BREAKING NEWS

৯ শ্রাবণ  ১৪২৮  সোমবার ২৬ জুলাই ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

২১ জুলাই এবার দিল্লিতেও পালিত হতে চলেছে তৃণমূলের ‘শহিদ দিবস’

Published by: Sulaya Singha |    Posted: July 14, 2021 1:03 pm|    Updated: July 14, 2021 2:18 pm

Trinamool Congress to celebrate 'Shahid Diwas' in Delhi on July 21 | Sangbad Pratidin

নন্দিতা রায়, নয়াদিল্লি: রাজধানী দিল্লিতেও এবার পালিত হতে চলেছে তৃণমূলের ‘শহিদ দিবস’। ২১ জুলাই তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee) ভাষণ দিল্লি পর্যন্ত পৌঁছে দেওয়ারই পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে বলে খবর। 

এ প্রসঙ্গে তৃণমূলের (TMC) রাজ্যসভার মুখ্য সচেতক সুখেন্দুশেখর রায় বলেন, “করোনার কারণে এবার শহিদ দিবস ভারচুয়ালি পালন করা হচ্ছে। তাই দেশের যেখানে যেখানে তৃণমূল কংগ্রেসের সদস্য-সমর্থক রয়েছেন, সেখানেই তৃণমূল নেত্রীর ভাষণ শোনা যাবে। দিল্লির তৃণমূলের দপ্তরেও একইভাবে পালিত হবে ২১ জুলাই। আসলে সেই সময় সংসদের বাদল অধিবেশন চলবে। ফলে লোকসভা ও রাজ্যসভার বেশ কয়েকজন তৃণমূল সাংসদ দিল্লিতেই থাকবেন। তাই দিল্লির তৃণমূল দপ্তরে একটি LED স্ক্রিন লাগানোর পরিকল্পনা রয়েছে। সাংসদরা যাতে শহিদ দিবসে শামিল হতে পারেন, সেই কারণেই এই পরিকল্পনা।”

[আরও পড়ুন: সংসদের বাদল অধিবেশন শুরুর আগেই ১৮ জুলাই সর্বদলীয় বৈঠক ডাকলেন স্পিকার Om Birla]

গত বছর, ঘোর করোনা কালে (Coronavirus) প্রথমবার ২১ জুলাই ভারচুয়াল মাধ্যমে উদযাপনের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কোভিডবিধি মেনে তৃণমূলের শহিদ দিবস পালিত হয়েছিল বুথে বুথে। তৃণমূল নেত্রী নিজের বক্তব্য রেখেছিলেন কালীঘাটের দলীয় কার্যালয় থেকে। করোনা কাল পুরোপুরি কাটেনি। শীঘ্রই তৃতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ার আশঙ্কা। তাই গত বছরের মতো এ বছরও ২১ জুলাইয়ের শহিদ দিবসের অনুষ্ঠান মঞ্চ বেঁধে নয়, হবে ভারচুয়ালি। আগেই তৃণমূল ভবনে সাংবাদিক বৈঠক করে এ কথা ঘোষণা করেছিলেন তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় (Partha Chatterjee)।

মঙ্গলবার তৃণমূলের তরফে টুইটারে একটি ভিডিও পোস্ট করেও একই বার্তা দেওয়া হয়। যেখানে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, করোনার কাঁটা এখনও দূর হয়নি। তাই সতর্ক থাকতে হবে। ভারচুয়ালিই প্রতিটি ব্লকে ২১ জুলাই পালিত হবে। তবে একুশের নির্বাচনে বিরাট জয়ের পর দিল্লিতে তৃণমূল সুপ্রিমোর ভারচুয়াল উপস্থিতি অত্যন্ত তাৎপর্যপূর্ণ বলেই মনে করছে রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের একাংশ। এতে বৃহত্তর রাজনৈতিক লক্ষ্যপূরণের ইঙ্গিতও রয়েছে বলেই মনে করা হচ্ছে।   

[আরও পড়ুন: ‘গোরক্ষা আমাদের সংস্কৃতি’, অসমে কংগ্রেসের গলায় ‘নরম হিন্দুত্ব’র সুর]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement