BREAKING NEWS

৩২ আষাঢ়  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১৬ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

লকডাউনের মার, চাকরি খোয়ালেন ৬০০ জন উবের ইন্ডিয়ার কর্মী

Published by: Sucheta Chakrabarty |    Posted: May 26, 2020 12:57 pm|    Updated: May 26, 2020 1:02 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লকডাউনের জেরে বিপন্ন অর্থনীতি। কোথায় একটু সাশ্রয় হবে তাই নিয়ে রোজই চুলচেরা বিশ্লেষণ করছে প্রতিটি বেসরকারি সংগঠন। সংস্থার লক্ষ্মীলাভ বজায় রাখতে তাই কড়া পদক্ষেপ নিল উবের (Uber) ইন্ডিয়া। ৬০০ কর্মীকে ছাঁটাই করা হল সংস্থা থেকে।

চঞ্চলা লক্ষ্মীকে ধরে রাখতে হবে শক্তহাতে। তাতে যতই হাতকে মুষ্টিবদ্ধ করতে হোক, কোনও ক্ষতি নেই। এই পন্থা অবলম্বন করেই কড়া পদক্ষেপ নিল উবের ইন্ডিয়া। মঙ্গলবার অ্যাপ ক্যাব সংস্থা উবের ইন্ডিয়া জানিয়েছে যে, করোনা ভাইরাস মহামারীজনিত কারণে প্রায় ৬০০ পূর্ণ-সময়ের কর্মচারীদের ছাঁটাই করতে বাধ্য হচ্ছে তারা। মারণ ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবের বিস্তারকে রোধ করতে দেশ লকডাউনের চতুর্থ পর্যায়ে রয়েছে। এতদিনের লকডাউনের জেরে দেশের অর্থনীতি স্থবির হয়ে পড়েছে এবং দেশজুড়ে বিভিন্ন সংস্থায় চলছে ব্যাপকহারে ছাঁটাই। এরই সঙ্গে এবার যুক্ত হল উবের ইন্ডিয়ার এই পদক্ষেপ।

[আরও পড়ুন:জোড়া অগ্নিকাণ্ডে বিধ্বস্ত দিল্লি, ১৫০০ বস্তি পুড়ে ছাই, দাউদাউ করে জ্বলছে জুতোর কারখানাও]

উবের ইন্ডিয়া এবং দক্ষিণ এশিয়ার সভাপতি প্রদীপ পরমেশ্বরণ এক বিবৃতিতে বলেন, “চালক এবং রাইডার-সহ অন্যান্য বিভাগেও প্রায় ৬০০ জন পূর্ণ সময়ের কর্মী ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন। এই মাসে ছাঁটাই হওয়া বিশ্বব্যাপী কর্মসংস্থান হ্রাসের একটি বড় অংশ। কবে দেশে থেকে করোনার করাল গ্রাস সরে যাবে তা অনুশ্চিত। ফলে সংস্থা থেকে কর্মীদের ছাটাই করা ছাড়া কোনও বিকল্প পথ খোলা নেই সংস্থার কাছে।” গত সপ্তাহে, উবের ইন্ডিয়ার মূল সংস্থা মার্কিন উবের টেকনোলজিস লাভজনক পরিস্থিতিতে থাকা সত্ত্বেও ৩ শতাংশ কর্মীকে ছাটাই করে। চলতি মাসের শুরুর দিকেই উবের টেকনোলজিস জানিয়েছিল যে, ৬ হাজার ৭০০ টি কর্মসংস্থান ক্ষতিগ্রস্থ হবে এবং অ্যাপ-ক্যাব সহ খাদ্য সরবরাহের ক্ষেত্রে উবার নিজের মূল ব্যবসাগুলিতে মনোনিবেশ করবে।

[আরও পড়ুন:‘আমার জন্য বিশেষ ছাড় আছে’, কোয়ারেন্টাইনে না গিয়ে আজব যুক্তি কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর]

ভারতে উবেরের প্রতিদ্বন্দ্বী সংস্থা ওলা (Ola) গত সপ্তাহেই ১হাজার ৪০০ কর্মচারীর ছাঁটাইয়ের কথা ঘোষণা করে। ওলা জানিয়েছিল যে মারণ রোগের প্রাদুর্ভাব ঠেকাতে লকডাউনের ফলে ওলার আয় ৯৫ শতাংশ হ্রাস পেয়েছে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement