১৬ মাঘ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ৩১ জানুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

মিসাইলের টুকরো ভারতে কীভাবে? এফ-১৬ নিয়ে মার্কিন পত্রিকার তথ্যকে চ্যালেঞ্জ সীতারমণের

Published by: Bishakha Pal |    Posted: April 7, 2019 12:35 pm|    Updated: April 7, 2019 12:35 pm

Sitharaman asks US magazine to check the facts before making claims

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পাকিস্তানি যুদ্ধবিমান এফ-১৬ নিয়ে মার্কিন পত্রিকার উপর রীতিমতো তোপ দাগলেন বিদায়ী প্রতিরক্ষামন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ। শনিবার ওই পত্রিকার রিপোর্ট তিনি নস্যাৎ করে দিয়ে বলেন, যদি এফ-১৬ যুদ্ধবিমান ধ্বংসই না হবে, তবে তার টুকরো ভারতীয় ভুখণ্ডে এল কোথা থেকে?

কিছুদিন আগে জনপ্রিয় মার্কিন পত্রিকা ‘ফরেন পলিসি’-র একটি প্রতিবেদনে বলা হয়, মার্কিন প্রতিনিধিরা পাকিস্তানের হাতে থাকা প্রতিটি এফ-১৬ যুদ্ধবিমান গুনে দেখেছেন৷ এবং তাতে দেখা গিয়েছে পাকিস্তানের সবকটি এফ-১৬ যুদ্ধবিমান অক্ষত অবস্থায় রয়েছে। এই প্রতিবেদনের বিরুদ্ধেই তোপ দাগেন বিদায়ী প্রতিরক্ষামন্ত্রী। সীতারমণ বলেন, মার্কিন পত্রিকার ওই রিপোর্ট ভিত্তিহীন। এই ধরনের মন্তব্য করার আগে যেন তারা সবকিছু খতিয়ে দেখেন, সেই আবেদনও জানিয়েছেন তিনি৷ নিজের মন্তব্যের সপক্ষে প্রমাণ দিতেও পিছপা হননি সীতারমণ। সরাসরি তিনি মার্কিন পত্রিকার কর্তৃপক্ষকেই প্রশ্ন করেন, AMRAAM মিসাইলের যে অংশ ভারতে পাওয়া গিয়েছে, তা শুধুমাত্র এফ-১৬ যুদ্ধবিমানেই ব্যবহার হয়। যদি প্রতিবেদনকে সত্যি বলে মেনে নেওয়া হয়, তবে ভারতে এর টুকরো এল কী’করে? এছাড়া এফ-১৬ যুদ্ধবিমানের ইলেকট্রনিক প্রমাণ রয়েছে ভারতীয় বায়ুসেনার হাতে। বায়ুসেনার উইং কম্যান্ডার অভিনন্দন বর্তমান যে ওই যুদ্ধবিমানটি নামিয়েছিলেন, সেই প্রমাণও রয়েছে।

[ আরও পড়ুন: বাড়িতে ঢুকে জওয়ানকে হত্যা, জঙ্গি হামলায় আতঙ্ক জম্মু-কাশ্মীরের সোপোরে ]

সীতারমণ এরপরই বলেন, মার্কিন মুলুকের কিছু অফিসারও ‘ফরেন পলিসি’ পত্রিকায় প্রকাশিত হওয়া এই রিপোর্ট ঠিক নয় বলে জানিয়েছেন। পেন্টাগন স্বীকার করেছে, কোনও মার্কিন প্রতিনিধি দল এর মধ্যে পাকিস্তানে সফর করেনি। বিষয়টি শুধু মার্কিন পত্রিকা আর ভারতীয় বায়ুসেনার মধ্যেই আটকে রাখেননি সীতারমণ। স্বভাবসিদ্ধ ভঙ্গিতে কংগ্রেস-সহ বিরোধী দলগুলিকে কটাক্ষ করেন তিনি। বলেন, অনেকে মিথ্যে তথ্য ছড়াচ্ছে। কিন্তু কংগ্রেসের ‘ভজনমণ্ডলী’ নিজের দেশের নিরাপত্তার উপরই প্রশ্ন তুলছে। অবশ্য এটা তাদের সহজাত।

পুলওয়ামা কাণ্ডের প্রতিশোধ নিতে ২৬ ফেব্রুয়ারি পাক অধিকৃত কাশ্মীরে ও পাকভূমিতে ঢুকে হামলা চালায় ভারতীয় বায়ুসেনা৷ ধ্বংস করে দেওয়া হয় জঙ্গিদের তিনটি প্রশিক্ষণ ঘাঁটি৷ এরপরের দিনই ভারতের আকাশসীমায় ঢোকার চেষ্টা করে পাক বায়ুসেনার একাধিক যুদ্ধবিমান। কিন্তু তাদের সেই চেষ্টা ব্যর্থ করে ভারতীয় বায়ুসেনা৷ পাক বায়ুসেনাকে ধাওয়া করে ভারতের মিগ-২১ বাইসন যুদ্ধবিমান৷ এবং পাকিস্তানে ঢুকে আটক হন বায়ুসেনার উইং কমান্ডার অভিনন্দন বর্তমান। ভারতের তরফে দাবি করা হয়, ওইদিন আকাশপথের যুদ্ধে ধ্বংস হয় পাক সেনার যুদ্ধবিমান এফ-১৬৷ যদিও পাক সেনার তরফে সেই দাবি উড়িয়ে দেওয়া হয়৷

[ আরও পড়ুন: ভোট বৈতরণী পেরোতে ভগবানই ভরসা তেলেঙ্গানার চন্দ্রশেখর রাওয়ের ]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে