BREAKING NEWS

১ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ঘরে ফেরার তাগিদে বান্দ্রা স্টেশনে পরিযায়ী শ্রমিকদের বিক্ষোভ, পুলিশের লাঠিচার্জ

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: April 14, 2020 7:09 pm|    Updated: April 14, 2020 7:09 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রথমবার লকডাউন ঘোষণার পর ঘরে ফেরার জন্য ছোটাছুটি শুরু হয়ে গিয়েছিল দিল্লিতে। রাজধানীর বুকে আনন্দ বিহারে বাস টার্মিনাসে সেই ভয়াবহ দৃশ্য এখনও স্মৃতিতে টাটকা। এবার সেই দৃশ্যেরই পুনরাবৃত্তি হল মুম্বইয়ের বান্দ্রায়। মঙ্গলবার সকালে প্রধানমন্ত্রী দেশজুড়ে লকডাউনের মেয়াদ ৩ মে পর্যন্ত বাড়ানোর ঘোষণা করতেই ঘরে ফেরার তাগিদে হাজার হাজার পরিযায়ী শ্রমিকরা জড়ো হয়েছিল বান্দ্রা স্টেশনের কাছে। তাঁদের বিক্ষোভে উত্তাল পরিস্থিতি হয় বান্দ্রায়। জমায়েত হঠাতে ব্যাপক লাঠিচার্জ করে পুলিশ।

এদিন সকালে প্রধানমন্ত্রী লকডাউনের মেয়াদ বাড়াতেই ঘরে ফেরার তাগিদে বান্দ্রা স্টেশনে এসে বিক্ষোভ দেখাতে থাকেন পরিযায়ী শ্রমিকরা। তাঁদের একটাই দাবি, বাড়ি ফেরার ব্যবস্থা করুক সরকার নাহলে তাঁদের পেট ভরানোর ব্যবস্থা করা হোক। লকডাউন ভেঙে তাঁদের এই জমায়েত নিয়ে ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়। বাধ্য হয়ে লাঠিচার্জ করে পুলিশ। এই ঘটনায় অনেকে জখম হন। জানা গিয়েছে, এখনও বিক্ষোভ চলছে।

[আরও পড়ুন: লকডাউনে বন্ধ বিক্রি, রাস্তায় টন টন আঙুর ফেলছেন চাষিরা!]

জানা গিয়েছে, এদিন দুপুরেই বান্দ্রার রাস্তায় নেমে আসেন কয়েক হাজার মানুষ। লকডাউন উঠতে পারে আশা করে দুপুরের দিকে বান্দ্রায় স্টেশনের বাইরে বাস ডিপোয় জড়ো হয়েছিলেন তাঁরা। ভেবেছিলেন ট্রেন বা বাস চলবে হয়তো। তা না হওয়াতেই রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন তাঁরা। তাঁদের হটাতে লাঠিচার্জ করে পুলিশ। এই ঘটনায় কেন্দ্রীয় সরকারকে কাঠগড়ায় তুলেছেন মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকরের ছেলে তথা মহারাষ্ট্রের মন্ত্রী আদিত্য ঠাকরে। পরিযায়ী শ্রমিকদের জন্য বিকল্প ব্যবস্থা না করাতেই এই ঘটনা বলে কটাক্ষ আদিত্যর।

[আরও পড়ুন: ‘বিকল্প ব্যবস্থার কথা ভেবেছেন?’, লকডাউন বৃদ্ধি নিয়ে কেন্দ্রকে প্রশ্ন প্রশান্ত কিশোরের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement