেপি প্রার্থী সাধ্বী প্রজ্ঞা। শনিবার ২৬/১১-র হামলায় শহিদ এটিএস অফিসার হেমন্ত কারকরের বিরুদ্ধে বিতর্কিত মন্তব্যের জেরে তাঁকে নোটিস পাঠায় নির্বাচন কমিশন। সেই নোটিসেরই জবাব দিলেন সাধ্বী প্রজ্ঞা।

গত বৃহস্পতিবার ভোপালে বিজেপি প্রার্থী সাধ্বী প্রজ্ঞা বলেছিলেন, “লকআপে আমার উপর দিনের পর দিন অত্যাচার করত হেমন্ত কারকারে। সেই সময় হেমন্ত কারকারেকে অভিশাপ দিয়েছিলাম। বলেছিলাম, মৃত্যু হবে তাঁর। সেই অভিশাপ ফলে গিয়েছে।” সাধ্বীর এই মন্তব্যের ভিডিও ছড়িয়ে পড়তেই তোলপাড় পড়ে যায়। বিষয়টি নিয়ে আসরে নেমে পড়ে বিরোধী দলগুলি। পরে অবশ্য বিরোধীদের সমালোচনার মুখে নিজের বয়ান বদল করেন সাধ্বী। বিবৃতি দিয়ে বলতে বাধ্য হন, “কাউকে ব্যক্তিগতভাবে আঘাত দিতে চাইনি। কেউ যদি আঘাত পেয়ে থাকেন তাহলে ক্ষমা চাইছি। আমি এভাবে বলিনি। আমার মন্তব্যের ভুল ব্যাখ্যা করা হচ্ছে।” এমনকী, কারকারেকে ‘শহিদ’ বলেও মন্তব্য করেন। কিন্তু তাতেও খুব একটা লাভ হয়নি। বিরোধীদের দাবি ছিল, শহিদকে অসম্মান করার পাশাপাশি নির্বাচনী আচরণবিধিও ভঙ্গ করেছেন বিজেপি প্রার্থী। এরপরই সাধ্বীকে নোটিস পাঠায় কমিশন।

[ আরও পড়ুন: কলম্বোর সন্ত্রাসবাদী হামলায় মৃত ২ জেডি (এস) সদস্য, শোকপ্রকাশ কুমারস্বামীর ]

রবিবার সেই নোটিসেরই জবাব দিয়েছেন সাধ্বী। বলেন, “আমি কোনও শহিদকে নিয়ে কোনও মানহানিকর মন্তব্য করিনি। আমি শুধু কংগ্রেস সরকারের আমলে তাঁদের নির্দেশে আমার উপর হওয়া অত্যাচারের কথা বলেছি। আমার সঙ্গে যা হয়েছে, তা জনগণের সামনে তুলে ধরা আমার অধিকার।”

তবে শুধু হেমন্ত কারকারে নয়, বাবরি মসজিদ ধ্বংস নিয়েও বিতর্কিত মন্তব্য করেন ভোপালের বিজেপি প্রার্থী। শনিবার একটি বেসরকারি সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে প্রজ্ঞা বলেন, ‘‘বাবরি মসজিদ গুঁড়িয়ে দিতেই আমরা ওটার মাথায় উঠেছিলাম। বাবরি ধ্বংসের জন্য আমরা কেন অনুশোচনা করব? সত্যি বলতে কী, আমার এতে গর্ব হয়৷ ওখানে কিছু বাড়তি অংশ পড়ে ছিল৷ আমরা সেটা পরিষ্কার করেছি৷ বরং এটা আমাদের দেশের সম্মান বাড়িয়েছে৷ আমরা ওখানে প্রভু রামের বড় মন্দির বানাব৷’’ যদিও এই মন্তব্যের পরই প্রজ্ঞার বিরুদ্ধে নোটিস জারি করেছে নির্বাচন কমিশন

                        [ আরও পড়ুন: পুরোহিতের দেওয়া কয়েন নিতে হুড়োহুড়ি, তামিলনাড়ুর মন্দিরে পদপিষ্ট হয়ে মৃত অন্তত ৭ ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে